Category: অনুবাদ

নৈতিকতার ইতিকথা

নৈতিকতা হচ্ছে মানব দর্শনের অন্যতম শক্তিশালী এবং অবিচ্ছেদ্য একটি অংশ। আর নৈতিকতা বা নীতিশাস্ত্র মানুষের দৈনন্দিন জীবনের ব্যবহারিক এবং প্রায়োগিক দিক থেকে ক্রম বিকাশমান। ভাল মন্দের মত নীতিশাস্ত্রও সময়, কাল এবং স্থানের সাথে আপেক্ষিক অর্থাৎ পরিবর্তনশীল। তারপরও কিছু মৌলিক নৈতিকতা মানব সভ্যতার ঊষালগ্ন থেকে অতি সবল এবং প্রবলভাবে বিকশিত হয়ে এসেছে। যেমন পোশাক,  খাদ্যাভ্যাস এবং শিল্পকলাসহ জীবনযাপনের মূল বিষয়গুলো। প্রায়োগিক এবং তাত্ত্বিক দিক বিবেচনায় নীতিশাস্ত্রকে দুইভাগে ভাগ করা যায় তা হল ‘ভাল’ এবং ‘মন্দ’। ক্রমাগত মানুষের ভাল-মন্দের ধারণা প্রস্ফুটিত হতে থাকলে তাত্ত্বিক নীতিশাস্ত্রও তার কাঠামোগত রূপ পেতে থাকে। মূলত সামাজিকভাবে দলবদ্ধ সমাজ গড়ে উঠা শুরু করলেই গোষ্ঠীবদ্ধ মানুষের সম্পর্ক অত্যাবশ্যক...

A Power Blanket Around Bangladesh

একসময় বলা হত যে দেশে সালফিউরিক এসিড উৎপাদন যত বেশী সে দেশের শিল্প তত অগ্রসরমান। এখন বোধহয় যে সব দেশের মাথা পিছু বিদ্যুতের  ব্যবহার যত বেশী সে দেশেই তত বেশী এগিয়ে। এখন ক্ষুদ্র থেকে মাঝারী কিংবা কুটির এমনকি বৃহৎ শিল্প অথবা আধুনিক তথ্যপ্রযুক্তিখাত সবই বিদ্যুতের ব্যবহারের সাথেই সম্পৃক্ত। আর তাই শক্তি কিংবা পাওয়ার কনজাম্পশনের মাথা পিছু হার দেখেই বুঝা সম্ভব কোন দেশ কতটা সম্বৃদ্ধ। সার্বিক বিদ্যুৎ শক্তি ব্যবহারের তুলনামূলক চার্ট [তথ্যসূত্রঃ উইকিপিডিয়া]  এই তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান কততম তা বের করা মুশকিল। তবে মাথা পিছু ২৮ ওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদিত হয় বাংলাদেশে ২০১২ সালের তথ্যানুযায়ী। এই তালিকায় শীর্ষে থাকা বেশীরভাগ রাষ্ট্র শীত প্রধান...

কারণ আমি মৃত্যুর জন্য থামতে অক্ষম

মৃত্যু জন্য আমার হয়নি থেমে যাওয়া- সে-ই আমার জন্য থামল দেখিয়ে দয়া- আমরা চড়ি তার সে রথে- অমরত্ব হল সঙ্গী সে পথে। চলছি ধীরে-জানা নাই তাড়াহুড়া রেখে দেওয়ালো সে আমার দ্বারা অবসর আর পরিশ্রম ভদ্রতা নেই তো কম- পেরোলাম বিদ্যালয়, যেথায় শিশুগণ খেলছে বৃত্তে – যখন বিরতির ক্ষণ- পেরিয়ে যাই শস্যক্ষেত্র- আর অস্তমিতপ্রায় মিত্র- অথবা- সেই আমাদের পেরিয়ে গেল বরং- কাঁপায় শিশিরে আনা স্বচ্ছ শীতলতার রং- আমার গাউন আর চাদর- লূতাতন্তুর মত কাপড়- থেমে গেলাম বাড়ির সামনে-দেখে আপাত মনে হয় যেন ভূমি থেকে কিছুটা জাগ্রত- ছাদ দৃশ্যমান সামান্য- কার্নিস ভূমিতে ডোবান- তারপর থেকে আজ কাটিয়ে বছর শত তবুও অনুভূতি যেন...

