কনসার্ট ফর বাংলাদেশ,১লা আগস্ট,১৯৭১

1305

বার পঠিত

৭০ সালে ভোলায় প্রলয়ঙ্কারী সাইক্লোনটির পরপরই বাংলাদেশের বন্যাদূর্গতদের জন্য কিছু করার কথা ভাবছিলেন রবি শংকর।ব্যাপারটি নিয়ে আলোচনা করেছিলেন বন্ধু জর্জ হ্যারিসনের সঙ্গে।হ্যারিসন অনেকদিন ধরেই ভারতীয় রাগ সঙ্গীতের প্রতি অনুরক্ত,সুবাদেই সেতার শিখছিলেন শংকরের কাছে।উদ্দেশ্য গানের বিক্রি ও রয়ালটি বাবদ টাকা বন্যাদূর্গতদের জন্য ব্যয় হবে এই কথা টা আগেই ভেবে রেখেছিলেন দুজন।এই উদ্দেশ্যটা নেওয়া পরে হয়েছিলো রেকর্ডিং শুরুর আগেই।ততদিনে যুদ্ধ শুরু হয়ে গেছে বাংলাদেশে।

 

তারপর রবি শংকর পরিবর্তন করলেন অনুরোধের।হ্যারিসনকে বললেন ছোটোখাটো একটা কনসার্ট আয়োজনের।উদ্দেশ্য ২৫-৩০ হাজার ডলার সংগ্রহ করে শরণার্থীদের সাহায্য করা।কিন্তু জর্জ হ্যারিসন নিজের জনপ্রিয়তার কথা মাথায় রেখেই হয়তো তার আত্নজীবনী তে লিখেছিলেন ‘The Beatles had been trained that if you’re going to do it, you might as well do it big, and why not make a million dollars?”

 

জুনের শুরতেই মিলিয়ন ডলারের কথা মাথায় রেখেই কনসার্ট নিয়ে মাথা ঘামানো শুরু করেন দুজন।ভেন্যু ম্যাডিসন স্কয়ার গার্ডেন খালি পাওয়া গেলো ১ আগস্ট,আগে বা পরের সব তারিখ বুকড।জর্জ হ্যারিসন সর্বপ্রথমে তার প্রাক্তন দল দ্য বিটল্‌সের সদস্যদের যোগ দিতে বলেন।পল ম্যাকার্টনি সরাসরি অস্বীকৃতি জানান,জন লেনন অনুষ্ঠানে আসতে রাজি ছিলেন,কিন্তু তিনি সেসময় আদালতে তাঁর সন্তানের ব্যপারে তাঁর স্ত্রী ইয়োকো ওনোর সাথে আইনি লড়াই চালাচ্ছিলেন বলে শেষ পর্যন্ত আসতে পারেননি।আর মিক জ্যাগার তখন ছিলেন দক্ষিণ ফ্রান্সে।ভিসা সংক্রান্ত জটিলতার কারণে তাঁর পক্ষেও আসা সম্ভব হয়নি।এমন অবস্থায়  রবি শংকর বলেছিলেন  “I was in a very sad mood, having read all this news, and I said, “George, this is the situation, I know it doesn’t concern you, I know you can’t possibly identify.” But while I talked to George he was very deeply moved … and he said, “Yes, I think I’ll be able to do something.”

শেষ পর্যন্ত বিটলসের একমাত্র রিঙ্গো স্টার তাঁদের সাথে যোগ দিতে সক্ষম হন। সাথে আরো যোগ দেন বব ডিলান, এরিক ক্ল্যাপটন, বিলি প্রিস্টন, হ্যারিসনের নতুন দল ব্যাড ফিঙ্গারের যন্ত্রীদল ও আরো অনেকে।জুলাইয়ের শুরুতেই একটি ছোটো বিজ্ঞাপন ছাপা হয় নিউইয়র্ক টাইমসের পেছন পাতায়। ‘হ্যারিসন অ্যান্ড ফ্রেন্ডস’ দুটো কনসার্ট আয়োজন করতে যাচ্ছে বাংলাদেশের জন্য।

omipialblog_1264852289_5-press_conference

ছয় ঘণ্টার মধ্যেই দুটো কনসার্টের ৪০ হাজার টিকেট শেষ।এমনিতে সাংবাদিকরা ফ্রি টিকেটপেয়ে থাকেন,তবে তারাও এই উদ্যোগের নেপথ্য কারণ জেনে ১২ হাজার ডলার অনুদান দিয়েছিলেন আয়োজকদের।কোনো রাজনৈতিক রং না লাগে এবং নিক্সন প্রশাসন না চটে, সেজন্য বাংলাদেশের দূর্গত শিশুদের ত্রানের কথা বলেছেন তিনি। জানিয়েছেন কনসার্ট থেকে পাওয়া সব অর্থ ইউনিসেফের মাধ্যমে শরণার্থী শিশুদের সাহায্যে পাঠানো হবে।পোস্টারেও ছিলো সেকথা।

omipialblog_1264851652_4-Concertforbangladeshmovieposter private dermatologist london accutane

