পুরাতন ঢাকার মাস্তান নাদের গুন্ডা

531

বার পঠিত

আদি ঢাকাবাসী, মানে পুরাতন ঢাকাবাসীর বিরুদ্ধে একটা গুরুতর অভিযোগ আছে!
তাঁরা নাকি পাকিস্তানপন্থী! হাস্যকর একটা কথা!
এক ছোট ভাইতো সেদিন বলেই ফেললো পুরাতন ঢাকায় যারা থাকে তাঁরা নাকি সবাই বিহারী! মরে যাই মরে যাই! হ্যা পুরান ঢাকার প্রায় সবাই খানিকটা ধর্মভীরু। নামাজের সময় দোকান বন্ধ রেখে যায়। মসজীদ ২০ ফিট পরপর! এসব সত্য! কিন্তু আপনিকি জানেন বাংলাদেশের প্রথম শহুরে মহল্লা হিসেবে নিজেদের জামাতমুক্ত ঘোষণা করার সাহস দেখিয়েছে ইমামগঞ্জ পঞ্চায়েত!

আসুন ফিরে যাই ৪৪ বছর আগে! ২৫ মার্চ রাত। অপারেশন সার্চলাইট……………………
ঢাকা শহর অন্ধকার। মাঝে মাঝে শুধু অন্ধকার আকাশকে আলোকিত করছে পাক বাহিনীর ছোড়া ফ্লেয়ারস। সেই কালো রাতে ঘটে গেলো মানব ইতিহাসের জঘন্যতম হত্যাকান্ড! ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়কে বানানো হলো গোরস্থান! গোলার আঘাতে উড়িয়ে দেয়া হলো শহীদ মিনার। সেখানে লেখা হলো নামাজের স্থান! এরপর হানা দেয়া হলো পুরান ঢাকায়। বকশি বাজার, চক, রজনী বোস লেন, বিকে রায় লেন, দিগম্বর বাবু লেন, পুরো কোতয়ালী এলাকা। বংশাল,পরিণত হয়েছিলো লাশের ভাগাড়ে। নাজিরা বাজারের সুইপারেরা মিটফোর্ড হাসপাতালে লাশ নিতে নিতে ক্লান্ত হয়ে গিয়েছিলেন।
এখন একটা প্রশ্ন আছে আমার। কেউ কখন কারুর প্রতি নির্মমতা আর নৃসংসতা দেখায়? কিংবা নৃসংসতার পরিমান সামান্য হলেও বেশি হয় কোথায়! পাকিস্তানি শুয়োর শাবোকেরা পুরান ঢাকায় সবচাইতে বেশি নির্মমতা দেখিয়েছিলো প্রথম ধাক্কাতেই। কারণ সেখান থেকেই প্রতিরোধের সম্ভাবনা সবছে বেশি ছিলো। বুড়িগঙ্গার দুই ধারে ৫ কিলোমিটার রেডিয়াসের ভেতর তিনটি এলাকা আছে যেগুলোর নাম শহীদ নগর! মার্চের বাকি ৫ দিনে এই এলাকার প্রায় ১ লক্ষ লোককে ঠান্ডা মাথায় খুন করে পাক বাহিনী।
ঢাকার বুকে প্রথম গর্জে উঠে রাজারবাগের ফরিদপুর ব্যারাকের পুলিশদের থ্রি নট থ্রি! আর সিভিলিয়ানদের মধ্যে নাদের মিয়া নামের এক বখে যাওয়া নষ্ট তরুন প্রথম আক্রমণ করে পাকিস্তানি সেনাদের। সেই গল্পে আসছি। কিন্তু তাঁর আগে একটু নাদের মিয়া ওরফে নাদের গুন্ডার পরিচয় জেনে আসি।

অনেক নাটক সিনেমায় পুরান ঢাকা দেখালে এক বিশেষ ধরণের চরিতে দেখানো হয়। গলায় রেশমি রুমাল জড়ানো, হিন্দি বাঁ উর্দু গান শোনা, পান খেয়ে মুখ লাল করে কোন বাসার রকে আড্ডা জমানো চরিত্র। যার মুখে সর্বদা গালির খৈ ফোটে! দু’নম্বরী লোক সে। চোরাচালান কিংবা মাস্তানী যার পেশা! amiloride hydrochlorothiazide effets secondaires

হ্যা নাদের গুন্ডা সে রকমেরই চরিত্র ছিলো। বাড়ি ছিলো তাঁর নারিন্দায়। আর ওয়ারী থেকে ফরাসগঞ্জ আর শ্যামবাজার ছিলো তাঁর বিচরণক্ষেত্র। ২৫ তারিখের রাতের ঘটনাতে শোকগ্রস্থ হয়নি নাদের গুন্ডা। লোকটার নার্ভ ছিলো ইস্পাতের ন্যায়! তাঁর বদলে সে তাঁর সার্বক্ষনিক সঙ্গী বিলু গুন্ডাকে গিয়ে বলে, “বিলু ,চল মিয়াঁ, গিয়া কয়েকখান পাইক্কা মাইরা আহি”! দুজনে মিলে এরপর পল্টনের এক পাঞ্জাবী অস্ত্রব্যাবসায়ীর কাছ থেকে ২টা থ্রি নট থ্রি লুট করে উঠে যায় নাদের গুন্ডার বাড়ির ছাঁদে!

