একজন আদর্শ শিবিরকর্মী

308

বার পঠিত

প্রতিদিনকার মত আজকের সকালেও ঘুম থেইকা উইঠা লুঙ্গির জায়গাই লুঙ্গি না পাইয়া মেজাজে খিচন ধরল গদার। শালার প্রতিদিনই এই অবস্থা, ঘুম ভাঙ্গার পর দেখে লুঙ্গিটা কোমরের বদলে খাটের পাশে পইরা আছে। মনে মনে লুঙ্গির মা-বাপরে গালি গালাজ কইরা তাড়াতারি লুঙ্গিটা পইড়া মোবাইলটা হাতে নিল সে। ফেইসবুকে ঢুইকা দেশের সর্বশেষ অবস্থাটা জানা দরকার, এমনিতেই দেশের অবস্থা ভালা না।

ফেইসবুকে ঢুইকাই বাশের কেল্লার পোস্ট খুজা শুরু করল গদা, আজকাল বাশের কেল্লা ছাড়া আর কোথাও সত্য নিউজ বাইর হয় না। সবগুলাই আওয়ামিলীগ সরকারের দালাল হয়ে গেছে। লাখ লাখ আলেম হত্যার ঘটনাই কোন মাদারচুদ একটা কথাও লেখে নাই, সব চুপ কইরা ছিল! অবশ্য ওদেরই বা কিসের দোষ, সত্য কথা কইলেই তো এই নাস্তিক সরকার নয়াদিগন্ত, আমার দেশের মত সব বন্ধ কইরা দিব! ভাবতে ভাবতে বাশের কেল্লার খোজ পাইয়া গেল গদা। পেইজের প্রথম পোস্টেই আজকের সকালের এক পাল জিহাদী শিবির ভাইয়ের ছবি দেয়া আছে। ছবিখানা দেইখা গদা খুব লজ্জা পাইল। গদারও ইচ্ছা করে ওদের মত জিহাদী জোশে বলীয়ান হইয়া রাস্তায় নাইমা মিশিল করতে, গাড়ি ভাংতে। গতকালও গদা কয়েকজন সাথীরে নিয়া গাড়ি ভাংতে গেসিল, বাট পাবলিকের দাবড়ানি খাইয়া কোনমতে জান বাচাইয়া পালাইয়া ফিরা আসতে পারছে। ছি ছি ছি, কি লজ্বার কথা! শালার পাবলিকগুলাও সব নাস্তিক হইয়া যাইতেছে। বোকচোদের দল একটু শান্তিমত জিহাদও করতে দিল না!! আন্দোলন করতে নামলেই খালি মারে। গতকালও এক ভাইরে মাইরা হাড্ডি ভাইঙ্গা দিছিল। হাইরে, এই দেশে কেউ জিহাদ বুঝে না, কেন যে আফগানিস্তান, পাকিস্তানে জম্ম হইল নাহ!

এদেশের মানুষগুলাই সব ফাউল। পাকিস্তানের মত একটা পবিত্র দেশরে ফাকিস্তান কইয়া ডাকে! কত বড় নাস্তিক হইলে মানুষ এমন করতে পারে? এই বিষয়টা গদারে খুব ব্যাথিত করে। আবাল বাঙ্গালীগুলা কি সব একাত্তর ফেকাত্তর, মুক্তিযুদ্ধ, ত্রিশ লাখ নিয়া চিল্লাচিল্লি করে। আরে ভাই, এখনো তো কত মানুষ আগুনে পুইড়া মরতেছে, আজ পর্যন্ত দেখসস কোন হুজুররে এগুলা নিয়া কথা বলতে? লাশ নিয়া টানিটানি করা হইল আওয়ামিলীগারগো কাম, শালাদের আর কোন কাম নাই খালি এগুলা নিয়া মাথাব্যাথা। পাকিস্তান হইল মুসলিম দেশ, আর আমরাও মুসলিম। মুসলিম মুসলিম ভাই ভাই, আর ভাই তো ভাইরে মারতেই পারে, এইটা নিয়া এত লাফানির কি আছে!

যায় হোক, ইদানিং গদা ফেসবুকে জিহাদ করতেছে নিয়মিত। তার নিজের চৈদ্দহাজার ফলোয়ারের একখান আইডি আছে, যেখানে প্রতি স্ট্যাটাসে লাইক পরে হাজারের উপর আর কমেন্ট শ’খানেক।গতকাল রাতেও আওয়ামিলীগ আর হাসিনারে অভিশাপ দিয়া একখান স্ট্যাটাস পয়দা করছিল গদা, ঐটাতে লাইক পড়ছে ১,৩০৭ টা আর কমেন্ট পড়ছে ২০৩ টা। অতি উৎসাহ নিয়া কমেন্টবক্সে ঢুইকাই আবার মেজাজে খিচুনি ধরল গদার! আবালের দল সব এদ মি, ফাক মি, সাক মি টাইপের বালছাল মার্কা কমেন্ট কইরা রাখছে, কামের কোন কমেন্ট নাই।

অতঃপর একরাশ হতাশা লইয়া চটি পেইজের খোজ করতে লাগল সে। আজকার চটি গল্পগুলাও আগের মত মজা লাগে না, হাত মারতেও তেমন সুবিধা হয় না। বাট কিছু করার নাই, চটি গল্পের খোজ করতে করতে বাথরুমে ঢুকে গেল গদা..

You may also like...

আপনার ই-মেইল ও নাম দিয়ে মন্তব্য করুন *

para que sirve el amoxil pediatrico

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong> walgreens pharmacy technician application online

Heads up! You are attempting to upload an invalid image. If saved, this image will not display with your comment.

doctus viagra