“পথের পাঁচালীর” সেই ছোট্ট অপুর পাঁচালী !

1393

বার পঠিত

1384501443

(কভার ফটো অফ অপুর পাঁচালি, ২০১৪)

ঘটনা সম্ভবত ২০১০ কি ১১ সালের,  ঠিক মনে করতে পারছিনা; এই সময় আমি একটি মুভি দেখি “ফরেস্ট গাম্প”। এই ফরেস্ট কে নিয়ে নতুন করে কোন কিছু না বলাটাই বোধহয় বুদ্ধিমানের কাজ হবে। তাই আর না বলি; তবে হ্যাঁ মুভিটি শেষ হবার পর আমি অনেকটা নিস্তব্ধ হয়ে কিছু সময় মনিটরের স্ক্রিনে তাকিয়ে ছিলাম। আর খুব আফসোস হচ্ছিল। কেননা এই মুভি মুক্তি পেয়েছিল ১৯৯৪ সালে আর আমি গাধা মুভিটি দেখলাম ২০১০ এ এসে!! হয়তবা, ওটাই পারফেক্ট সময় ছিল। জীবনের ডেফিনেশন জানতে হয়তবা কিছু সময় দিতে হয় বা লাগে। ঐ যে শিরোনামহীন তাদের জাহাজিতে গেয়েছিল,

“বুঝতে কিছু সময় লাগে সেএএ………” যাই হউক প্রসঙ্গ থেকে বাইরে যাওয়া যাবেনা!

তবে হ্যাঁ সত্য বলছি, মুভিটি দেখার পর সবথেকে বড় আফসোস যেটা ছিল তাহলো কেন এতো তাড়াতাড়ি মুভিটি শেষ হয়ে গেল! যদিও মুভিটির ব্যপ্তিকাল ছিল ১৪২ মিনিট তারপরও মনে হচ্ছিল, আরও হয়তবা জুনিয়র গাম্পকে নিয়ে নতুন প্লাটফর্মে এখনও ১৪২ মিনিট অনায়াসে চালিয়ে দেয়া যেত!!

220px-Forrest_Gump_poster tumblr_md4m1ymO5U1rix8iwo1_500

 

এখন প্রশ্ন হোল, লেখার শিরোনাম আর প্রচ্ছদ এর সাথে লেখাগুলো বড্ড বেশী বেমানান লাগছে। হ্যাঁ মনে লাগাটা অস্বাভাবিক কিছুই নয়; কেননা শিরোনাম আর প্রচ্ছদ স্পষ্টভাবে বলছে যে এই রিভিউ বা লেখাটা সত্যজিৎ রায়ের অপুর ট্রায়োলজির উপর নির্মিত “অপুর পাঁচালি” নিয়ে হবে। অবশ্যই লেখাটা এই বিষয় নিয়ে, কিন্তু হটাৎ করে ফরেস্ট গাম্পকে আনার পিছনে আমার কোন উদ্দেশ্য নাই। কেননা এটা আমার ভালোলাগা থেকে এসেছে। কেননা এপিক রোম্যান্টিক, কমেডি, মূলত ড্রামা প্রেক্ষাপটের উপর আমার দেখা অন্যতম সেরা একটি মুভি। তাই জীবনে প্রথম মুভি নিয়ে দু কলম বা লাইন লিখতে গিয়ে কেন জানি একপ্রকার ভালোলাগা থেকেই ফরেস্ট গামের প্রসঙ্গটা চলে আসলো। তাই আমিও বাঁধা দিলাম না, কয়েকটা লাইনে মুভিটির গ্রাভিটি বুঝিয়ে দিলাম।

