অমর মহাকাব্য একাত্তরের ১১ অধ্যায়ের সবটুকু।

440

বার পঠিত

আমার মুক্তিযুদ্ধ আমার মহাকাব্য।এই কাব্যের সরল ইতিহাসগুলো কমবেশি সবাই জানলেও,জানি না তার ভিতরের সবটুকু।পাঠ্য বইয়ের বাহিরে কজনই বা খুজে বেড়ায় এই ইতিহাস।যেমনটি ছোট বেলায় ক্লাস ৫ এ শিখেছিলাম,বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধ পরিচলনায় অস্থায়ী বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে যুদ্ধ পরিচালনার জন্য বাংলাদেশের সমগ্র ভূখণ্ডকে ১১টি যুদ্ধক্ষেত্র বা সেক্টরে ভাগ করেছিলো, এই।এরপর অনেক বড় হবার পরও ঠিক ভাবে জানতে পারিনি ১১টি সেক্টরের সব ইতিহাস,খুজে পাইনি পাঠ্যবইয়েও।তাই পাঠ্যবইয়ের ভিতরে-বাহিরের থাকা সবকিছু এক করার সিদ্ধান্ত নিলাম।মুক্তিযুদ্ধের ১১টি সেক্টরের কমান্ডার কে ছিলো,সাব সেক্টর কয়টি ছিলো,কোন জেলা কোন সেক্টরে ছিলো,সাত বীরশ্রেষ্ঠের কে কোন সেক্টরে ছিলেন ইত্যাদি ইত্যাদি। চলুন শুরু করা যাক silnejsie ako viagra

সেক্টর-১ঃ
_______________________________________________________
সেক্টর কমান্ডারঃ মেজর জিয়াউর রহমান(এপ্রিল-জুন)
মেজর রফিকুল ইসলাম(জুন-ডিসেম্বর)
_______________________________________________________
সংশিষ্ট তৎকালীন জেলাঃ

চট্টগ্রাম,পার্বত্য চট্টগ্রাম এবং নোয়াখালী জেলার মহুরী নদীর পূর্বাংশের সমগ্র এলাকা।

 

সংশিষ্ট বর্তমান জেলাঃ
চট্টগ্রাম,বান্দরবন,রাঙামাটি,খাগড়াছড়ি,কক্সবাজার এবং নোয়াখালী জেলার মহুরী নদীর পূর্বাংশের সমগ্র এলাকা।
________________________________________________________

সাব -সেক্টর সংখ্যাঃ ৫টি

রিশিমুখ (ক্যাপ্টেন শামসুল ইসলাম)
শ্রীনগর (ক্যাপ্টেন মতিউর রহমান,ক্যাপ্টেন মাহফুজুর রহমান)
মানুঘাট (ক্যাপ্টেন মাহফুজুর রহমান)
তাবালছড়ি(সার্জেন্ট আলি হোসেন)এবং
দিমাগিরি (আর্মি সার্জেন্ট,নামঃঅজানা)।

সদর দপ্তরঃহরিনা,ত্রিপুরা,ভারত
_______________________________________________________

এ সেক্টরের বীরশ্রেষ্ঠঃ

ল্যান্স নায়েক মুন্সি আবদুর রউফ(ইপিআর)
জম্নঃ৮ মে ১৯৪০,সালামতপুর,কামারখালি,ফরিদপুর।
মৃত্যুঃ২০ এপ্রিল ,১৯৭১,রাঙামাটি জেলার নালিয়ার চর উপজেলার বুড়িমারি এলাকার চিংড়ি খালের পাড়ে।
সমাহিতঃ নালিয়ার চর, রাঙামাটি।
_________________________________________________________________________________________________________________

