স্মার্ট, তরমুজ ও ক্ষেত সমাচার

379

বার পঠিত venta de cialis en lima peru

বিছানায় আধাশোয়া হয়ে গতকালই কেনানতুন বইটা পড়ছিলাম।

‘সামির, এই সামির। এদিকে আয়। দেখকি এনেছি।’ বাবা ডাকছে।ডাক টা শুনতে খুবই ভালো লাগলো।

ঢাকায় মেস এ থেকে ভার্সিটিতে লেখাপড়া করি।বছরে দুই একবার বাড়িতে আসি। তাইএখানকার সব কিছুই তখন খুব ভালো লাগে।সব কিছুই কেমন স্নেহমাখা মনে হয়।

ঘর থেকে বের হয়ে দেখি উঠোনে বাবা দাড়ানো।সাথে বাড়ির কাজের ছেলেটা। দুই হাতে বিশালদুটো তরমুজ। একটা বিশেষ কারণে তরমুজ আমারখুব একটা পছন্দ না।

আমি সব সময়ই খুব আশা নিয়ে তরমুজ খাওয়া শুরুকরলেও কখনোই দুই-এক টুকরার বেশি খেতে পারি না।এটা রোগ নাকি বদ অভ্যাস তা জানি না।কিন্তু ছোটবেলা থেকে এ কারণেই তরমুজ আমারভালো লাগে না।যে ফল ইচ্ছে থাকলেও খাওয়া যায় না সেটার প্রতিআকৃষ্ট হবার কোন যৌক্তিকতা আছে কি?

‘দেখ কি এনেছি? তোর জন্য হাট থেকে সবচেয়ে বড়তরমুজ দুটো নিয়ে এসছি। রমিজ, যা তোর ভাই জানেরজন্য একটা তরমুজ কেটে আন।’

‘যাচ্ছি আব্বাজান’, বাবার কথা শুনে রমিজ তরমুজদুটো নিয়ে মার কাছে ছুট দিলো।

ছোটবেলা থেকেই আমাদের এখানে আছে রমিজ। তাইসেও এ পরিবারের একজন সদস্য হয়ে গেছে।

আমি এবার বাবার হাত থেকে ছাতা টা নিয়ে বললাম, ‘তুমি এই রোদের মধ্যে হাটে না গেলেও পারতে’ বাবা কাশতে কাশতে বলল, ‘এই এমনিই গেলাম। চল ঘরেযাই।’ বাবার হাপানী টা আবার বেড়েছে।

আমি বাড়িতে এলেই বাবা-মা ব্যস্ত হয়ে পড়ে।সেটা যে আমার যত্নের জন্যই-তা আমি ভালোই বুঝি।সব সময়ই বাবা এ কথাটাই বলে।মাঝে মাঝে তখন আমার একটু কষ্টও হয়।এ যেন এক অবুঝ টান।

বাবাকে নিয়ে বাইরের ঘরে সোফায় গিয়ে বসলাম। ‘ভাইজান নেন তরমুজ খান। দেখছেন পুরা টকটইক্যালাল আর চিনির মত মিষ্টি।’ তরমুজের বাটিটা তারসামনে রেখে এক নিশ্বাসে কথা গুলো বলল রমিজ।

‘আপনি খাইতে থাকেন। আমি যাই ছোট আপা আবারডাক দিবে…………..’ রমিজ কথা শেষ করতে পারলনা। তার আগেই চিৎকার ভেসে আসে, ‘রমিজ ভাই!রমিজ ভাই!! আমার তরমুজ কই??’

‘ঐ যে ডাকতেছে, আমি যাই’, রমিজ আবার চলে গেল।

আমি একটু চিন্তায় পড়ে গেলাম।সব কিছুই কেমন বদলে গেছে।বাড়ি-ঘর, সমাজ, পরিবেশ, চেনা মানুষগুলোসবই বদলে গেছে। মাঝে মাঝে চেনা মানুষ গুলোকেওআমার খুব অচেনা মনে হয়।

সাদিয়া, আমার একমাত্র ছোট বোন। একটু আগে, সাদিয়া-ই চিৎকার করে ডাকছিল রমিজ কে।ছোটবেলা থেকে সাদিয়া খুব চুপচাপ ধরনেরছিল। কখনও তাকে কেউ জোরে কথা বলতে শোনেনি।আমি নিজে ছোটবেলা থেকেই কমবেশি স্টাইল করে চলি।কিছুটা রূপ সচেতনতাও আমার মাঝে আছে।কিন্তু সাদিয়া সব সময়ই ছিল সাদা-সিদা ধরনের।সাদিয়াও তরমুজ পছন্দ করতো না।ও তরমুজের গন্ধও সহ্য করতে পারতো না।

সেই সাদিয়া কিনা চিৎকার করে ডাকছে!তাও আবার তরমুজ এর জন্য!!

