Category: আলোকচিত্র

zithromax azithromycin 250 mg

SONY Alpha 7s রিভিউ

a7s হলো Sony’s full-frame mirrorless lineup এর তৃতীয় মডেল, একটি ১২ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা যেটিতে স্টিল ছবির দক্ষতার পাশাপাশি ভিডিও রেকর্ডিং এর উপরেও অনেক বেশি গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। যদিও a7s মূলত স্টিল শুটার, Sony জোরালোভাবে দাবি করছে এর মেইন ফোকাস হচ্ছে ভিডিওগ্রাফি। a7s সম্পর্কে যেই জিনিসটা আপনার সর্বপ্রথম জানা দরকার সেটা হল, এটি Internally 1080P ভিডিও এবং External Recorder এ 4K ভিডিও হিসেবে ব্যবহৃত হতে পারে। Internal 1080P ফুটেজটি XAVC S ফরমেটে রেকর্ড হয়, যেটি Sony র XAVC System এর আরও একটি Consumer -friendly ভার্সন। যাইহোক, যদিও a7s এর বডি এর 24 এবং 36MP সিস্টার মডেলগুলোর মতই, তবুও a7s এবং a7R...

accutane prices

গণহত্যা’৭১:কালের বিবর্তনে হারিয়ে যাওয়া কিছু ইতিহাস (পর্ব-০৬)

এর আগের ৫ টি পর্বতে বিভিন্ন বধ্যভূমিতে সংঘটিত গণহত্যার ইতিহাস গুলো তুলে ধরেছিলাম। তবে এবারের পর্বটি একটু অন্যভাবে সাজাতে চেষ্টা করেছি।একাত্তরে মূলত পুরো বাংলাদেশই পরিণত হয়েছিলো একটি বধ্যভূমিতে। আমার মনেহয় এই দেশটার এমন কোন জায়গা খুঁজে পাওয়া যাবে না যেখানে শহীদের রক্ত মাংসের অস্তিত্ব নেই। ৩০ লাখ শহীদের রক্ত মাংসের প্রলেপেই গঠিত এই দেশের মাটি।এই দেশটার প্রত্যেকটি ধূলিকণা একেক ফোঁটা রক্তের বিনময়ে অর্জিত। এই দেশের মানচিত্রটা গড়া ৩০ লাখ শহীদ, ৬ লাখ বীর মাতা আর লাখো মুক্তিযোদ্ধার সর্বোচ্চ ত্যাগ, মহিমা আর ভালোবাসায়, এই দেশের পতাকার লাল বর্ণ প্রতিনিধিত্ব করে এক সাগর রক্তের আর সবুজ, সেতো এই দেশেরই রূপের মহিমা জানান...

মিউনিখ অলিম্পিক এবং একজন শেখ কামালের স্মৃতি…

১৯৭২ সাল। মিউনিখ অলিম্পিক। জার্মান এমব্যাসির পিআরও রুহেল আহমেদের অলিম্পিক দেখার খুব শখ। কিন্তু সম্পর্কে চাচা পশ্চিম জার্মানির রাষ্ট্রদূত হুমায়ূন রশীদ চৌধুরী প্রতিদিন তার সামনে অলিম্পিকের ভিভিআইপি টিকিট দেখিয়ে ঘুরে বেড়ান। খুনসুটির সুরে হাসতে হাসতে বলেন, নট ইন ইয়োর লাইফটাইম ডিয়ার… রুহেল ভাইয়ের মেজাজ খারাপ হয়, কিন্তু তিনি কিছু বলতে পারেন না। হঠাৎ একদিন তার ডাক পড়ল চাচার রুমে। ঢোকামাত্র টিকিটের গোছা ছুড়ে দিলেন রাষ্ট্রদূত। থমথমে চেহারা। জানা গেল, প্রেসিডেন্ট শেখ মুজিবুর রহমান অসুস্থ, ডাক্তার বলেছেন, স্ট্রেস প্রবলেম, এক মাস রেস্ট নিতে। তাই সপরিবারে চলে এসেছিলেন সুইজারল্যান্ড। কিন্তু হাজার হাজার মানুষের মাঝে দিন কাটে যার, তিনি কি প্রবাসে একা থাকতে... zovirax vs. valtrex vs. famvir