সেক্টর-২ঃ♥
_______________________________________________________
সেক্টর কমান্ডারঃ মেজর কে.এম.খালেদ মোশারফ(এপ্রিল-সেপ্টেম্ভর)♥
মেজর এ.টি.এম.হায়দায় (সেপ্টেম্ভর-ডিসেম্ভর)<3
_______________________________________________________
সংশিষ্ট তৎকালীন জেলাঃ
কুমিল্লা,আখাউড়া-ভৈরব,ঢাকা শহর,ফরিদপুর ও নোয়াখালী জেলার অংশবিশেষ।
সংশিষ্ট বর্তমান জেলাঃ
ঢাকা(শহর),নারায়নগঞ্জ,মুন্সিগঞ্জ,শরীয়তপুর,ফেনী,ব্রাম্ননবাড়িয়া,নোয়াখালী,চাদপুর,কুমিল্লা,লক্ষ্মীপুর,মাদারীপুর অধিকাংশ ও ফরিদপুর।
___________________________________________________________

সাব -সেক্টর সংখ্যাঃ ৬টি

গঙ্গাসাগর, আখাউড়া এবং কসবা (মাহবুব,লেফটেন্যান্ট ফারুক এবং লেফটেন্যান্ট হুমায়ুন কবির);
মন্দাভব (ক্যাপ্টেন গফর);
সালদা-নদী (মাহমুদ হাসান);
মতিনগর (ল্লেফটেন্যান্ট দিদারুল আলম);
নির্ভয়পুর (ক্যাপ্টেন আকবর, লেফটেন্যান্ট মাহবুব); এবং
রাজনগর (ক্যাপ্টেন জাফর ইমাম, ক্যাপ্টেন শহীদ,এবং লেফটেন্যান্ট ইমামুজ্জামান prednisone side effects menopause

সদর দপ্তরঃ আগরতলা মেলাঘর ত্রিপুরা,ভারত।
____________________________________________________________

এ সেক্টরের বীরশ্রেষ্ঠঃসিপাহী মোস্তফা কালাম(সেনাবাহিনী)
জম্নঃ১৯৪৯,মোটুপী গ্রাম,আলীনগর ভোলা
ম্রিতুঃ১৭ এপ্রিল,১৯৭১, দরুইন গ্রাম,আখাউড়া,ব্রাম্ননবাড়িয়া।
সমাহিতঃমোগড়া,আখাউড়া,ব্রাম্ননবাড়িয়া।
_________________________________________________________________________________________________________________

সেক্টর-৩ঃ
_____________________________________________________
সেক্টর কমান্ডারঃমেজর কে.এম.শফিউল্লাহ(এপ্রিল-সেপ্টেম্ভর)
মেজর এ.এন.এম.নুরুজ্জামান(সেপ্টেম্ভর-ডিসেম্ভর)
______________________________________________________
সংশিষ্ট তৎকালীন জেলাঃ
আখাউড়া-ভৈরব রেললাইন থেকে পূর্ব দিকে কুমিল্লার অংশবিশেষ,হবিগঞ্জ,কিশোরগঞ্জ,ঢাকা জেলার অংশবিশেষ।
সংশিষ্ট বর্তমান জেলাঃ
ঢাকা(আংশিক),গাজীপুর,মানিকগঞ্জ,নরসিংদী,কিশোরগঞ্জ,হবিগঞ্জ(অধিকাংশ)।
_______________________________________________________________________________

সাব-সেক্টর সংখ্যাঃ১০টি cialis 10 mg costo

আশ্রমবাড়ি (ক্যাপ্টেন আজিজ,ক্যাপ্টেন ইজাজ)
বাঘাইবাড়ি (ক্যাপ্টেন আজিজ,ক্যাপ্টেন ইজাজ)
হাতকাটা (ক্যাপ্টেন মতিউর রহমান)
সিমলা (ক্যাপ্টেন মতিন)
পঞ্চবাটি (ক্যাপ্টেন নাসিম)
মনতালা (ক্যাপ্টেন এম এস এ ভূঁইয়া)
বিজয়নগর (ক্যাপ্টেন এম এস এ ভূঁইয়া)
কালাচ্ছরা (লেফটেন্যান্ট মজুমদার)
কলকলিয়া (লেফটেন্যান্ট গোলাম হেলাল মোর্শেদ)এবং
বামুতিয়া (লেফটেন্যান্ট সাঈদ)।

