প্রানের পঁচিশ

1328

বার পঠিত

গভীর রাত । অন্ধকার রুম । স্বাগত শীতের রাতে একটি কম্বল মুড়ি দিয়ে শুয়ে আছে । ঘুমাচ্ছেনা । মোবাইলে রিফার সাথে খুনসুটি করছে । হঠাত রুমের লাইট জ্বলে উঠল । হকচকিয়ে উঠল স্বাগত । মামা তুমি কার সাথে কথা বলছ? ৪ বছরের নূহার প্রশ্ন । ” কারো সাথে না মামা । তুমি ঘুমোওনি ? ” না মামা আজ তোমার সাথে ঘুমাব ।” বাকি রাত স্বাগত কাটিয়ে দিল নূহার সাথে গল্প করে ।

 

পরের দিন সকাল । বিশ্ববিদ্যালয়ের করিডোর সিঁড়িতে বসে আছে বাপ্পি । কিছুটা চিন্তিত বিষন্ন মুখ । গতকালের ফুটবল ম্যাচে জিততে পারেনি । পরের টায় যে করেই হোক জিততে হবে । সে কথাই ভাবছে বাপ্পি । ‘ তোরে পুতুলের মত করে সাজিয়ে হ্রিদয়ের কোঠরে রাখব । ‘ গান টা গুনগুণ করতে করতে দূর থেকে হেঁটে আসছে উদয় । অন্যমনস্ক বাপ্পিকে ধাক্কা মেরে উদয়ের প্রশ্ন  ” কি অবস্থা মামা? সারাদিন ত ঘুমায়া কাটায়া দিলা? এখন মুখ এমন কেন?

বাপ্পির স্মিত হেসে জবাব – “কাল কের খেলাটা হেরে গেলাম । সাম্নের খেলাটা জিততেই হবে । সেটা নিয়েই ভাবছি ।” সাথে সাথে উদয়ের জবাব- “আরে এত ভাইবনা মামা । আস গান গাই”

  can your doctor prescribe accutane

শুভ ক্লাসে চুপচাপ বসে আছে । হঠাত নোমানের ঝড়ো প্রবেশ  ।  “কি রে কি অবস্থা? কাল যে কি অস্থির “২৯” খেল্লাম যদি দেখতা! স্বাগত কে হারিয়ে দিয়েছি” । শুভর জবাব “তুই ত সব সময় ভাল খেলিস” । সব সময় ফুর্তিতে থাকা আড্ডা প্রিয় নোমান আকর্ণ বিস্তৃত হাসি দিয়ে বেড়িয়ে গেল কাছের চায়ের দোকানের উদ্দেশ্যে ।

 

 

সদ্য নামায শেষ করে ক্যাম্পাসে গেল সে । গিয়ে দেখল রানা বসে পড়াশোনা করছে । ইভান গিয়ে জিজ্ঞেস করল কি রে কি করিস ? রানা উত্তর দিল  এই পড়াশোনাটা একটু এগিয়ে রাখতেসি দোস্ত। একটু চিন্তিত হয়ে ইভানের জবাব – হ্যা দেশের যা অবস্থা কবে আবার হরতাল দিয়ে দেয় কে জানে ! এগিয়ে রাখাই ভাল । স্মিত হেসে রানা তাতে সায় দিল । half a viagra didnt work

 

নিঝুম বিকেল বেলা । বাসায় কেউ নেই । অঙ্কুর তার কম্পিউটারে বসে ফিফা খেলছে । দরজায় কলিংবেলের শব্দে চমকে উঠল অঙ্কুর । রেহান এসেছে । সাথে নিয়ে এসেছে এক গাদা সিনেমার ডিভিডি । দুই বন্ধুতে মিলে সিনেমা দেখার প্রস্তুতি নিয়ে এসেছে  রেহান । তুমুল আড্ডা , সিনেমা দেখা , আর ব্যপক খাওয়া দাওয়ার মাঝে চলতে লাগ্ল তাদের রাত্রি যাপন ।

কিছুক্ষন পর অঙ্কুরের ফোনে উদয়ের কল এল । ছটফটে উদয়ের তড়িৎ প্রশ্ন – ” দোস্ত কাল কের ক্লাস টা করতে পারিনাই একটু হেল্প করবি ? সব সময় সবাইকে সাহায্য করতে সদা প্রস্তুত অঙ্কুর সহাস্যে বলে উঠল ” কাল যে চায়ের দোকানের সামনে বসে আমরা আড্ডা দেই সেখানে থাকিস সব বুঝিয়ে দেব । ” উদয় উতফুল্ল হয়ে বলে উঠল “ওক্কে মামা ।

 