zoloft birth defects 2013

ঈশা খাঁ’র রাজধানীতে একদিন

তখন সদ্য এইচএসসি পরীক্ষা শেষ হয়েছে। ভর্তি কোচিংও পুরোদমে শুরু হয়ে গেল বলে। একবার মুরু হয়ে গেলে আর দম ফেলার ফুসরত পাওয়া যাবে না। তাই আগে ভাগেই তিন বন্ধু মিলে ঘুরে এলাম লোকশিল্প জাদুঘর, ঈশা খাঁ’র রাজধানী – পানাম নগর আর মেঘনার বুকে। ঝিরি ঝিরি বৃষ্টি আর দমকা হাওয়া, সেই সাথে শত বছরের পুরোনো ঐতিহ্যের ছোঁয়া, সবটা মিলিয়ে অসাধারণ একটা দিন ছিল। সেই দিনের কিছু স্মৃতিই হাজির করলাম সভ্যদের সামনে।  

can levitra and viagra be taken together
clomid over the counter

ক্যামেরার ইতিবৃত্ত – পর্ব তিন (Aperture)

ক্লিক করলেই ছবি হয় কিন্তু ফটোগ্রাফি হয়না। আপনি যখন ফটোগ্রাফি করবেন বলে ঠিক করেছেন তখন আপনাকে কিছু বিষয় জানতে হবে। আজকের বিষয় Aperture.  ব্যাখ্যা দিয়ে শুরু করার আগে একটু বলে নেই, আপনি যদি aperture জিনিসটা পূর্ণ উপলব্ধি করতে পারেন তাহলে আপনার ক্যামেরার উপর আপনার সর্বোচ্চ সৃজনশীল আয়ত্ত থাকবে। আমার মতে, aperture হলো যেখানে ফটোগ্রাফির অনেক জাদুকরী জিনিস দেখা যায়। এমনকি এর পরিবর্তন দ্বারা Dimensional and Multidimensional Shots এর পার্থক্য বোঝা যায়। Aperture কি?  Aperture is most simply the opening of the lens. যখন আপনি ক্যামেরার শাটার বাটনে চাপ দিবেন,আপনার ক্যামেরায় একটি ছিদ্র খুলবে যেটা আপনার ক্যামেরাকে আপনি যেই ছবিটা তুলতে চান...

thuoc viagra cho nam

গণহত্যা’৭১:কালের বিবর্তনে হারিয়ে যাওয়া কিছু ইতিহাস(পর্ব-০৩)

স্বাধীনতার ৪৩ বছরে পাল্টে গেছে অনেক কিছুই। বিকৃত হয়েছে এবং হয়ে চলছে আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসগুলো। এমনকি কালের বিবর্তনে হারিয়েও গেছে অনেক তাৎপর্যপূর্ণ ইতিহাস।আমাদের জন্য অনেক লজ্জার হলেও সত্যি যে আমরা এতোটাই অকৃতজ্ঞ একটা জাতি যে, নিজেরা বহাল তাবিয়াতে চললেও আমাদের অনেক মুক্তিযোদ্ধা পিতা-মাতা আজ দিনাতিপাত করছে চরম দারিদ্র আর অবহেলার সাথে লড়াই করে।  সেই সাথে আমাদের শহীদ বীর মুক্তিযোদ্ধাদের গণকবর ও বধ্যভূমিগুলো আজো অবহেলায় পড়ে আছে।এমনকি হারিয়ে গেছে, মাটির সাথে মিশে গেছে অনেক গণকবরের স্মৃতিচিহ্ন। বিভিন্ন সময়ে দেশের গুটিকয়েক বধ্যভূমি সরকারি উদ্যোগে চিহ্নিত এবং সংরক্ষণ করা হলেও সারাদেশে ছড়িয়ে থাকা মুক্তিযুদ্ধের অগণিত স্মৃতিচিহ্ন এখনও চিহ্নিত করা হয়নি। এর অধিকাংশই...

