টাংগাইলের পতিতা পল্লী উচ্ছেদ এবং সমাজের পবিত্রতা অর্জন

1064

বার পঠিত

ধরা যাক একটি বোতলে বিশুদ্ধ দুই লিটার পানি আছে । এই পানিকে আপনি খেতে পারেন , বোতলে রাখতে পারেন , মাটিতে ফেলতে পারেন কিংবা আরেকটি পাত্রে রাখতে পারেন । আমার জানামতে এই চারটার বাইরে আর কোন অপশন নেই । 
আপনি যদি তিনটি অপশন বন্ধ করে দেন তবে চার নাম্বার অপশন ব্যবহার করতে বাধ্য । ধরি আপনি , পানি গুলো বোতলে রাখতে পারবেন না , অন্য কোন পাত্রে রাখতে পারবেন না , খেতেও পারবেন না কিন্তু বোতল টি আপনার খালি করতে হবে ।
তবে , পানিটিকে ফেলে দেয়া ছাড়া আর কোন অপশন নেই । অর্থাৎ পানিটিকে পুরোটাই নষ্ট করতে হবে । এই চারটে অপশনের বাইরে আর কিছু হবার সম্ভবনা থাকলে তবে সেটা বোধহয় নতুন করে ভাবনার তৈরি করবে যেমন তেমনি ব্যাপারটা ভালো হবে না খারাপ হবে তা নিয়েও বিস্তর ভাবনা আছে ।
এইবার আসি , টাংগাইলের দেহ ব্যবসা কর্মীদের উচ্ছেদ সম্পর্কে । এটা অসামাজিক বলে আপনি এটি বন্ধে যা যা করতে পারেন ……
১/ তাদের পুনর্বাসনের ব্যবস্থা করতে পারেন
২/ আইন দিয়ে বন্ধ করতে পারেন
৩/ সরাসরি উচ্ছেদ করতে পারেন
৪/ নারী ব্যবসায়ীদের প্রতারনা বন্ধ করতে পারেন

এখন ব্যাপার হল আইন দিয়ে এটা বন্ধ করেন নাই ।
তাদের পুনর্বাসনের ব্যবস্থা করেন নাই ।
নারী ব্যবসায়ীদের প্রতারনা বন্ধ করেন নাই
কিন্তু তাদের উচ্ছেদ করে দিয়েছেন ।
এই লোকগুলোর সংসার চলে , পেটে খাবার যায় এই কাজ করেই । এই লোক গুলো খাবে কি ?
কবির সুমনের একটি গানে তিনটে লাইন আমার বরাবর শরীরে কাঁটা দেয় …
” দেখুন তো দেখি , কি হাস্যকর কথা বলছে মশায়
ওরাও একটা মানুষ তারও আবার খিদে পায়
একটা মানুষ তারও নাকি আবার খিদে পায় ”

এই লাঞ্চিত এবং অমানবিক জীবন যাপন কওরা মেয়েগুলো কি করবে তা আমরা না জানলেও অনুমান করতে পারি । তাদের বাইরে কোথাও কেউ কাজ দেবে না এটা নিশ্চিত থাকতে পারেন । বাধ্য হয়ে এরা এইবার এদের খাবার জোগাড় করবে মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়ে । তাদের উচ্ছেদ করা হয়েছে রাজনৈতিক প্রভাব খাঁটিয়ে । যখন প্রভাবটা রাজনিতির পড়েছে তখন সেখানে আরও অনেক প্রভাবক থাকবে বলে আশা করতে পারেন । সমাজ খুশি তাদের উচ্ছেদ করাতে । কারন সমাজ এতে শুদ্ধ হয়েছে । রাজনীতি খুশি কারন আরও কিছু জমি লোপাট করা গেছে । রাজনীতি এবং সমাজ দুটো যখন একসাথে খুশি হয় তখন কি আর সরকার খুশি না হয়ে পারে ? তাই সরকারঅ চুপ মেরে আছেন ।   wirkung viagra oder cialis


তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময় একজন নারী পতিতা পল্লী থেকে পালিয়ে এসে আদালতের কাছে আশ্রয় চেয়েছিল । আদালত তাকে আশ্রয় দেয় নি । ঐ মেয়েটিকে চুলের ঝুটি ধরে একজন ব্যক্তি আদালত পাড়া থেকে নিয়ে যায় । পরে খবরে ঐ মেয়েটি সম্পর্কে আর কোন তথ্য পাওয়া যায় নি । আর সংবাদ মাধ্যম এবং আদালত কেউই ঐ মেয়েটি সম্পর্কে কোন তথ্য দেয় নি ।