সদরদপ্তরঃহেজামারা,ত্রিপুরা,ভারত।
________________________________________________________________

এ সেক্টরের বীরশ্রেষ্ঠঃ এ সেক্টরের কোন শহীদ বীরশ্রেষ্ঠ উপাধি তে ভূষিত হয়নি।

_________________________________________________________________________________________________________________ metformin er max daily dose

সেক্টর-৪ঃ
_________________________________________________________________
সেক্টর কমান্ডারঃ মেজর চিত্তরঞ্জন দত্ত
ক্যাপ্টেন এ রব।
_________________________________________________________________
সংশিষ্ট তৎকালীন জেলাঃ
সিলেটের পূর্বাঞ্চল,খোয়াই-শায়েস্তাগঞ্জ রেললাইন থেকে পূর্ব-উত্তর দিকে সিলেটের ডাউকি সড়ক।
সংশিষ্ট বর্তমান জেলাঃ
ঢাকা(আংশিক),মৌলভীবাজার,হবিগঞ্জ(আংশিক)
_________________________________________________________________________

সাব-সেক্টরঃ৬ টি

জালালপুর (মাহবুবুর রব সাদী);
বাড়াপুঞ্জি (ক্যাপ্টেন এ রব);
আমলাসিদ (লেফটেন্যান্ট জহির);
কুকিতাল (ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট কাদের, ক্যাপ্টেন শরিফুল হক);
কৈলাস শহর (লেফটেন্যান্ট ওয়াকিউজ্জামান); এবং
কামালপুর (ক্যাপ্টেন এনাম)

সদর-দপ্ত্রঃপ্রথমে করিমগঞ্জ,পরে আসামের মাছিমপুর।
______________________________________________________________________________

এ সেক্টরের বীরশ্রেষ্ঠঃ সিপাহী মোহাম্মদ হামিদুর রহমান(সেনাবাহিনী)
জম্নঃ২ ফেব্রুয়ারি,১৯৫৩ খোদ্দখালিশপুর,মহেশপুর,ঝিনাইদহ।
মৃত্যুঃ২৮ অক্টোবর,১৯৭১,ধলই,মাধবপুর,কমল্গঞ্জ,মৌলভীবাজার।
স্মাহিতঃপ্রথমে হাতিমারাছড়া,আমবাসা,ধলই ত্রিপুরা,ভারত।পরে মিরপুরে শহীদ বুদ্ধিজীবী কবরস্থান,ঢাকা।
________________________________________________________________________________________________________________

সেক্টর-৫ঃ
_______________________________________________________________________________________
সেক্টর কমান্ডারঃ মেজর মীর শওকত আলী
________________________________________________________________________________________
সংশিষ্ট তৎকালীন জেলাঃ
সিলেটের পশ্চিম এলাকা,সিলেট-ডাউকি সড়ক থেকে সুনামগঞ্জ এবং বৃহত্তর ময়মনসিংহের সীমান্ত এলাকা।
সংশিষ্ট বর্তমান জেলাঃ
সিলেট (অধিকাংশ),সুনামগঞ্জ(আংশিক)।
__________________________________________________________________
সাব-সেক্টর সংখ্যাঃ৬টি cialis new c 100

মুক্তাপুর (সার্জেন্ট নাজির হোসেন,্মুক্তিযোদ্ধা ফারুক ছিলেন সেকেন্ড ইন কমান্ড);
ডাউকি (সার্জেন্ট মেজর বি আর চৌধুরী);
শিলা (ক্যাপ্টেন হেলাল);
ভোলাগঞ্জ (লেফটেন্যান্ট তাহের উদ্দিন আখঞ্জী);
বালাট (সার্জেন্ট গনি, ক্যাপ্টেন সালাউদ্দিন এবং এনামুল হক চৌধুরী);এবং
বারাচ্ছড়া (ক্যাপ্টেন মুসলিম উদ্দিন).

