না মেলা কিছু হিসাবের গল্প…

226

বার পঠিত

শেরেবাংলা স্টেডিয়ামের গ্র্যান্ডস্ট্যান্ডের ছাদে বসে ছিল ওরা, পা ঝুলিয়ে। একটু আগে তামিমের হাফ সেঞ্চুরি হইছে, মর্দে মারখোর পাকিস্তানী জওয়ানদের বিধ্বংসী বোলিং লাইনআপরে ল্যাড়ল্যাড়া ধ্বজভঙ্গ বানায়া নাকের জল চোখের জল একাকার কইরা ছাড়ছে এই পোলা। নরমাল গ্যালারিতে না বসে এমন বিচিত্র জায়গায় বসার কারন হল জুয়েল আর মুশতাক ভাই। কেউ কাউরে ছাড় দিবে না। মুশতাক ভাই গম্ভীর গলায় বললেন, আমার স্ট্যান্ডের হইল স্টেডিয়ামের সেরা। শুইনা জুয়েল তেলেবেগুনে জ্বইলা উঠলো, “আমার স্ট্যান্ডে গেছেন কোনোদিন মিয়া? কইলেই হইল?” যুদ্ধ বাইধা যায় আরকি… renal scan mag3 with lasix

এই দুইটা স্ট্যান্ড ভয়ংকর আবেগের জায়গা মানুষ দুইটার জন্য, স্বাধীন বাংলাদেশ যে দয়াপরাবশ হয়ে কেবল ওদের নামে স্টেডিয়ামের দুইটা গ্যালারীর নাম রেখেই দায়িত্ব শেষ করছে ,এতে বিন্দুমাত্র ক্ষোভ নাই ওদের, বরং এইটা নিয়া বিশাল গর্ব করে ওরা।শেষমেষ বাধ্য হইয়াই শাহাদাৎ চৌধুরী বললেন, একটা কাজ করি, আজকা অন্যখানে বসি, টেস্ট দুইটা আপনাগোর দুইজনের গ্যালারিতে ভাগ কইরা বসুমনে। তখন বদি কইল, শাচৌ, চলেন গ্র্যান্ড স্ট্যান্ডের ছাদে যাই, সেইই লেভেলের ফিলিংস… বাকি সবার হৈ হৈ সমর্থনে বেচারা শাহাদাত চৌধুরীর ঘোর আপত্তি পাত্তাই পাইল না। বেচারা শাচৌ…

হঠাৎ মুশফিক হাঁটু গাইড়া সেই অতি পরিচিত কোপটা দিল, স্যার আজমল মুহূর্তের মধ্যে গিয়া পড়লেন সীমানার ওইপারে, সিক্স… পিছন থেইকা জুয়েল খোঁচা দিল রুমিরে, কিরে, মুশি নাকি বল নষ্ট করতেছে। এতো ডট দিলে নাকি দল চাপে পড়ে যাবে… রুমি কিন্তু দমল না, জবাবটা আসলো সাথে সাথে, আপনে যে মিয়া তলে তলে কি করতাছেন, আমরা কিন্তু সব বুঝি, ঠিকাছে? মুশি পোলাটা আমার মত মাথা গরম করে না কখনো, কিন্তু ও আর তামিম যে এইভাবে পাইক্কাগুলারে পিটায়া তক্তা বানায়া সেই তক্তায় ফার্নিচার তৈয়ার কইরা রোদে শুকাইতেছে, এইটা কিন্তু কোন স্বাভাবিক ঘটনা না। এইটা কিন্তু ভাই ফেয়ার হইল না। বকরীয়ে মারখোর মুসলিম ভাইয়েরা এমনেই একটামাত্র স্পেশালিষ্ট বোলার নিয়া আসছে, স্যার ওয়াহাব রিয়াজ, তারে পর্যন্ত পোলাপান রেহাই দিল না। এমনেই বাঘের বাচ্চা দুইটার থাবার নিচে ছটফট করতাছে পাইক্কা বকরীগুলা, তার উপ্রে আপনে একবার এইপাশে তামিমের লগে পিটান, আবার ওইপাশে গিয়া মুশফিকের লগে কুপান… খুবই অন্যায়, খুবই অন্যায়… রুমির হাসি দুকান স্পর্শ করে।

