এস.এস.সি. রেজিস্ট্রেশানের দিন

474

বার পঠিত

আজকে জীবনের খুব গুরুত্বপূর্ণ একটা দিন জীবনের প্রথম বোর্ড পরীক্ষার জন্য রেজিস্ট্রেশান করা। সবাইকে গতকালই বলে দেওয়া হয়েছে প্রিন্সিপাল স্যার এর উপস্থিতিতেই এই কাজটা সম্পাদন হবে, তাই প্রয়োজনীয় তথ্যাবলী যেমন বর্তমান ঠিকানা, স্থায়ী ঠিকানা, নামের বানান সঠিক ভাবে লিখে একটা কাগজে লিখে আনতে। বেশ আগের কথা মোবাইলের এর প্রচলন খুব একটা শুরু হয়নি। যে কেউ ইচ্ছা করলেই মোবাইলে ফোন করে কথা বলে, তথ্য ঠিক করে নেওয়ার উপায়টা খুব একটা সস্তা হয়নি। will metformin help me lose weight fast

রেজিস্ট্রেশান এর দিন-

একটু শীত শীত সকাল, ঠাণ্ডা পড়েছে। বেশি কনকনে না, সবে শীতের শুরু। আমাদের চোখেমুখে এখনও ঘুম। আমাদের সামনে একজন স্টাফ প্রত্যেকে রেজিস্ট্রেশান পেপার দিচ্ছে। আর রেজিস্ট্রেশান পেপার খালিদিকে উল্টিয়ে রাখা হচ্ছে, জাতে কেউ দেখতে না পারে। কৌতূহল হচ্ছে কিন্তু সবরকম কৌতূহল চলে ও যাচ্ছে সামনে দাড়িয়ে থাকা প্রিন্সিপাল স্যার এর বেত দেখে। স্যার যখন বলবেন তখন থেকেই রেজিস্ট্রেশান শুরু হবে। স্যারের এক হাতে বেত, আরেক হাতে রেজিস্ট্রেশান পেপার নিয়েছেন।

-মুচকি হেঁসে বলল এটা কি ??

-স্যার রেজিস্ট্রেশান পেপার।

বলতে না বলতেই যারা যারা পেপার উলটেছে সবাই কে দাড় করানো হলো। ওরা দাড়িয়েই রেজিস্ট্রেশান এর কাজ করবে। কিন্তু তার আগে স্যার এর কথা অমান্য এর অভিযোগে সবার জন্য একটা করে স্যার এর বরাদ্দ করে দেওয়া বেতের বাড়ি দিতে শুরু করলেন একদিক থেকে। ১০ জনের মত ছাত্র এই অভিযোগে অভিযুক্ত।

এইবার সবাই স্যারকে আরো বেশী ভয় পেতে লাগলো। স্যার রেজিস্ট্রেশান প্রক্রিয়া শুরু করলেন। সবাই সবার মতই কাজ করছে, যদি কেউ ভুল করে কিছু জিজ্ঞেস করে সে শেষ………।

এইভাবেই আমাদের ভয়ানক প্রিন্সিপাল স্যার এর উপস্থিতিতে রেজিস্ট্রেশান কাজ চলতে থাকে।

কেউ কিছু জিজ্ঞেস করা যাবে না, স্যারই বলে দিচ্ছেন কি ভাবে কি করতে হবে। কোনো কথা একবার না শুনলে নাই, পড়ে আবার জিজ্ঞেস করলে বেতের বারি। ধরি, MARUF ISLAM এই ক্ষেত্রে মাঝখানের খালি জায়গাটায় খালি আর M এর বক্সে M, A এরবক্সে A এই ভাবে যথাক্রমে করতে হবে। কেউ একজন জিজ্ঞেস করলো

-     স্যার আমার নাম এর মাঝে . আছে, কি করবো ?? যেমনঃ K. KAMAL

-     স্যার ওকে দেখানোর জন্য বোর্ডে লিখে দিলো।

এই দেখে অনেকেই খালি জায়গায় ডট [.] দিয়ে করলো। বিশেষ করে যারা পিছনে ছিলো। ভুলক্রমে এটা স্যার এর চোখে পড়লো আর স্যার যাকে ধরলো ব্যাপক থাপ্পর পড়লো তার গালে। আর এই থাপ্পর আর মাঝেই শেষ হলো আমাদের রেজিস্ট্রেশান প্রক্রিয়া। পিছন থেকে অনেকেই আগে আগে জমা দিয়ে চলে গেলো। আর আমি দেরি করে যাওয়ার কারনে আমি আমার দল আর বন্ধুদের সাথে বসিনি, আমি বসেছি সামনের কাতারে আর আমার বন্ধুরা একদম পিছে। zoloft birth defects 2013

সার্টিফিকেট নেয়ার দিন দেখা গেলো আমার বন্ধুদের নাম যথা ক্রমেঃ walgreens pharmacy technician application online

AHMED.TUSHAR.HIMEL.

RASEL.TALUKDER.RUPOK.

MOHSIN.ALI.MIA. about cialis tablets

যারা সবাই পরে অবশ্য এফিডেভিট করে বানান ঠিক করেছিলো। তবে সেই ভয়াল আর হাস্যকর দিনের কথা এখনও হাসায় ক্লাস এর ফাকে, বাস এর ভিড়ে, দাঁত ব্রাশ এর মাঝে……………।।

You may also like...

  1. লেখা পড়ে পুরনো কিছু স্মৃতি মনে পরে গেল। স্যার নিজে থেকেই আমার নামের বানান চেঞ্জ করে দিয়েছিলেন। সেই বানান ব্যবহার করছি আজও…

  2. আমাদের কিছুই করা লাগে নি প্রিন্ট আউট এসেছে আমরা কারেকশন করেছি… thuoc viagra cho nam

  3. কতরকম কত কিছু হয়ে :!: :!: :!: :!: কত মানুষ যে আন্দাজে ভুল জন্ম তারিখ [ বিশেষ করেঃ ১ জানুয়ারী] নিয়া ঘুরতেসে সার্টিফিকেটে, ওই জিনিশটা ভালো লাগে না দেখতে …।

আপনার ই-মেইল ও নাম দিয়ে মন্তব্য করুন *

achat viagra cialis france

viagra vs viagra plus

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>

Heads up! You are attempting to upload an invalid image. If saved, this image will not display with your comment.

metformin gliclazide sitagliptin
can your doctor prescribe accutane will i gain or lose weight on zoloft