বাইসাকেল থিভস এর বাচ্চাটা এঞ্জ স্তাইওলা, ইটালির এক সামান্য স্কুলের অংকের শিক্ষক ছিলেন। এইতো কয়েক বছর আগে রিটায়ার্ড করেছে। ইটি র বাচ্চা হেনরি থমাস, এখন ব্যান্ড দলের গিটারিস্ট। দি কিডের বাচ্চাটা জ্যাকি কোহান সময়ের স্রোতে হারিয়ে গেছে। পৃথিবীর অন্যতম এই সকল সেরা মুভির বেষ্ট চাইল্ড এই সেলিব্রেটিদের খবর কেউ রাখেনা। ঠিক তেমনি আর একটি নাম “অপু”, সত্যজিৎ রায়ের পথের পাঁচালির সৃষ্টি অপু। যার চরিত্রের উপর দাঁড়িয়ে “অপু ট্রায়োলজির” সৃষ্টি হয়েছিল। সেই অপুকে সবাই মনে রেখেছে ভুলে গেছে সেই অপু চরিত্রে অভিনয় করা সুবীর ব্যানার্জিকেwirkung viagra oder cialis

Ladri3MV5BMjA2MzE4OTExOF5BMl5BanBnXkFtZTYwMzUwNjQ5._V1__SX952_SY342_Chaplin_The_Kid_editimages

 

২০১৪ সালের ২৫ শে এপ্রিল শ্রী ভেনকাটেস ফিল্মস প্রোডাকশন থেকে কৌশিক গাঙ্গুলির পরিচালনায় “অপুর পাঁচালি” শিরোনামে মুভিটি মুক্তি পায়। পরমব্রত চ্যাটার্জি, পার্ন মিত্র, আরধেন্দু ব্যানার্জি ও গৌরভ চক্রবর্তির অসাধারণ অভিনিয়ে ছবির প্রতি আমার মুগ্ধতা ধরে রাখে।

মার্ক টোয়াইনের একটা বহুল প্রচলিত প্রবাদ আছে। তিনি বলেছিলেন, “The Comparison was the Death of Joy  ”. As a part of that Quote I can say, “Comparison is a bitch”(The Time of India). কেননা এতো মেধা, ভালোবাসা ও শ্রম দিয়ে মুভি মুক্তি দেবার পর ক্রিটিক্স সাহেবরা বসে যান খুতিয়ে খুতিয়ে ভুল ধরার জন্য। তারপর ও ক্রিটিক্স রেটিং দিব্যি ৩.৫ আদায় করে নিয়েছে। আর দর্শক ভোটে IMDB রেটিং এ ৮.২ নিয়ে ভালই অবস্থানে আছে অপুর পাঁচালি।

মুভির কাহিনী শুরু হয় অর্ক নামের একজন ফিল্ম স্টাডিজের ছাত্র দায়িত্ব পায় সুবীর ব্যানার্জিকে খুঁজে বের করা নিয়ে। কেননা, তখন জার্মান ফিল্ম এ্যাওয়ার্ড কমিটি শ্রেষ্ঠ শিশু অভিনেতা হিসাবে “পথের পাঁচালির” অপুকে বাছাই করে এবং তাকে পুরস্কৃত করার লক্ষে জার্মানিতে আমন্ত্রণ জানানো হয়। কিন্তু সেই অপু অর্থাৎ বর্তমানের সুবীর ব্যানার্জি ছিল সবার অগোচরে। অনেক খোঁজা খুজির পর দেখা মেলে সুবীর ব্যানার্জির। আর কাকতালীয় ভাবে সত্যজিৎ রায়ের লিখে যাওয়া সেই অপু ট্রায়োলজির চিত্রনাট্য বাস্তবে সুবীর ব্যানার্জির ফেলে আসা দুঃসহ, কষ্টের জীবনের সাথে অনেকাংশে মিলে যায়।

images (1)

সত্যজিৎ রায় যখন তাঁর অপরাজিত মুভির কাজ শুরু করেছিলেন, তখন সেই ছোট অপু যাকে ঘিরে এতো কিছু সুবীর ব্যানার্জিকে পথের পাঁচালির পর ২য় বারের মত অপু চরিত্রে নেয়া হয়। কিন্তু হটাৎ করে পিনাকি সেন গুপ্তাকে অপু চরিত্রের জন্য বাছা হয়। কেননা যে চরিত্রের উপর নির্ভর করে অপরাজিত চিত্রনাট্য হয়েছিল তাঁর সাতে পিনাকির যথেষ্ট মিল আছে। তারপর থেকে ফিল্ম জগতের সাথে সুবীর ব্যানার্জির সকল সম্পর্ক ছিন্ন হয়ে যায়। বাস্তব জীবনের টানাপোড়নে হারিয়ে যায় নাগরিক এই সমাজে। তাইতো সে খুব দুঃখের সঙ্গে বলেছিলেন, “কাকাবাবু (সত্যজিৎ রায়) অপরাজিতর অপু চরিত্র থেকে আমাই বাদ দিলেন ঠিকই কিন্তু সেই অপু থেকে আর বাদ দিতে পারলেন কই!