walgreens pharmacy technician application online

“ধর্মীয় মৌলবাদ একটি মানসিক ব্যাধি” এবং অভিজিৎ রায়ের “বিশ্বাসের ভাইরাস”

“বিশ্বাস নির্ভর সমাজে ধর্মের প্রভাব ব্যাপক। আমাদের পরিচিতি, রীতিনীতি, বিয়েসহ তাবৎ সামাজিক উৎসবে আমরা ধর্মের অস্তিত্ব খোঁজে পাই। কিন্তু আমরা ক’জনে জানি যে, ধর্মের বিস্তার আর টিকে থাকার ব্যাপারগুলো ভাইরাসের মত করে অনেকটা।” – অভিজিৎ রায় (বিশ্বাসের ভাইরাস) রাজীব হায়দার শোভন’কে উৎসর্গিত ২০১৪ সালে প্রকাশিত সদ্য প্রয়াত বিজ্ঞান লিখকও, গবেষক এবং প্রকৌশলী ডঃ অভিজিৎ রায়ের ‘বিশ্বাসের ভাইরাস’ বইয়ের কিছু অংশ এটি। এই বইয়ে আটটি অধ্যায় আছে। অধ্যায় গুলো নিম্নরূপঃ প্রথম অধ্যায়ঃ একজন নাফিস এবং বিশ্বাসের ভাইরাস দ্বিতীয় অধ্যায়ঃ বিশ্বাসের ভাইরাসঃ থাবা বাবার রক্তবীজ তৃতীয় অধ্যায়ঃ ব্লগার গ্রেফতারঃ ভাইরাসাক্রান্ত বাংলাদেশ চতুর্থ অধ্যায়ঃ ধর্ম কেন ভাইরাসের সমতুল্য পঞ্চম অধ্যায়ঃ ধর্ম কি সত্যিই... viagra in india medical stores

“জার্নি টু মার্স”: ওরিয়ন; অনাগত ভবিষ্যতের পথে প্রথম মানব মহাযাত্রা

অদূরভবিষ্যতে মহাকাশচারীরা ওরিয়ন মহাকাশযানে চেপেই আমাদের অতি পরিচিত লাল গ্রহ ‘মঙ্গল’-এ যাত্রা করবে। আর এই অনাগত ভবিষ্যতের পথে মানুষের প্রথম পদক্ষেপ হচ্ছে আজকের এই মহাযাত্রা। মহাযাত্রা না বলে বাঙলায় মঙ্গল যাত্রা বলাই শ্রেয়। ইংরেজিতে মঙ্গল অর্থাৎ মার্স শব্দটির এমন অর্থবোধক অর্থ নেই বোধহয়। এই পোস্টটি যখন প্রকাশিত হবে ঠিক তখনই অর্থাৎ বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৬:০৫ ঘটিকায় ‘ওরিয়ন’ মঙ্গলের উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করবে। নাসা’র কেনেডি স্পেস সেন্টার, ফ্লোরিডা থেকে মানবতার এই মহান মঙ্গল যাত্রা শুরু করতে যাচ্ছে সময়ের সবচে শক্তিশালী এই মহাকাশ যানটি। হুম এতক্ষণে ধরে ফেলেছেন এই মাইলফলক সৃষ্টিকারী মহাকাশ যানটির নাম ‘ওরিয়ন’ বাঙলায় কালপুরুষ। যারা আকাশের দিকে তাকিয়ে তারকাপুঞ্জ...

