Author: শ্রাবণ

বিষাদ-শালিক

জলকে শুধাই, স্রোত হবি তুই রুমাল চুরির চোর হয়ে তুই দুঃখ নিয়ে পালিয়ে যাবি? যেথায় সুখকে ছুঁই। বাতাস শুধুই বোশেখ হল। মেঘ থেকে নীল জল ঝরালো। শ্রাবণ কাঁটায় বিদ্ধ করে রুমাল ভরে আর কত শোক দিবি? তবু শুধাই, তুই আমার দুঃখ নিবি? আকাশটাতে কত্ত আলো! শুধাই তারে নীলকে নিবি? শোকের রং সে। আকাশ ছুড়ে ফেরত দিল। সে কেবলই সুখ ছড়াবে। সুখের ফানুস সব ওড়াবে। শালিক তাহার ভাঙা কুড়োয় বাঁচুক কিংবা মরেই মরুক। সবখানে স্রেফ আলোই আলো আর অধরা অচেনা সুখ। নদীর চূড়ায় সূয্যি ডোবে। একটা শালিক অনেক অনেক পথ মাড়িয়ে পণ করেছে সূয্যি ছোঁবে। বিকেল বেলার মিষ্টি মামা সন্ধ্যে হতেই...

কাত্তিকদা মেট্টিক পাশ

সেবার কাত্তিকদা মেট্টিক পাশ করিয়াছিল। মেট্টিক! সে এক মহা হাঙ্গামার ব্যাপার-স্যাপার। প্রতিটা নোট বইয়ের কোনাকাচি সম্পর্কে ধারণা থাকতে হয়। কোন কোণা থেকে কোন কোশ্চেন আছে আর তার উত্তর কোথায় সবচেয়ে ছোট করে লেখা আছে তার সব জানতে হয়। জানতে হয়, কোন ব্লেডে সব চেয়ে বেশি ধার। কোন নোটের কোন পাতাটা কেটে শরীরের কোথায়, কিভাবে লুকিয়ে রাখতে হবে – তার সবকিছু জানতে হয় মেট্রিক পরীক্ষা দেবার জন্য। পুরসিলাত পার হবার মতই নাকি কঠিন সেই মেট্রিক পরীক্ষা। সেখানে পরীক্ষা দিতে গেলে হঠাৎ হঠাৎ বড় বাবুরা এসে হাজির হয়। সাথে সাথে সব নোটের কাটাছেড়া লুকিয়ে ফেলতে হয়। ধরা পড়লে একেবারে এক্সপেল করে দেয়।...

কবির মত ভাল আছি

যদি ভেবে থাক, এই কবিতাটি তোমাকে নিয়েই— তবে তুমি ভুল। যদি ভেবে থাক তোমার ঠোঁটের তীক্ষ্ণতা ছাড়া… আমি মৃতপ্রায়; তোমার চুলের অস্পর্শের জরায় অসুখে ধুকে ধুকে আমি— কবি হয়ে গেছি; সে সব তোমার প্রবল ভ্রান্তি। আমি ভাল আছি। বড় বীভৎস রকমের ভাল। যদি ভেবে থাক, তরল গেলাসে দ্রবীভূত করে, তোমার সকল স্মৃতিদের আমি নির্বিষ করে ফেলতে চেয়েছি— আমার করুণা নাও তবে তুমি। যদি ভেবে থাক, আমার হৃদয়ে স্মৃতিতে লুকিয়ে… অবিবর্তিত ভাইরাসদের মত করে তুমি… নিত্য নতুন উপায়ে কষ্ট-যন্ত্রণা দাও; ভেবে ভেবে যদি অনেক তৃপ্তি আস্বাদ কর— তাহলে আমার কাছে তুমি বড় হাস্যাস্পদ! তুমি মরে গেছ। হৃদয়ের তুমি মরে ঝরে গেছ...

clomid over the counter
buy kamagra oral jelly paypal uk
side effects of quitting prednisone cold turkey
zovirax vs. valtrex vs. famvir