মাথা নাড়তে নাড়তে বদি বলে, হ, আমি দেখছি একটু আগে, তামিম এক ওভারে ওই যে বকরী ওয়াহাব রিয়াজরে পিটায়া তক্তা বানায়া ফেললো। মারখোর ওয়াহাব কিন্তু বল খারাপ করতেছে না, কিন্তু ওই হালায়তো জানে না এইপাশে তামিমের লগে ব্যাট করতেছে কে… জানলে অবশ্য বল-টল ফালায়া এক দৌড়ে করাচী যাইতগা… can you tan after accutane

রুমি এইবার বদিরে ধরে, তুমিও তো মিয়া কম যাও না। প্রথম ওয়ানডেতে রিভিউ নেওয়ার পর রুবেল যে রিয়াজ হালার প্যান্ট নষ্ট কইরা ফেললো জাস্ট খালি লুক দিয়া, সেইটা কি এমনে এমনেই হইছে? রুবেলের লুক নিয়া অবশ্য কখনই কোন সন্দেহ নাই, খালি হাত না, চোখ দিয়াও আগুনের গোলা বাইর হয়। কিন্তু ওয়াহাব সেইদিন যেই দুইটা চোখ ভয় দেখাইছিল, সেইটা খালি রুবেলের ছিল না। কি দরকার ছিল মিয়া ছাগলের বাচ্চাটারে হাইগা-মুইতা খিচ করনের, তুমি যে ঢাকা শহরের অন্যতম সেরা গ্যাংস্টার ছিলা, এইটা তো আর ওই ছাগলের বাচ্চাটা জানে না। হালায় জিন্দেগীতে তোমার ওই লুক ভুলবো না… capital coast resort and spa hotel cipro

বদির মুখে দুষ্টুমির হাসি দেখা গেল। মনে পড়ে গেল বাদলের কথা, শহীদুল্লাহ খান বাদল, ব্লাড ব্রাদার, ছাত্র ইউনিয়ন করতো বইলা যার সাথে সারাদিন ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া লাইগাই থাকতো, মেশিন নিয়া কতদিন ধাওয়া দিছে ওরে, কতদিন ধাওয়া খাইছে। একাত্তর সব পাল্টায়া দিল। একাত্তর বাদলরে তার আত্মার আত্মীয় বানায়া দিল… ভাইটারে দেখে না অনেকদিন, অনেক অনেক দিন…

আজাদের চিল্লানিতে চমকায়া ফিরে তাকাইল বদি। হাসতে হাসতে আজাদ তখন সামনের বিল্ডিংয়ের পাইক্কাগুলার গল্প করতেছে। স্টেডিয়ামে তো আজকে পাকিস্তানের পতাকা নিয়া কেউ ঢোকার সাহসই পায় নাই, যে কয়টা পাইক্কাগুলার চাইর-ছয়ে চিল্লাইছে, সেইগুলারেও পোলাপান উপ্তা কইরা ভরছে। হালারা স্টেডিয়ামে চাঁদ-তারা পতাকা উড়ানোর সাহস পায় নাই, স্টেডিয়ামের পাশের বিল্ডিংয়ের ছাদে উড়াইছিল, একটু পর পুলিশ গিয়া পিছে দুইটা লাত্থি দিয়া বলছে, তরা কুদে (tora Code)…

বলতে বলতেই বাকী আঙ্গুল দিয়া এক পোলারে দেখাইল, ওয়াহাব রিয়াজ যতবার বাউন্ডারি লাইনে ফিল্ডিংয়ে আসতেছে, ততবার পোলায় চিল্লায়া চিল্লায়া ওরে ডাকতেছে, ওই রিয়াজ, ওই মারখোর, ওই বকরী… আরে ওই কানা, এইদিকে… পুরা স্টেডিয়াম জুড়ে কোরাসের রব, পাকিস্তান— ভুয়া—পাকিস্তান—ভুয়া…