আসলেও ঠিক তাই সেই ছেঁড়া কাথার ফুটো দিয়ে দেখা ছোট দুইটা ঘুমন্ত চোখ এর কথা কিভাবে ভুলবে সবাই? ছোট সেই দুটো চোখের সাথে অপুও থেকে গেছে  সবার মনের অজান্তে।

তিন যুগের বা কালের তিন ক্যামেরার সিঙ্ক্রনাইজেশন টা ছিল অসাধারণ। সাধারন কথায় ছোট ছোট ভালোবাসা; দুঃখ; জীবনবোধ সব কিছু মিলিয়ে মুভিটি আমার কাছে একটি অসাধারণ একটি কাজ মনে হয়েছে। ডিরেক্টর তার ভালোবাসা, মেধা ও অক্লান্ত পরিশ্রম দিয়ে “অপুর পাঁচালি” নামের মুভিটির জন্ম দিয়েছে, যেটা কিনা আমার মনে হয় তার জীবনের অন্যতম সেরা একটি কাজ হয়ে থাকবে।

উদাহরণ স্বরূপ মুভিটির শেষ দৃশ্য অকপটে নির্মাতার চিন্তা-চেতনা ও জীবনবোধের এক বিরাট ছায়া রেখে গেছে। সব কিছু হারিয়ে অপু যখন চলেছে নিস্তব্ধ এক মেঠো রাস্তার বুক চিরে, আর তখনি পাশে ছোট নদীতে পানির তরঙ্গে ভেসে যাচ্ছে মাঝি তার নৌকা নিয়ে।

যেতে যেতে বলতেই হয় , “Your work may not reach a destination but your intentions should

Untitlednjnjn accutane prices

zoloft birth defects 2013

You may also like...

  1. “Your work may not reach a destination but your intentions should”

    রিভিউ লেখার ধরনটা বেশ ভালো লেগেছে। আজকেই সিনেমাটা দেখার চেষ্টা করবো।
    আর এই সিনেমাটা নিয়ে লেখার জন্য লেখককে ধন্যবাদ।

  2. চমৎকার ধারাবাহিকভাবে আপনার পোস্টটি লিখা! খুব বেশী ভাল লাগলো বেনজীর ভাই…
    আর চলচ্চিত্রটি দেখা হয় নি। এখনই ডাউনলোড করব ভাবছি!! ধন্যবাদ

  3. নীহারিকা বলছেনঃ

    অনেক ভাল লেগেছে লেখা টি । ধন্যবাদ ।

  4. সৌরভ বলছেনঃ

    এই ধরনের চিন্তাধারা আমার কাছে অনেক ভাল লাগে বেনজির ভাই ……… ধন্যবাদ

  5. রিভিউটা পড়ে সিনেমা দেখার সাধ ৫০% পেলাম

  6. ইলেকট্রন রিটার্নস বলছেনঃ

    আপনার রিভিউটা ভালো লাগলো। কিপিটাপ ব্রো!!

  7. s m sohel ahmmed বলছেনঃ

    মুভিটা কালকেই দেখব।

acquistare viagra in internet

আপনার ই-মেইল ও নাম দিয়ে মন্তব্য করুন *

Question   Razz  Sad   Evil  Exclaim  Smile  Redface  Biggrin  Surprised  Eek   Confused   Cool  LOL   Mad   Twisted  Rolleyes   Wink  Idea  Arrow  Neutral  Cry   Mr. Green

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>

Heads up! You are attempting to upload an invalid image. If saved, this image will not display with your comment.