সব কিছুই কেমন বদলে যাচ্ছে।ভাবতেই অবাক লাগছে।ব্যাপারটা একটু দেখা দরকার।

একটা টুকরা তরমুজ খেতে খেতে সাদিয়ার ঘরেরদিকে গেলাম।ঘরে ঢুকেই আমি সাদিয়াকে দেখে নিজের অজান্তেই একচিৎকার দিলাম। সাদিয়াও আমাকে দেখে চিৎকার দিল।

সাদিয়াকে জিজ্ঞেস করলাম, ‘কি ব্যাপার চিৎকার করছিসকেন?’ ‘তুই ই তো আগে চিৎকার দিলি!’ সাদিয়াও উত্তর দিল।

‘তুই মুখে তরমুজ মেখে এমন ভুত সেজেছিস, আমিতো ভয়ই পেয়েগিয়েছিলাম’, বলতেই সাদিয়ার পাশথেকে আওয়াজ এলো, ‘তরমুজ এর ফেস প্যাক স্কিন এর জন্য খুবইভালো। স্কিন এর রাফনেস, ডালনেস দূর হয়। আপনিওদিতে পারেন রমিজ ভাই আরো আনছে।’ দেখলাম দশ-বারো বছরের এক পিচ্চি মেয়ে। nolvadex and clomid prices

জিজ্ঞেস করলাম, ‘কে রে এইটা?’ ‘পাশের বাড়ির আন্টির মেয়ে। আমার সাথে ‘তরমুজপ্যাক’ মাখতে এসেছে।’ আশ্চর্য হয়ে বললাম, ‘বাড়িটাকে তো পুরা পার্লার বানিয়েফেলেছিস!’ ‘উফ্! তুই এখন যা তো ভাইয়া। বেশি কথা বললেআবার, এখন প্যাক ইউজ করতে প্রবলেম হবে। আরতুই এ গুলোর কি বুঝবি? কোনো দিন নিজের চেহারারযত্ন নিয়েছিস?’

পুরা বোকা হয়ে গেলাম।মনে হতে লাগল নিজের ‘চেহারার যত্ন না নেয়া’-টাইআমার জীবনের সবচেয়ে বড় ব্যর্থতা।

এর মাঝেই রমিজ এসে গেছে। হাতে এক বাটি ‘তরমুজ বাটা’। ‘ভাইজান দেখছেন, ছোটআপার জন্য তরমুজ কাটতেকাটতে আমি ক্লান্ত হয়ে গেলাম।’ cialis new c 100

আমি আস্তে আস্তে ঘর ছেড়ে বের হয়ে আসলাম।

একটু পরেই দেখি, সেই পিচ্চিটা মুখে ঐতিহাসিক ‘তরমুজ প্যাক’ মেখে, চোখে দুটো শশা দিয়েসোফায় উপুড় হয়ে শুয়ে আছে।

নিজের অজান্তেই একটা দীর্ঘশ্বাস বের হয়ে আসল।

সবারই উন্নতি হয়েছে।সবাই-ই স্মার্ট হয়ে গেল।শুধু আমি-ই ক্ষেত থেকে গেলাম।তরমুজ ক্ষেত

 

irbesartan hydrochlorothiazide 150 mg

You may also like...

  1. দুরন্ত জয় বলছেনঃ

    হাহাহা মামা অস্থির হইছে। তুই ও মাখ মানা করসে কে!! আমি এখন ডাল মাখি :-D :-D :-D

    আরও গল্প চাই তোর থেকে ……

    para que sirve el amoxil pediatrico
  2. অনুস্বার বলছেনঃ

    মেরে ফেল কেউ আমাকে… :-SS @-) @-) হইল কিছু এইটা? ~x( X-( [-X

আপনার ই-মেইল ও নাম দিয়ে মন্তব্য করুন *

Question   Razz  Sad   Evil  Exclaim  Smile  Redface  Biggrin  Surprised  Eek   Confused   Cool  LOL   Mad   Twisted  Rolleyes   Wink  Idea  Arrow  Neutral  Cry   Mr. Green

viagra vs viagra plus

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>

acquistare viagra in internet

Heads up! You are attempting to upload an invalid image. If saved, this image will not display with your comment.