অবশেষে ১ আগস্ট  ১৯৭১ সালের রবিবার ২.৩০ এবং ৮.০০ অপরাহ্নে  প্রায় ৪০,০০০ দর্শকের উপস্থিতিতে নিউইয়র্কের ম্যাডিসন স্কয়ার গার্ডেনে অনুষ্ঠিত  হয় কনসার্ট ফর বাংলাদেশ।বাংলাদেশের  শরণার্থীদের জন্য আন্তর্জাতিক সচেতনতা এবং তহবিল ত্রাণ প্রচেষ্টা বাড়াতে এই কনসার্ট।খোদ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে জর্জ হ্যারিসনের এই প্রশংসনীয় সাহসী পদক্ষেপ বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের পক্ষে বহির্বিশ্বের জনমত গঠনে বিশেষ ভূমিকা রেখেছিল১৯৭১ এ সেই দিনে আসামের শিলচর সেই গহীন অরণ্যঘেরা পার্বত্য দুর্গম লোহারবন ট্রেনিং ক্যাম্পেও গেরিলা যুদ্ধের ট্রেনিংরত অবস্থায় বিবিসি ও ভয়েস অব আমেরিকার মাধ্যমে ‘দি কনসার্ট ফর বাংলাদেশ’-এর খবর পৌঁছে যায়  কানে ভেসে আসে

My friend came to me,
with sadness in his eyes
He told me that he wanted help
Before his country dies
Although I couldn`t fell the pain,
I knew I`d to try
Now I`am asking all of you,
To help us save some lives
Bangla Desh, Bangla Desh

মুক্তিযোদ্ধা ওয়াহিদ ফারুকের চোখে সেই  স্মৃতি আজো ভাসে। ট্রেনিং ক্যাম্পে জয়বাংলা শ্লোগান দিয়ে উল্লাসে ফেটে পড়েছিলো চারপাশ এবং সেই জয়বাংলা শ্লোগান পাহাড়-ঝর্না-জঙ্গলে প্রতিধ্বনি হয়ে ফিরে আসে যার ফলে  সাহস এবং মনোবল আরো বেড়ে গিয়েছিলো। তখন মনে হয়েছিল  মুক্তিযোদ্ধারা এখন আর একা নয়, তাদের সাথে রয়েছে বিশ্ববিবেক।হানাদার নরপশু পাকিস্তানি হায়েনাদের বিরুদ্ধে প্রাণপণে লড়ার জন্য মুক্তি যোদ্ধারা  হাতে তুলে নিয়েছিলো অস্ত্র আর জর্জ হ্যারিসন নিয়েছিলেন গিটার।হ্যারিসনের সেই প্রতিবাদী গিটার ও গানকে আমাদের স্বাধীনতার পক্ষে, মুক্তিযুদ্ধের পক্ষে  পৃথিবী কাঁপানো  হাতিয়ারই বলতে হবে।১৫টি গান গাওয়া এই কনসার্ট হতে প্রায় ২৪৩,৪১৮.৫০ ইউএস ডলার সংগৃহীত হয় যার পুরোটাই ইউনিসেফের তত্ত্বাবধানে বাংলাদেশের জন্য দিয়ে দেয়া হয়। সিডি ও ডিভিডি হতে প্রাপ্ত অর্থও ইউনিসেফের ফান্ডে জমা করা হয়।

তথ্যসুত্রঃউইকিপিডিয়া,অপি রহমান পিয়াল,গুগেল

You may also like...

আপনার ই-মেইল ও নাম দিয়ে মন্তব্য করুন * can levitra and viagra be taken together

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>

cialis new c 100

Heads up! You are attempting to upload an invalid image. If saved, this image will not display with your comment.

achat viagra cialis france
thuoc viagra cho nam
accutane prices