হাসতে হাসতে হঠাৎ কেন যেন বিষণ্ণ হয়ে গেল জুয়েল,”কোনদিন ভাবি নাই এই দৃশ্য দেখতে পারুম। কয়েক বছর আগেও তো গ্যালারীতে চাঁদতারা পতাকা উড়তো, আমার স্ট্যান্ডে দাঁড়ায়া গালে পাকিস্তানের পতাকা আঁইকা পোলাপান আফ্রিদির ছয়ে নাইচা নাইচা উৎসব করতো, সহ্য করতে পারতাম না… ক্যাপ্টেন সরফরাজ যখন হাসতে হাসতে ভাঙ্গা আঙ্গুল তিনটা মুচড়াইত, মুক্তির খোঁজ জানতে চাইত, তখনো এতটা যন্ত্রণা পাই নাই, যতটা যন্ত্রণা পাইছি আফ্রিদিরে বিছানায় পাইতে, ওর বউ হইতে হর্নি হইয়া প্ল্যাকার্ড দোলানো মেয়েগুলারে দেইখা… ইচ্ছা হইত এইগুলারে একাত্তরে নিয়া যাই, দেখাই কি করছিল ওরা আমাগোর লগে, আমাগোর মা-বোনরে ক্যামনে ছিঁড়া টুকরা টুকরা করছিল এই জানোয়ারগুলা… আমি নাহয় পাকিস্তানের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করছি, ইন্ডিয়ার দালাল, মালাউনের বাচ্চা, কিন্তু মুশতাক ভাইয়ের কি অপরাধ ছিল? আজাদ বয়েজ ক্লাবেই পইড়া থাকতো মানুষটা সারাদিন, কাউরে কোনোদিন গালি দেওয়া, মারামারি করা তো দূরে থাক, একটা বকা পর্যন্ত দেয় নাই। কারোর সাথে বেজার মুখে কথা বলছে, এইটা তার শত্রু পর্যন্ত বলতে পারবে না। তারে কেন কুত্তার মতো ব্রাশফায়ার কইরা মারা হইল? কোন অপরাধে? আজকে তার গ্যালারীতে দাঁড়ায়া পোলাপান ক্যামনে পাকিস্তান জিন্দাবাদ শ্লোগান দেয়? ক্যামনে পারে? এই দেশের জন্য যুদ্ধ করছিলাম? এই প্রজন্মের লাইগা ভাঙ্গা আঙ্গুল নিয়া আবার ব্যাট ধরতে চাইছিলাম? এই প্রজন্মের লাইগা? all possible side effects of prednisone

স্তব্ধ মহাকাল জুয়েলের ধরে আসা ভাঙ্গা গলার আফসোসের সামনে লজ্জিত মুখে দাড়িয়ে থাকে, আর ঠিক সেই মুহূর্তে নদার্ন গ্যালারীর বাম পাশের কর্নারে গালে চাঁদতারা পতাকা আঁকা উজ্জ্বল টিয়া রঙের পাকিস্তানী জার্সি পরিহিত ছেলেটা খুব ধীরে কিন্তু অসীম দৃঢ়তায় বলে ওঠে, পাকিস্তান জিন্দাবাদ… জিতেগা ভাই জিতেগা, পাকিস্তান জিতেগা… viagra en uk

viagra vs viagra plus

You may also like...

  1. এক ক্রিকেট নিয়ে আর কত? এই দিয়ে কি পাকি বীর্যরা মত বদলাবে?
    আগে দেশকে গড়ে তুলতে হবে! আন্সাং হিরোদের না পাওয়া ইচ্ছাটা মনে আছে ?
    দেশের বঞ্চিত-লাঞ্চিত জনগোষ্ঠীর অর্থনৈতিক মুক্তির কথা মনে আছে?
    কিভাবে করবেন? এই প্রজন্ম এইসব নিয়ে না ভাবলে দেশ আগাবে কি করে?

  2. অপার্থিব বলছেনঃ

    সেদিন মাঠে বসেই ইস্টার্ন গ্যালারির পাশের বিল্ডিংএ পাকিস্তানী পতাকা উড়তে দেখলাম।যে বাড়িগুলোতে পতাকা ঊড়ে সেই বাড়ি ওয়ালা গুলোর বিরুদ্ধে আগে একশন নেওয়া দরকার। ঢাকা শহরের অধিকাংশ বাড়িওয়ালা পতাকা উড়ানোর নিয়ম নীতি মানে না , জানেও না। এমনকি অনেকের বাড়ির ছাদে বাংলাদেশের পতাকাও অনাদরে অবহেলায় পড়ে থাকে।

    achat viagra cialis france

আপনার ই-মেইল ও নাম দিয়ে মন্তব্য করুন *

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>

metformin gliclazide sitagliptin

Heads up! You are attempting to upload an invalid image. If saved, this image will not display with your comment.

acquistare viagra in internet
tome cytotec y solo sangro cuando orino