শুভ জন্মদিন প্রিয় তিমিরহনণের কবি …

241 zovirax vs. valtrex vs. famvir

বার পঠিত

মা কুসুমকুমারী দাশ এর বিখ্যাত কবিতা ” আমাদের দেশে হবে সেই ছেলে কবে,
কথায় না বড় হয়ে কাজে বড়ো হবে!”
– সত্যিকার অর্থেই কাজের মাধ্যমেই বড় হয়েছিলো ছোট্ট মেলু! রবীন্দ্র উত্তর যুগের প্রধানতম কবি হিসাবে স্বীকৃতিও পেয়েছিলেন তিনি! সদা অর্থকষ্টের মধ্যে থেকেও রচনা করে গেছেন বিখ্যাত সব কবিতা। মৃত্যুর আগ পর্যন্ত তীর্যক সমালোচনা ও
মনোবেদনায় অধিকাংশ কবিতা ছিলো অপ্রকাশিত! মৃত্যুর পর প্রকাশিত প্রত্যেকটি কবিতায় পায় পাঠক জনপ্রিয়তা!
প্রথমদিকে তার “ক্যাম্পে” কবিতাটি সমালোচনার শিকার হয়ে অশ্লীল হিসাবে চিহ্নিত হলেও পরবর্তীতে স্বীকৃতি পেয়েছেন শতাব্দীর “শুদ্ধতম কবি” হিসাবে! প্রেম আর প্রকৃতির অসম্ভব এক মিলন তাঁর প্রত্যেকটি কবিতায়!
এইবাংলার রূপে এতোটায় বিমুগ্ধ ছিলেন যে রূপসীবাংলার জয় জয়াকার ছিলো তার প্রায় প্রত্যেকটি কবিতায়!

হয়তো সেই বিমুগ্ধতা আর ভালোলাগার জায়গা থেকেই এই বাংলায় আবার ফিরে আসার ব্যাকুলতা থেকেই কবি লিখেছিলেন,

“আবার আসিব ফিরে ধানসিঁড়িটির তীরে – এই বাংলায়
হয়তো মানুষ নয় – হয়তো বা শঙ্খচিল শালিকের বেশে,” acquistare viagra in internet

মৌলিক কিংবা জীবনমুখি কবিতায় জীবনানন্দ ছিলেন অদ্বিতীয়! achat viagra cialis france

প্রেম আর প্রেমের কবিতায় জীবনানন্দ দাশ এর কবিতাগুলোর সমকক্ষ আর কোন কবিতা আছে বলে মনে হয় না, can levitra and viagra be taken together

“তুমি সখী, ডুবে যাবে মুহূর্তেই রোমহর্ষে — অনিবার অরুণের ম্লানে
জানি আমি; প্রেম যে তবুও প্রেম; স্বপ্ন নিয়ে বেঁচে রবে, বাঁচিতে সে জানে”

কিংবা,

“সুরঞ্জনা, অইখানে যেয়োনাকো তুমি,
বোলোনাকো কথা অই যুবকের সাথে;
ফিরে এসো সুরঞ্জনা :”

এর মতো বিখ্যাত লাইনগুলোর স্রষ্টাও তিনিই!

এছাড়াও বিখ্যাত বনলতা সেন কবিতার সেই বিখ্যাত লাইন,

“চুল তার কবেকার অন্ধকার বিদিশার নিশা,
মুখ তার শ্রাবস্তীর কারুকার্য;”

পড়ে কতো যুবক যে নাটরের বনলতা সেন এর প্রেমে পড়েছিলো তার ঠিক নেই! হয়তো আমিও সেসব যুবকদের মধ্যে একজন!

কবি “ঊনিশ’শো চৌত্রিশ” কবিতায় লিখেছিলেন,

“আমি অতো তাড়াতাড়ি কোথাও যেতে চাই না;
আমার জীবন যা চায় সেখানে হেঁটে হেঁটে পৌঁছুবার সময় আছে,
পৌঁছে অনেকক্ষণ বসে অপেক্ষা করবার অবসর আছে।
জীবনের বিবিধ অত্যাশ্চর্য সফলতার উত্তেজনা
অন্য সবাই বহন করে করুক; আমি প্রয়োজন বোধ করি না
আমি এক গভীরভাবে অচল মানুষ
হয়তো এই নবীন শতাব্দীতে
নক্ষত্রের নিচে।”

অথচ কবি চলে গিয়েছিলেন খুব তাড়াতাড়িই! মাত্র ৫৫ বছর বয়সে ১৯৫৪ সালে এক ট্রাম দুর্ঘটনায় আহত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন কবি!

শুভ জন্মদিন জীবনানন্দ দাশ, শুভ জন্মদিন তিমিরহনণের কবি

জীবনানন্দ দাশ(জন্ম: ১৮ ফেব্রুয়ারি,১৮৯৯ – মৃত্যু:২২ অক্টোবর, ১৯৫৪)

You may also like...

আপনার ই-মেইল ও নাম দিয়ে মন্তব্য করুন *

Question   Razz  Sad   Evil  Exclaim  Smile  Redface  Biggrin  Surprised  Eek   Confused   Cool  LOL   Mad   Twisted  Rolleyes   Wink  Idea  Arrow  Neutral  Cry   Mr. Green

about cialis tablets

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>

Heads up! You are attempting to upload an invalid image. If saved, this image will not display with your comment.

irbesartan hydrochlorothiazide 150 mg