সদর দপ্তরঃ বাঁশতলা,ছাতক,সুনামগঞ্জ।
__________________________________________________________
এ সেক্টরের বীরশ্রেষ্ঠঃ এ সেক্টরের কোন শহীদ বীরশ্রেষ্ঠ উপাধি তে ভূষিত হয়নি।
________________________________________________________________________________________________________________

সেক্টর-৬ঃ
__________________________________________________________
সেক্টর কমান্ডারঃ উইং কমান্ডার এ কে বাশার।
__________________________________________________________
সংশিষ্ট তৎকালীন জেলাঃ
সমগ্র রংপুর জেলা এবং দিনাজপুর জেলার অংশবিশেষ।
সংশিষ্ট বর্তমান জেলাঃ
পঞ্চগড়,ঠাকুরগাঁও,নীলফামারী,লালমনিরহাট,রংপুর,দিনাজপুর(অধিকাংশ),কুড়িগ্রাম ও গাইবান্ধা(আংশিক)।
_____________________________________________________________________________________________
সাব-সেক্টরঃ ৫টি

ভজনপুর (ক্যাপ্টেন নজরুল, ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট সদরুদ্দিন এবং ক্যাপ্টেন শাহরিয়ার)
পাটগ্রাম (প্রথমদিকে ইপিআর এর জুনিয়র কমিশন প্রাপ্ত অফিসারদের মধ্যে ভাগ করে দেয়া হয় এবং পরে ক্যাপ্টেন মতিউর রহমান দায়িত্ব নেন।)
সাহেবগঞ্জ (ক্যাপ্টেন নওয়াজেশ উদ্দীন)
মোগলহাট (ক্যাপ্টেন দেলোয়ার)
চাউলাহাটি (ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট ইকবাল)।

সদর-দপ্তরঃ বুড়িমারী পাট গ্রাম।
______________________________________________________________
এ সেক্টরের বীরশ্রেষ্ঠঃ এ সেক্টরের কোন শহীদ বীরশ্রেষ্ঠ উপাধি তে ভূষিত হয়নি।
_________________________________________________________________________________________________________________

সেক্টর-৭ঃ
সেক্টর কমান্ডারঃ মেজর নাজমুল হক(১০ এপ্রিল,১৯৭১-২৭ সেপ্টেম্বর,১৯৭১)
মেজর কাজী নূরুজ্জামান(২৮ সেপ্টেম্বর,১৯৭১-১৪ ফেব্রুয়ারি,১৯৭২)
সংশিষ্ট তৎকালীন জেলাঃ
দিনাজপুর জেলার দক্ষিণাঞ্চল, বগুড়া, রাজশাহী এবং পাবনা জেলা।
সংশিষ্ট বর্তমান জেলাঃ
জয়পুরহাট,নওগাঁ,বগুড়া,চাঁপাইনবাবগঞ্জ,রাজশাহী,নাটোর,সিরাজগঞ্জ,পাবনা।
__________________________________________________________________
সাবসেক্টর সংখ্যাঃ৮টি

মালন (প্রথমদিকে ইপিআর এর জুনিয়র কমিশন প্রাপ্ত অফিসারদের মধ্যে ভাগ করে দেয়া হয় এবং পরে ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গির দায়িত্ব নেন );
তপন ( মেজর নাজমুল হক);
মেহেদিপুর (সুবেদার ইলিয়াস, ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গির );
হামজাপুর (ক্যাপ্টেন ইদ্রিস);
আঙিনাবাদ (অজানা মুক্তিযোদ্ধা);
শেখপাড়া (ক্যাপ্টেন রশিদ);
ঠোকরাবাড়ি (সুবেদার মুয়াজ্জেম); এবং
লালগোলা (ক্যাপ্টেন গিয়াসউদ্দিন চৌধুরী)।

সদরদপ্তরঃবালুরঘাটের তঙ্গুরপুর,পশ্চিমবঙ্গ,ভারত।
_________________________________________________________
এ সেক্টরের বীরশ্রেষ্ঠঃক্যাপ্টেন মহিউদ্দীন জাহাঙ্গীর (সেনাবাহিনী)
জন্ম: ৭ মার্চ, ১৯৪৯ রহিমগঞ্জ,আগরপুর,বাবুগঞ্জ,বরিশাল
মৃত্যু: ১৪ ডিসেম্বর, ১৯৭১ চাঁপাইনবাবগঞ্জ
সমাহিতঃশিবগঞ্জ,চাঁপাইনবাবগঞ্জ।
_________________________________________________________________________________________________________________