ঈশ্বরের অস্তিত্ব অস্বীকার করা এই দেশে অপরাধ দুর্নীতি কখনো নয়

ঘটনা সংক্ষেপঃ সাবেক মন্ত্রী আবদুল লতিফ সিদ্দিকী এমপির বিরুদ্ধে ওঠা সব অভিযোগ তদন্ত করে দেখা হবে বলছে সরকার। বিশেষ করে বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রীর দায়িত্বে থাকাবস্থায় সরকারের মূল্যবান সম্পত্তি বিনা টেন্ডারে বিক্রি, হস্তান্তর ও ইজারা দেওয়ার অভিযোগগুলো সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে তদন্ত করা হবে। ইতিমধ্যে বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয় থেকে লতিফ সিদ্দিকীর সব অনিয়ম-দুর্নীতির নানা তথ্য-উপাত্ত দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) কাছে পাঠানো হয়েছে বলে জানা গেছে। অথচ এই সেদিনও সরকারের পক্ষে টিভি টকশোগুলোর অন্যতম সরভ কণ্ঠস্বরের মধ্যে অন্যতম ছিলেন। তাহলে কেন আজ তিনি বিরাগভাজন? কারণ কারো অজানা নয় তাও তার সেই বিখ্যাত বক্তব্যটি একটু দেখি;  ‘আমি কিন্তু হজ আর তাবলিগ...

অন্তিম যাত্রা…

 নাইটউইশ (Nighwish): Nightwish হচ্ছে ফিনল্যান্ডের একটি সিম্ফোনিক পাওয়ার মেটাল ব্যান্ড। ১৯৯৬ সালে গীতিকার এবং কি-বোর্ডিস্ট টমাস হলোপাইনেনের হাত ধরে ফিনল্যান্ডে গড়ে উঠে এই ব্যান্ডটি সাথে ছিলেন গীটারিস্ট ইম্পো ভুরিনিন এবং মুল গায়ক টারযা তুরেনিন। তারপর যোগ দেন বেইজিস্ট সামি ভান্সকা। Angels Fall First (1997) তাদের প্রথম এ্যালবাম। এরপর নাইটউইশ কেবলই এগুতে হয়েছে। তাদের টাইপে তাঁরাই অন্যতম সেরা। সিম্পোনিক পাওয়ার মেটাল ধাঁচের গান করে যে কয়টা ব্যান্ড দুনিয়াজুড়ে খ্যাতি কামিয়েছে তার মাঝে অপর সেরা হচ্ছে ফিনল্যান্ডেরই এপোক্যালেপ্টিকা।   ব্যান্ড লাইন আপের টাইমলাইন দেখুনঃ  Nightwish ব্যান্ডের discography নিম্নে দেয়া হল। Angels Fall First (1997) Oceanborn (1998) Wishmaster (2000) Century Child (2002) Once (2004) Dark Passion Play (2007) Imaginaerum (2011) সর্বশেষ এ্যালবাম ইমাজেনিরিয়াম এ তারা তাঁদের প্রিয় কবি  Walt Whitman থেকে  Song...

September On Jessore Road: অ্যালেন গিন্সবার্গ; এক মহানুভব কবি………

আরউইন অ্যালেন গিন্সবার্গ সর্বাধিক পরিচিত অ্যালেন গিন্সবার্গ নামে।অ্যালেন গিন্সবার্গ একজন বিখ্যাত মার্কিন কবি ও গীতিকার।অ্যালেন গিন্সবার্গ ১৯৫০ সালের দিকে বিট প্রজন্মের সর্বাধিক পরিচিত একজন কবি। অ্যালেন গিন্সবার্গ ৩রা জুন ১৯২৬ সালে একটি ইহুদি পরিবারে জন্ম গ্রহন করেন।তিনি নিউ-জার্সির প্যাটারসন এলাকায় বেড়ে ওঠেন।গিন্সবার্গ ১৯৪৩ সালে ইস্টসাইড হাই স্কুল থেকে স্নাতক ডিগ্রী লাভ করেন। তিনি হাই স্কুলে থাকা কালীন সময়েই তার শিক্ষকের সহায়তায় Walt Whitman পড়া শুরু করেন। গিন্সবার্গ কলোম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার পূর্বে কিছুদিন Montclair State College এ অধ্যয়ন করেন। বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত অবস্থাতেই ১৯৪৫ সালে অ্যালেন গিন্সবার্গ পড়াশুনার খরচ যোগাড় করার জন্য চাকরিতে যোগদান করেন। কলোম্বিয়াতে থাকা কালীন সময়েই গিন্সবার্গ Jester Humor...