একজন হারিয়ে যাওয়া শেখ কামালের গল্প… একজন কিংবদন্তী দেশপ্রেমিকের গল্প…

তার জন্ম হয়েছিল গোপালগঞ্জ জেলার টুঙ্গিপাড়া গ্রামের খুব সাধারণ এক পরিবারে ১৯৪৯ সালের ৫ই আগস্ট তারিখে। পাঁচ ভাইবোনের মধ্যে ২য় ছিলেন তিনি। খুব ছোট বেলার থেকেই ডানপিটে ছেলেটি পিতার আদর স্নেহ থেকে বঞ্চিত ছিলেন। সত্যি বলতে কি, ছেলেটার জন্মের পর থেকে তার পিতার সাথে তার ভালোমতো দেখাই হয় নি। কেননা তার পিতা শেখ মুজিবুর রহমান তখন বঙ্গবন্ধু হয়ে উঠছেন, বাঙ্গালী জাতির মুক্তিদূত হয়ে উঠছেন। পাকিস্তানী শোষকদের নির্মম শোষণের বিরুদ্ধে কথা বলবার কারনে, প্রতিবাদ করবার কারনে তার পিতাকে প্রায়ই কারাবরন করতে হয়। তোঁ একদিন বঙ্গবন্ধু জেল থেকে ছাড়া পেয়ে বাড়ি এসেছেন, বহুদিন পর বাড়িতে আনন্দের জোয়ার বয়ে যাচ্ছে। কিন্তু ছোট্ট ছেলেটি...

যন্ত্রের চোখে পড়ন্ত বিকেল থেকে সূর্যাস্ত

যন্ত্রের চোখে পড়ন্ত বিকেল থেকে সূর্যাস্ত    আলোকচিত্র- ০১   আলোকচিত্র- ০২    আলোকচিত্র- ০৩   আলোকচিত্র- ০৪   আলোকচিত্র- ০৫   আলোকচিত্র- ০৬   আলোকচিত্র- ০৭    আলোকচিত্র- ০৮    আলোকচিত্র- ১০    আলোকচিত্র- ১১    আলোকচিত্র- ১২

doctus viagra

সাঁঝের মেঘ

কোন অজ্ঞাত কারণে, মেঘের প্রতি আমার অদ্ভুত একটা দুর্বলতা আছে। মোড়ের টংয়ের দোকানে এককাপ চায়ের সাথে এক গাল ধোঁয়া ওড়ানোর খেলা খেলতে খেলতে আমি প্রায়শই ধোঁয়াদের দিকে তাকিয়ে থাকি। তাদের মেঘের দিকে উড়ে চলা দেখি। অনেক অনেক উড়ে, তাদের মেঘের সাথে মিশে যাওয়া দেখি। চলার পথে প্রায়শই মেঘের দিকে তাকিয়ে থাকি। আফ্রোদাইতের চেয়েও রহস্যময়ী রূপসী মনে হয় তাকে। মাঝে মাঝে তাকে ফ্রেমে বন্দী করার অপচেষ্টা চালাই। খুব যে সফল হই, তা নয়। কিছু অপচেষ্টাই আজকে হাজির করলাম একসাথে।

পরনিন্দা বা ভ্রমণের খেরোখাতা

হুট করে পাখি দেখতে আর তার ছবি তুলতে যাবার প্রস্তাব এলো জনৈক শিক্ষকের কাছে থেকে। আমরা দুইজন প্রায় রাজি হয়ে গেলাম। প্রায় কথাটা বলার কারণ এই শিক্ষকের স্বার্থপরতার জন্য প্রায় প্রতিবারই আমরা কানে ধরি- ‘আর না! স্যারের সাথে আর যদি কোনদিন বাইর হইসি তো নাম পাল্টায়া ফেলবো!’ আমরাও মানুষ- তাই স্যারের সাথে আবারো বের হই, আবারো কান ধরি! আমাদের নাম কিন্তু বদলায় না! এখানে আমরা মানে আমি- নিতান্তই বেকার মানুষ- পত্রিকার জন্য ফরমায়েশি কলম ঘষা ছাড়া আর একটা কাজই পারি- সেটা পাখির ছবি তোলার জন্য ঘুরে বেড়ানো। আর আরেকজন সজীব নজরুল হৃদয়- নাহ, এখানে তিনজন নয়, তিনজন মিলিয়ে একজন (আকৃতিতেও... will metformin help me lose weight fast