সেক্টর-৮ঃ
_____________________________________________________
সেক্টর কমান্ডারঃ মেজর আবু ওসমান চৌধুরী (এপ্রিল- আগস্ট)
মেজর এম.এ. মনজুর (আগস্ট-ডিসেম্বর)
_____________________________________________________
সংশিষ্ট তৎকালীন জেলাঃ
সমগ্র কুষ্টিয়া ও যশোর জেলা, ফরিদপুরের অধিকাংশ এলাকা এবং দৌলতপুর-সাতক্ষীরা সড়কের উত্তরাংশ।
সংশিষ্ট বর্তমান জেলাঃ
কুষ্টিয়া,চুয়াডাঙ্গা,ঝিনাইদাহ,রাজবাড়ী,ফরিদপুর(অধিকাংশ),গোপাল্গঞ্জ,মাদারীপুর(আংশিক),নড়াইল,যশোর,খুলনা(উত্তরাংশ),সাতক্ষীরা(উত্তরাং),বাগেরহাট(উত্তরাংশ),মাগুরা,মেহেরপুর,বরিশাল(আংশিক)।
_______________________________________________________

সাবসেক্টরসংখ্যাঃ ৭টি domperidona motilium prospecto

বয়ড়া (ক্যাপ্টেন খন্দকার নাজমুল হুদা);
হাকিমপুর (ক্যাপ্টেন সফিউল্লাহ);
ভোমরা (ক্যাপ্টেন সালাউদ্দিন, ক্যাপ্টেন শাহাবুদ্দিন);
লালবাজার (ক্যাপ্টেন এ আর আজম চৌধুরী);
বনপুর (ক্যাপ্টেন মোস্তাফিজুর রহমান);
বেনাপোল (ক্যাপ্টেন আবদুল হালিম, ক্যাপ্টেন তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী);
শিকারপুর (ক্যাপ্টেন তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী, লেফটেন্যান্ট জাহাঙ্গীর)।

সদরদপ্তরঃ কল্যাণী,ভারত।
___________________________________________________________
এ সেক্টরের বীরশ্রেষ্ঠঃল্যান্স নায়েক নূর মোহাম্মদ শেখ(ইপিআর)
জম্নঃ২৬ফেব্রুয়ারী,১৯৩৬,মহিষখোলা,চন্ডীবরপুর,সদর নড়াইল।
মৃত্যুঃ৫ সেপ্টেম্বব,১৯৭১ যশোরের গোয়ালহাটি গ্রামে
সমাহিতঃযশোরের শশা উপজেলার কাশিপুর গ্রামে।
_________________________________________________________________________________________________________________

সেক্টর-৯ঃ
______________________________________________________
সেক্টর কমান্ডারঃ মেজর এম.এ. জলিল (এপ্রিল-ডিসেম্বর প্রথমার্ধ)
মেজর জয়নুল আবেদীন(ডিসেম্বর এর অবশিষ্ট দিন)।
_______________________________________________________
সংশিষ্ট তৎকালীন জেলাঃ
দৌলতপুর-সাতক্ষীরা সড়ক থেকে খুলনার দক্ষিণাঞ্চল এবং সমগ্র বরিশাল ও পটুয়াখালী জেলা।
সংশিষ্ট বর্তমান জেলাঃ
বরিশাল(আংশিক),বরগুনা,ভোলা,ঝালকাঠি,পটুয়াখালী,পিরোজপুর,খুলনা,সাতক্ষীরা,বাগেরহাটের দক্ষিনাংশ।
________________________________________________________
সাব-সেক্টরঃ৩টি

তাকি
হিঞ্জালগঞ্জ
শমসেরনগর

সদরদপ্তরঃটাকি,বশিরহাট,ভারত।
________________________________________________________________
এ সেক্টরের বীরশ্রেষ্ঠঃ এ সেক্টরের কোন শহীদ বীরশ্রেষ্ঠ উপাধি তে ভূষিত হয়নি।
_________________________________________________________________________________________________________________

