একখানা সাউন্ড ছাড়া মাইরের গল্প…

355

বার পঠিত

১৯৮০ সালে ভারত সফরের যাবার পথে একটা ছোট্ট সফরে ঢাকা এবং চিটাগাংয়ে দুটি ফ্রেন্ডলি ম্যাচ খেলতে প্রথমবারের মত স্বাধীন বাংলাদেশে আসে পাকিস্তান ক্রিকেট দল। আসিফ ইকবালের নেতৃত্বে এ দলে ছিল তৎকালীন পাকিস্তানের সব তারকা ক্রিকেটাররা। ছিলেন তৎকালীন হার্টথ্রব ক্রিকেটার ইমরান খানও। capital coast resort and spa hotel cipro

বিমানবন্দরে বিমান এসে থামার পর দেখা গেল প্রচুর তরুনী ভিড় করে আছে টারমাক ঘিরে, এক অভূতপূর্ব চাঞ্চল্য তাদের মাঝে। শেষবারের মত আয়নায় মুখ দেখে নিচ্ছেন তারা, শত হলেও তাদের স্বপ্নের পুরুষ ইমরান খান আসছেন… can your doctor prescribe accutane

দরজা খুলে দেখা দিলেন ইমরান, হাত নেড়ে অভিবাদন জানালেন তার নারীভক্তদের। নিচে নেমে হাত জোড় করে বললেন, নমস্তে…  ইমরান খানকে সামনাসামনি দেখবার অভাবিত শিহরনে উপস্থিত নারীরা উপেক্ষা করে গেলেন সেই নমস্তে সম্বোধন।

একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধের সময় পাকি হায়েনারা আমাদের মা-বোনদের ভারতীয় মালাউন বলে গালি দিত, সেনাদের উপর জেনারেলদের অর্ডার ছিল, যতটা সম্ভব এই ইন্ডিয়ান নারীদের ভিতর সাচ্চা পাকিস্তানী বীজ বপন করে দিয়ে আসতে হবে। যেন এই দেশের পরের প্রজন্ম সাচ্চা পাকিস্তানী মুসলমান হিসেবে গড়ে উঠতে পারে… 

ইমরান যে তার পূর্বপুরুষের মত তখনও, স্বাধীনতার নয় বছর পরেও তাদের ভারতীয় হিসেবে বিবেচনা করতেছে, সেইটা এয়ারপোর্টের টারমাকে দাঁড়ায়া শিহরনে কাঁপতে থাকা মেয়েদের মনে একটাবারের জন্যও আসল না। কিন্তু মিডিয়া সেই জিনিসটা ক্যাচ করল, প্রচার হবার পর কিছু তেজী বাঙালী যুবক স্বচ্ছ, নিরপেক্ষ বাঙলা গালিতে ভরে দিল পাকিস্তানীদের। কিছু মিডিয়ায় পাকিস্তানী ক্রিকেটারদের সাক্ষাৎকার নেওয়া হল, পাকিস্তানীরা তাদের পূর্বপুরুষদের ধারা বজায় রেখে বরাবরের মত নিতান্তই তুচ্ছ-তাচ্ছিল্য করল বাংলাদেশকে, বাংলাদেশের স্বাধীনতাকে, বাঙ্গালীদের… ফলাফলটা হয়তো তারা কল্পনাও করতে পারেনি।

জানুয়ারির দুই তারিখে প্রথম দুইদিনের ফ্রেন্ডলি ম্যাচের টি- ব্রেকের সময় কিছু অতি সাধারণ শান্ত, মছুয়া(পাকিস্তানিরা আমাদের মাছ খাওয়াকে ব্যঙ্গ করে আমাদের মছুয়া বলে) বাঙালী ছেলে মাঠের ভেতর ঢুকে গেল। তারপর পাকিস্তানীদের ড্রেসিংরুমে ঢুকে যে পাকিস্তানীরা আমাদের স্বাধীনতা নিয়ে তুচ্ছ-তাচ্ছিল্য ও ঠাট্টা করেছিল, তাদের সাউন্ড ছাড়া বাঙলা মাইর দিল। মাইর হইল, শব্দ হইল না। এই মাইরের কোন বাপ-মা, দাদা-দাদি কিংবা আত্মীয়-স্বজন নাই। পাকদলের স্পিনার ইকবাল কাসেমের হাত ভেঙ্গে গেল, অন্য ক্রিকেটাররা গুরুতর আহত হল… ম্যাচ এবং সফর ওইখানেই পরিত্যক্ত ঘোষনা করা হয়…

এরপর অনেকদিন বাংলাদেশের সাথে পাকিস্তানের সম্পর্ক বরফশীতল ছিল। পাকিস্তানী ক্রিকেট বোর্ড কিংবা অভিযুক্ত ক্রিকেটাররা অবশ্য তাদের কৃতকর্মের জন্য ক্ষমা চায়নি। অবশ্য তারা যেখানে ৭১রের জন্যই ক্ষমা চায়নি, সেখানে এইটা তো বড়ই মামুলি ব্যাপার… 

তারপরও কিছু মানুষ পাকিস্তান সমর্থন করে, তারপরও কিছু মানুষ পাকিস্তান সমর্থনকে জায়েজ করার জন্য কালার সাথা রাগ্নিতি না মাশাবার পরামর্শ দেয়… 

সেই ম্যাচের লিংক- http://en.wikipedia.org/…/Pakistani_cricket_team_in_Banglad…

private dermatologist london accutane
para que sirve el amoxil pediatrico

You may also like...

  1. মাশিয়াত খান বলছেনঃ

    এমন তথ্য জানা ছিল না। জেনে ভাল লাগল

  2. আমি জানতামই না এই ঘটনা… এক্কেরে ঠিক করছিলো… :twisted:

  3. তাই নাকি? জানতাম না তো।
    ‘নামাস্তে’-র গল্পটা পাইলেন কই দাদা?
    বাঙলা মাইরটা আরেকটু বিস্তারিত লিখবেন না। মাইরের গল্প শুনতে মুঞ্চায়। :grin:

আপনার ই-মেইল ও নাম দিয়ে মন্তব্য করুন *

nolvadex and clomid prices

posologie prednisolone 20mg zentiva

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>

Heads up! You are attempting to upload an invalid image. If saved, this image will not display with your comment.

doctus viagra
can you tan after accutane
renal scan mag3 with lasix