পতিতা পল্লীতে প্রায় অধিকাংশ নারী প্রতারনার শিকার হয়ে এসেছে । কেউ সাধ করে আসে নি । walgreens pharmacy technician application online

মাসুদ আখন্দের রানী নামক ডকুমেন্টারি যারা দেখেছিলেন তারা হয়তো জানেন । ডকুমেন্টারি টা বেশ নাম কামিয়েছিল বটে । শুধু একজন রানী হয়তো রক্ষা পেয়েছিল , কিন্তু দৌলতদিয়া ঘাটের আরও অসংখ্য রানী ছিল । যাদের রক্ষা সরকার করে নি ।

পতিতাদের উপর আরও একটি ডকুমেন্টারি দেখেছিলাম । সেখানে একজন পতিতা বলছিলেন , আমাদের তো কেউ কাজ দেয় না । পল্লীর বাইরে কোন কাজের জন্য গেলেও সবসময় আমাদের অশালীন উক্তি করা হয় । এতোটাই কটূক্তি করা হয় যে বেঁচে থাকা সম্ভব না । আমাদের এই কাজ ছাড়া বেঁচে থাকা সম্ভব না ।

যেখানে সমাজের ভদ্র লোকেরাই পতিতা পল্লীতে গিয়ে পতিত হয়ে আসে তারাই আবার সমাজ কে অসামাজিক থেকে সামাজিক করতে চায় ।
মজার ব্যাপার হচ্ছে , আমাদের কোন কোন বুদ্ধিজীবী একসময় এবং এখনো বলে বেড়ান , পতিতা পেশাকে আইনগত বৈধতা দেবার জন্য ।
বিশ্বাস করুন তখন এ দেশে মুক্তিযুদ্ধ হয়েছে বলে আমার বিশ্বাস হয় না ।
আমাদের এই দেশের কিছু সন্তান নাকি তার মা বোন কে বাঁচানোর জন্য যুদ্ধ করেছিলেন । আর এই দেশেরই বুদ্ধিজীবীরা এখন সে মা বোন কেই আইনগত ভাবে বেশ্যা বানানোর জন্য গোল টেবিল বৈঠক করেন ।
কখনোই তারা নারী ব্যবসায়ীদের কঠোর শাস্তির কথা বলেন না । কখনোই তারা পতিতা পল্লীর এইসব লাঞ্চিত এবং অমানবিক জীবন যাপন করা নারীদের পুনর্বাসন এবং রক্ষা করবার কথা বলেন না । তারা কখনোই বলেন না , কিছুই বলেন না । কারন হয়তো একটাই , তাদেরও মাঝে মাঝে দেহ অপবিত্রের জন্য ওপাড়ায় যেতে হয় । আর ও পাড়া থেকে এই পাড়াতে এলেই দেহ শুদ্ধ হয়ে যায় ।

You may also like...

  1. চাতক বলছেনঃ

    পানি নিয়ে আমি আরও দুটি কাজ করতে পারিঃ
    ক) চুলায় জ্বাল দিয়ে বাষ্প করে ফেলতে পারি
    খ) ফ্রিজে রেখে বরফ করে ফেলতে পারি।

    যা হোক, আপনার পোস্টের থিম চমৎকার। কবির সুমনের গানের লাইনগুলো খুবই প্রাসঙ্গিক হয়েছে। আরও বিশ্লেষণধর্মী হলেও চমৎকার লাগত। নিয়মিত পোস্ট দিবেন আশাকরি

    doctus viagra
    • মগজে কারফিউ বলছেনঃ

      ধন্যবাদ মন্তব্যের জন্য । বাস্প করার অর্থ হল শেষ অব্দি পানিটা আমাদের ব্যবহার হচ্ছে না । আর ফ্রিজে রাখার অর্থ হল আরেকটি পাত্রে রাখা । যা বোধকরি ঐ চার অপশনের ভেতরই থাকে । এখানে আসলে পোস্টের মূল বক্তব্যটাই আসল । :)

  2. ভাইজান, দেহব্যাবসা তো খারাপের কিছু দেখিনা। এটা খারাপ কেন?