এরপর প্রতিক্ষা…………………………………





রায় সাহেব বাজারের দিক থেকে আসছে পাক বাহিনীর কনভয়। লক্ষ্য দয়াগঞ্জ কিংবা সুত্রাপুরের কোথাও। বিলু গুন্ডা একটা মালাটোভ ককটেল (পেট্রোল বোমা ) ছুড়লেন! একটা জীপের ছাঁদে আগুন জ্বলে উঠলো। তড়িঘড়ি করে গাড়ী থেকে নেমে পজিশান নেবার চেষ্টা করলো নাপাক সেনাবাহিনী। কিন্তু তাঁর আর সুযোগ পেলোনা তাঁরা। শুরুতেই খতম কয়েকজন। বাকিটা ইতিহাস………………

বিলু গুন্ডা ভারতে চলে যান। ট্রেনিং নিয়ে ঢাকায় ঢুকে শুরু করেন গেরিলা যুদ্ধ! পরে সিনেমায় অভিনয়ের সূত্রে তিনি তাঁর আসল নাম ফারুক নামেই বেশি পরিচিত হন। আর বখে যাওয়া নষ্ট টিপিক্যানল পুরান ঢাকার প্রতিনিধি নাদের! যাদের বাকি বাংলাদেশ রাজাকার বাঁ শ্রেফ জোকার হিসেবেই ভাবতে পছন্দ করে!

নাদেরের আর কোন খোজ পাওয়া যায়নি। তাঁর বাড়ি গোলার আঘাতে বিক্ষত হয়। সম্ভবত সে ধরা পড়ে…………………

বাকিটা আমরা জানিনা। জানার চেষ্টাও করিনা! কি দরকার পুরান ঢাকার এক নষ্ট যুবক সম্পর্কে জানার!
বীরভোগ্যা জননীর অনেক পুঙ্গবের মতই, নাদের ঘুমিয়ে আছে এই বাংলা মায়ের কোলের কাছে……………………

আহ নাদের……………………

zoloft birth defects 2013
all possible side effects of prednisone
buy kamagra oral jelly paypal uk

You may also like...

  1. ভালো লাগল,আরো বিস্তারিত জানতে পারলাম এই বীর যোদ্ধা সম্পর্কে posologie prednisolone 20mg zentiva

  2. ব্যতিক্রমি এক বীর সম্পর্কে কিছু জানা গেল । নাদের গুন্ডা সম্পর্কে আরও বিস্তারিত কিছু
    তথ্য থাকলে ভাল হত যদিও খুব ভাল করেই জানি কাজটি কঠিন।

  3. অংকুর বলছেনঃ

    পুরান ঢাকার মানুষকে বিহারী বলে কুন আবাল? এদের মধ্যে আর ছাগুদের মধ্যে কোন পার্থক্য দেখিনা । টুপি,দাড়ি থাকলেই জামাতি পাকিস্তানি বিহারী তাইনা?

  4. দুরন্ত জয় বলছেনঃ

    ////। কেউ কখন কারুর প্রতি নির্মমতা আর নৃসংসতা দেখায়? কিংবা নৃসংসতার পরিমান সামান্য হলেও বেশি
    হয় কোথায়! /// পুরান ঢাকা অধিক জন বহুল হওয়ায় সেখানে নৃসংসতার পরিমাণ বেশি হয়েছে……

    নাদেরের প্রতি শ্রদ্ধা…
    আর এক নাদের সবাইকে রিপ্রেজেন্ট করে না!
    ইসলামপুর মার্কেট এ গেলে দেখা যায় জামাত বিএনপি’র কি পরিমাণ সাপোর্টার!

আপনার ই-মেইল ও নাম দিয়ে মন্তব্য করুন *

Question   Razz  Sad   Evil  Exclaim  Smile  Redface  Biggrin  Surprised  Eek   Confused   Cool  LOL   Mad   Twisted  Rolleyes   Wink  Idea  Arrow  Neutral  Cry   Mr. Green

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>

Heads up! You are attempting to upload an invalid image. If saved, this image will not display with your comment.