ফটোগ্রাফি

- এই কি করছ ? – কি করছি মানে ? – এভাবে ছবি তুলছ কেন ? সবসময় খালি ছবি ছবি ছবি . . . আমি এইসব Don’t like . – তুলছি তো কি হয়েছে ?  নিজের বউয়ের ছবি তুলছি ।  অন্য মেয়ের তো তুলছিনা । … … … এক দৃষ্টিতে দেয়ালের দিকে তাকিয়ে আছে রূপা ।  কিছুক্ষণ আগে শুভ একবার উকি দিয়ে গেছে ।  রূপাকে একটু খেলতে যাওয়ার কথা বলতে এসেছিল ।  রূপা তার দিকে তাকালোই না । আজকাল মা কেমন জানি রেগে রেগে থাকে ।  এইতো সেইদিন স্কুলের কোন একটা ফাংশন ছিল ।  সেই অনুষ্ঠানে শুভ আবৃত্তি করবে । ...

কিছু উক্তি – Some Quotes Every Photographer Should Know

ফটোগ্রাফি বিষয়টা হল নিজস্ব অনুভব মাত্র । কিছু উক্তি যা প্রত্যেক ফটোগ্রাফারের জানা উচিতঃ [ বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ উক্তিগুলো বাংলায় অনুবাদ না করে মৌলিকতার জন্য অবিকৃত অবস্থায় দেয়া হলো ]   ১। “Within every man and woman a secret is hidden, and as a photographer it is my task to reveal it if I can.” – Yousuf Karsh ২. “To me, photography is an art of observation. It’s about finding something interesting in an ordinary place… I’ve found it has little to do with the things you see and everything to do with the way you see them.” – Elliott Erwitt...

ক্যামেরার ইতিবৃত্ত – পর্ব ২ – ISO কী ?

ফিল্ম ক্যামেরার ক্ষেত্রে ISO বলতে বোঝাত একটি ফিল্ম আলোতে কী পরিমান স্পর্শকাতর ( Sensitive ) . এটা মূলত সংখ্যা দিয়ে বোঝানো হতো । যেমনঃ 100 , 200 , 400 , 800 ইত্যাদি । এই সংখ্যাটি যত ছোট হবে ফিল্মটি আলোতে তত কম Sensitive হবে আর আপনার তোলা ছবিটির Grain তত কম হবে । ডিজিটাল ফটোগ্রাফির ক্ষেত্রে , ISO সেন্সরের Sensitivity পরিমাপ করে থাকে । এক্ষেত্রেও নিয়মগুলো একই । সংখ্যামান যত কম , সেন্সরটি আলোতে তত কম স্পর্শকাতর এবং গ্রেইন কম । Higher ISO Settings মূলত কম আলোতে ব্যবহার করা হয় যাতে করে Faster Shutter Speed পাওয়া যায় । মনে করুন...

tome cytotec y solo sangro cuando orino

ক্যামেরার ইতিবৃত্ত – পর্ব ১

কোন জিনিস নিয়ে কাজ করার পূর্বে আমাদের সেই জিনিসটা সম্পর্কে ভালোভাবে জেনে নেওয়া উচিত । আজকাল অনেকেই ক্যামেরা কিনছেন । কেউ শখের বশে , আবার কেউ পেশার জন্য । তো কী ক্যামেরা কিনবেন , কিভাবে কিনবেন , আপনি যেই কাজের জন্য ক্যামেরা কিনছেন তার জন্য কোন ক্যামেরাটা ভালো তা জেনে নেয়া যাক । প্রথমে SENSOR নিয়ে বলি । সেন্সর হলো একটা ইলেকট্রনিক ডিভাইস যেটা অপটিক্যাল সিগন্যালকে ইলেকট্রনিক সিগন্যালে পরিণত করে ।  আমরা যদি ফিল্ম ক্যামেরার দিনগুলোতে ফিরে যাই তাহলে দেখতে পাব মোটামুটি একটা স্ট্যান্ডার্ড SLR ক্যামেরার ফিল্মের একটাই সাইজ ছিল : 24mmX36mm . কেউ অন্য কিছুর কথা চিন্তা করেনি ।...

para que sirve el amoxil pediatrico
capital coast resort and spa hotel cipro
side effects of quitting prednisone cold turkey venta de cialis en lima peru