অ্যাডভেঞ্চার অথবা হারিয়ে যাওয়ার গল্প বলে যাওয়া…

শী এর অপরুপা রহস্যময়ী নারী আয়েশা অথবা অ্যালান কোয়াটারমেইনের সাথে ওয়াইল্ড আফ্রিকায় চষে বেড়ানো… সাদামাটা জীবনের মারপ্যাঁচে পড়ে যারা একটু হাঁফ ছেড়ে বাঁচতে চান, দুর্গম শহর, রাজপথ বা মিসরের পিরামিডের ভেতরের অপার রহস্যে সামিল হতে চান, তাদের জন্য হেনরি রাইডার হ্যাগার্ড হচ্ছেন আশ্চর্য এক জাদুকাঠির নাম। শৈশব কৈশোরে অ্যাডভেঞ্চারের নেশায় বুঁদ করে রাখা এই কালজয়ী লেখকের আজ মৃত্যুদিবস। হেনরী রাইডার হ্যাগার্ড জন্মগ্রহণ করেন ১৮৫৬ সালের বাইশে জুন, ইংল্যান্ডের নরফোকের ব্রেডেনহামে। দশ ভাই বোনের সংসারে তিনি ছিলেন অষ্টম। বাবার সামর্থ ছিলো না, তাই পড়তে পারেননি ভালো কোন স্কুল কলেজে। আর্মিতে চাকরির জন্য পরীক্ষা দিয়েছিলেন, কিন্তু তাতে পাশ করতে পারেননি। এরপর ব্রিটিশ...

আমি কিংবদন্তীর কথা বলছি; আমি রিচার্ড ফাইনম্যানের কথা বলছি…

পৃথিবীর ইতিহাসে যুগে যুগে আবির্ভূত হয়েছেন অনেক জ্ঞান তাপস। তাঁরা মেধাশক্তির ছড়ি ঘুরিয়ে পৃথিবীর সভ্যতার বিচ্ছুরন ঘটিয়েছেন সারা মহাবিশ্বে। তাঁদের অক্লান্ত পরিশ্রমেই মানুষ আজ হয়ে উঠেছে এই মহাবিশ্বের সবচেয়ে আলোচিতএবং স্বঘোষিত সম্রাট। যুগে যুগে মানুষের এই সাহসের সঞ্চরন ঘটিয়েছেন মহামনীষীরা। তাঁদের মাঝেই একজন স্যার রিচার্ড ফাইনম্যান। বিংশ শতাব্দীর পদার্থবিজ্ঞানের অন্যতম পুরোধা, আইনস্টাইনের যোগ্য উত্তরসূরি এবংনিঃসন্দেহে এক মহামানব। নানারূপ কুসংস্কারকে পাশ কাটিয়ে যারা শৈশব থেকেই নিজেকে গড়ে তুলেছেন আধুনিক বিজ্ঞানের প্রতিভারূপে তাঁদের মাঝে রিচার্ড ফাইনম্যানের নাম চলে আসে সর্বাগ্রে। পান্ডুলিপির শুরুতেই আমি আমার আলোচ্য বিষয়গুলো বর্ণনার প্রয়োজনে প্রারম্ভিকার শ্রাদ্ধ করছি এখানেই। আজ স্যার রিচার্ড ফাইনম্যানের জন্মদিনঃ১৯১৮সালের ১১ মে নিউ ইয়র্কে জন্মগ্রহণ... doctorate of pharmacy online

side effects of quitting prednisone cold turkey
irbesartan hydrochlorothiazide 150 mg
kamagra pastillas