    • মগজে কারফিউ বলছেনঃ

      কোন পেশা যখন আপনাকে জোর করে এবং প্রতারনা করে করানো হচ্ছে তখন সেটা অবশ্যই খারাপ । আমি পতিতা পল্লীগুলোর কথা বলছি , ঢাকা শহরের হাই কোয়ালিফাইড দেশ ব্যবসায়ী নারীদের কথা বলছি না #অমিত লাবণ্য ।

      • জোর করে করানো অবশ্যই খারাপ, কিন্তু যারা নিজের ইচ্ছায় এই ব্যাবসা করে তাদের
        নিয়ে তো সমস্যা থাকার কথা নয়। তাইনা? :) আশা করি আপনারও নেই

        • মগজে কারফিউ বলছেনঃ

          যারা নিজ ইচ্ছায় করছে তাদের নিয়ে আমার কোন মাথা ব্যথা নেই এখন । কিন্তু ব্যাপার হল , এটার দ্বারা অন্যরা ফায়দা যেন না নিতে পারে সেটা ঠিক করা জরুরী । পতিতা পল্লীতে এমন অনেক মেয়ে আছে যাদের বয়স এখনো ১৮ বছর হয় নাই । ১২/১৩ বছরের মেয়েদেরকে ১৮ বছর বানিয়ে , পুলিশকে টাকা খাইয়ে করানো হয় । পতিতা পল্লীতে একে তো প্রতারনা করে নিয়ে আসা হয় , ভয় ভীতি দেখিয়ে , না খেতে দিয়ে এদের রাজী করানো হয় । তখন এরা বলতে বাধ্য হয় না আমরা নিজ ইচ্ছায় এখানে আসছি । এই নিরাপত্তা আমরা এখনো দিতে পারছি না । যতদিন আমরা এই নিরাপত্তা দিতে পারছি না ততদিন অন্তত এই দেশের জন্য এটা খারাপ । যারা নিজ উদ্যোগে যাচ্ছে তাদের অধিকাংশ নামছে বিলাসিতার জন্য আর কিছু লোকে নামছে অন্য কোন কাজ না পেয়ে বা প্রতারনার শিকার হয়ে । প্রয়োজন এবং বিলাসিতা দুটোকে এক পাল্লায় মাপার কোন কারন নেই । এটা কে ঠিক প্রয়োজন বলাও যাচ্ছে না , সমাজ বাধ্য করছে ।

          metformin gliclazide sitagliptin
      zovirax vs. valtrex vs. famvir
  3. অংকুর বলছেনঃ

    প্রশ্ন হচ্ছেঃ পতিতা কি? পতিতা কারা?

    এইখানে আমি আভিধানিক অর্থ না বলে নিজের মতটা ব্যাখ্যা
    করবঃ

    যেসব নারী বেঁচে থাকে বিয়ে করার জন্য,পড়ালেখা করে একজন ভালো জমাই পাবার জন্য,বিয়ের পর জামাইকে দেহ দিয়ে, সাংসারিক কিছু কাজ করে খাওয়া জুটায় তারাই পতিতা

    এখানে প্রচলিত অর্থতে যাদের পতিতা বলা হয় তাদের সাথে পার্থক্য হল তারা স্বীকার করে তারা পতিতা। আর এরা স্বীকার করেনা। জামাই হল এদের লাইফটাইম গ্রাহক। যদি পতিতাদের উচ্ছেদ করতে হয় তাহলে আগে এদের উচ্ছেদ করুন।

    এখানে আমার মতে প্রচলিত পতিতারা বেশী সম্মানের যোগ্য। তারা তো কিছু পারেনা দেখে এই কাজ করে। কিন্তু এরা???? হাহ। হাসি পায়

  4. আমাদের এই দেশের কিছু সন্তান নাকি তার মা বোন কে বাঁচানোর জন্য যুদ্ধ করেছিলেন । আর এই দেশেরই বুদ্ধিজীবীরা এখন সে মা বোন কেই আইনগত ভাবে বেশ্যা বানানোর জন্য গোল টেবিল বৈঠক করেন ।

    আসলে ঐরকম গোল টেবিলের বৈঠককারীদের লোকদের জানোয়ার বললে জানোয়ারদেরই অপমান করা হয় । জানোয়ার সদৃশ এমন বুদ্ধিবেশ্যা দিয়ে কোন দিনই সমাজ সংস্কার সম্ভব না ।

    চমৎকার যুক্তিপূর্ণ একটি পোষ্ট । ধন্যবাদ আপনাকে ।

  5. nolvadex and clomid prices

আপনার ই-মেইল ও নাম দিয়ে মন্তব্য করুন * viagra vs viagra plus

private dermatologist london accutane

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>

viagra en uk

Heads up! You are attempting to upload an invalid image. If saved, this image will not display with your comment.

metformin tablet
tome cytotec y solo sangro cuando orino
metformin synthesis wikipedia