কিছুদিন পরের ঘটনা । বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংস্কৃতিক উৎসব চলছে ১৫ দিনের ।  তার মাঝে কিছু খেলা ধুলার ইভেন্ট রাখা হয়েছে । চলছে স্বাগতর আলোক চিত্র প্রদর্শনী । গর্বিত স্বাগত তাকিয়ে আছে আনন্দিত দর্শকের দিকে । কিছুক্ষন পর স্বাগতর মুঠোফোনে  এল রাইফার চিরকুট – কেমন লাগছে ? স্বাগতর তৃপ্ত প্রতি উত্তর – ভাল লাগছে রাইফা , খুব খুব ভাল লাগছে ।

  levitra 20mg nebenwirkungen

একদিকে চলছে গানের উতসব । সব ছাত্র ছাত্রীদের গান গাওয়া শেষ হলে বিষেষ আকর্ষণ হিসাবে আছে উদয়ের স্বরচিত গান । তার পরেই রয়েছে স্বাগতর নিজের হাতে তৈরী ব্যান্ডের পরিবেশনা ।

পরের দিন রয়েছে ক্রিকেট ও ফুটবল টুর্নামেন্ট । ইভান জোর প্রস্তুতি নিয়েছে ক্রিকেটে ভাল করার জন্য । বাপ্পী ব্যাম করা থেকে শুরু করে দৌড় নানা ভাবে নিজেকে প্রস্তুত করছে ।

তার দুইদিন পরে আছে গেমিং প্রতিযোগীতা । তা নিয়ে উচ্ছাসের শেষ নেই অঙ্কুরের । সারাক্ষন তার উত্তেজনায় মেতে রয়েছে সে । zoloft birth defects 2013

নোমান অনুষ্ঠানের আনন্দে প্রানোচ্ছলতায় মেতে রয়েছে । আড্ডা হাসি গল্পে মাতিয়ে রাখছে প্রতিটি মুহূর্ত ।

প্রানের পঁচিশ প্রানের সব আনন্দ উচ্ছাস ব্যথা বেদনা হাহাকার এক করে বন্ধুত্বের বাঁধনে বেঁধে আছে । সেখানে কোথাও খাদ নেই নেই কোন দ্বৈরথ । পঁচিশের প্রানময়তার ছোঁয়ায় ভরে গেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের আঙ্গিনা । walgreens pharmacy technician application online

 

আমার অনুভুতি – ছেলেগুলোকে আমি দেখিনি । তবু নিজেকে তাদের থেকে আলাদা করতে পারিনি । সবার সাথে নিজেকে একাত্ম মনে হয়েছে । জানিনা কেন এই ভাই গুলোর প্রতি এত মমতা বোধ করছি । তুচ্ছ আমি হয়ত তুচ্ছ আমার অনুভুতিও । কিন্তু যে ব্যথা আমাকে কাঁদিয়েছে তার দায় আমি অস্বীকার করতে পারবনা বলেই এই আবোল তাবোল গল্প লেখা । গল্পটা লিখতে গিয়ে তাদের জেনেছি । অনেক গভীরে অনুভব করেছি ।

 

তাদের আত্মার শান্তি কামনা করি ।

  zovirax vs. valtrex vs. famvir

You may also like...

  1. অসাধারণ গল্প বলার ভঙ্গিমা

  2. আপনার বলার ভঙ্গিমাটা অসাধারন, আর তার চেয়েও বেশি ভালো লেগেছে একেবারে ভিন্নধর্মী উপস্থাপনা… :জয় গুরু: কিপিটাপ… :-bd

  3. শেহজাদ আমান বলছেনঃ

    আমার অনুভুতি – ছেলেগুলোকে আমি দেখিনি । তবু নিজেকে তাদের থেকে আলাদা করতে পারিনি about cialis tablets

    এই পচিশজন আসলে কে ছিল, আমি ঠিক বুঝতে পারলাম না! tome cytotec y solo sangro cuando orino

  4. সেন্ট মার্টিন দূর্ঘটনার ছেলেগুলোর কথা না আপু ? তাদের জন্য আসলেই খুব খারাপ লাগে ।

  5. তারিক লিংকন বলছেনঃ

    গল্প বলার ভঙ্গি আসলেই অন্যরকম সুন্দর এবং শেষের পাদটীকাটাও অনবদ্য :জয় গুরু: :জয় গুরু: :দে দে তালি: :দে দে তালি: :দে দে তালি: :দে দে তালি:

  6. চমৎকার লিখেছ আপ্পি… :দে দে তালি: :দে দে তালি: :দে দে তালি: :কুপায়ালাইছ মামা-ভিক্টরি: :কুপায়ালাইছ মামা-ভিক্টরি: :কুপায়ালাইছ মামা-ভিক্টরি:

আপনার ই-মেইল ও নাম দিয়ে মন্তব্য করুন *

Question   Razz  Sad   Evil  Exclaim  Smile  Redface  Biggrin  Surprised  Eek   Confused   Cool  LOL   Mad   Twisted  Rolleyes   Wink  Idea  Arrow  Neutral  Cry   Mr. Green

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>

Heads up! You are attempting to upload an invalid image. If saved, this image will not display with your comment.

can levitra and viagra be taken together