সেক্টর-১০ঃ

কোনো আঞ্চলিক সীমানা নেই। নৌবাহিনীর কমান্ডো দ্বারা গঠিত। শত্রুপক্ষের নৌযান ধ্বংসের জন্য বিভিন্ন সেক্টরে পাঠানো হতো।
_______________________________________________________
এ সেক্টরের বীরশ্রেষ্ঠঃ ইঞ্জিনরুম আটিফিসার রুহুল আমিন
জম্নঃ জুন,১৯৩৫ বাগপাছড়া,দেউটি,সোনাইমুড়ি,নোয়াখালি
মৃত্যুঃ ১০ ডিসেম্ভর,১৯৭১ রূপসা,খুলনা
সমাহিতঃবাগমারা,রূপসা,খুলনা।
_________________________________________________________________________________________________________________

সেক্টর-১১ঃ
_____________________________________________________________
সেক্টর কমান্ডারঃ মেজর আবু তাহের (আগস্ট-নভেম্বর)
ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট এম. হামিদুল্লাহ (নভেম্বর-ডিসেম্বর)।
_____________________________________________________________
সংশিষ্ট তৎকালীন জেলাঃ
কিশোরগঞ্জ মহকুমা বাদে সমগ্র ময়মনসিংহ ও টাঙ্গাইল জেলা এবং নগরবাড়ি-আরিচা থকে ফুলছড়ি-বাহাদুরাবাদ পর্যন্ত যমুনা নদী ও তীর অঞ্চল।
সংশিষ্ট বর্তমান জেলাঃ
শেরপুর,জামালপুর,ময়মনসিংহ,নেত্রকোনা,টাঙ্গাইল।
____________________________________________________________
সাব-সেক্টরঃ৮টি

মানকারচর (স্কোয়াড্রন লিডার এম হামিদুল্লাহ খান);
মাহেন্দ্রগঞ্জ (মেজর আবু তাহের; লেফটেন্যান্ট মান্নান);
পুরাখাসিয়া (লেফটেন্যান্ট হাশেম);
ধালু (লেফটেন্যান্ট তাহের; লেফটেন্যান্ট কামাল);
রংগ্রা (মতিউর রহমান)
শিভাবাড়ি (ই পি আর এর জুনিয়র কমিশন প্রাপ্ত অফিসারদের মধ্যে ভাগ করে দেয়া হয় );
বাগমারা (ই পি আর এর জুনিয়র কমিশন প্রাপ্ত অফিসারদের মধ্যে ভাগ করে দেয়া হয় ); এবং
মাহেশখোলা (ই পি আর এর জনৈক সদস্য)।

সদরদপ্তরঃপ্রথমে তেলডালা পরে মহেন্দ্রগঞ্জ,আসাম,ভারত।
___________________________________________________________________
এ সেক্টরের বীরশ্রেষ্ঠঃ এ সেক্টরের কোন শহীদ বীরশ্রেষ্ঠ উপাধি তে ভূষিত হয়নি।

You may also like...

  1. তথ্যগুলো একসাথে সংরক্ষণ দেখে অনেক ভাল লাগল। ধন্যবাদ আপনাকে। using zithromax for strep throat

  2. খুবই প্রয়োজনীয় একটি পোস্ট! সংগ্রহে রাখার মত…

প্রতিমন্তব্যমায়াবী তেজস্বিনী বাতিল

আপনার ই-মেইল ও নাম দিয়ে মন্তব্য করুন *

Question   Razz  Sad   Evil  Exclaim  Smile  Redface  Biggrin  Surprised  Eek   Confused   Cool  LOL   Mad   Twisted  Rolleyes   Wink  Idea  Arrow  Neutral  Cry   Mr. Green

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>

Heads up! You are attempting to upload an invalid image. If saved, this image will not display with your comment.

prednisone 10mg dose pack poison ivy
doxycycline monohydrate mechanism of action