একজন মালা বিক্রেতা

254

বার পঠিত

রাত সাড়ে বারোটা , এতো রাতে বাস অনেকটাই ফাকা থাকে । বাস নাকি আরও পনের মিনিট পর ছাড়বে । বাসের সামনের দিকের জানালার পাশের একটা সিট বেছে নিল জিবরান । আকাশটা আজ তারাময় , তারা দেখেই বোঝা যাচ্ছে আগামীকাল কাঠ ফাটা রোদ উঠবে । বাসের জানালা দিয়ে জিবরান তারাময় আকাশ দেখছে । আসলে সে ‘তারাময়’ শব্দটা নিয়ে চিন্তা করছে । এই শব্দটা তার পছন্দ হচ্ছে না । সে আরও ভালো একটা বিশেষণ খুঁজছে । পাশের সিটের শিশুসূলভ কন্ঠস্বরটি জিবরানের খোঁজাখুজিতে ব্যাঘাত ঘটাল । সে বাচ্চাটার দিকে তাকিয়ে অনুমান করল বাচ্চাটার বয়স বছর দশেকের বেশী হবে না । বাচ্চাটা আর আট দশটা বাচ্চার মতো না , সে একজন পথশিশু অথবা শিশু শ্রমিক । এরই মাঝে জিবরান আবার বাচ্চাটার কন্ঠস্বর শুনতে পেল ,

: ভাই , আপনেরে হেই কহনতে জিগাইতাসি , কয়ডা বাজে ।

- সরি , আমি খেয়াল করি নাই । সাড়ে বারোটা বাজে ।

: খেয়াল করলেন না কই ? কতোক্ষণ ধইরা ত আমার দিকেই ফ্যালফ্যালাইয়া চাইয়া আছেন ।

- ও আচ্ছা , সরি । তোর বয়স কতো রে ?

: নয় বচ্ছর । ক্যা , বয়স দিয়া কী করবেন ?

- কিছুই করব না । তুই এতো রাতে বাসে কী করিস ?

: মালা বেইচ্চা আইলাম । এহন বাইত যাই ।

- মালা কী ?

: আরে ভাই , ফুলের মালা চিনেন না ? রাস্তাঘাটে মাইনষে যে বেলী ফুল , বকুল ফুলের মালা বেচে দেহেন না ?

- ও আচ্ছা । এখন বুঝলাম । কিন্তু তুই এতো অল্প বয়সে মালা বিক্রি করিস কেন ? তাছাড়া বাচ্চাদের তো এতো রাত পর্যন্ত বাইরে থাকা ঠিক না ।

: ঐ মিয়া , মালা না বেচলে খামু কী ? আপনে আমারে খাওয়াইবেন ?

- তোর বাসায় কে কে আছে ?

: আগেই কইয়া দেই , বাপে মায়রে ছাইড়া গেসে গা । কিল্লিগা গেসে এডি আমি কইতারি না । মায় মাইনষের বাইত কাম করে । তাও সংসার চলে না । এল্লিগা আমি মালা বেচি ।

- ও আচ্ছা । কোথায় মালা বিক্রি করিস ?

: দয়াগঞ্জে । synthroid drug interactions calcium

- এতো দূরে কেন ? তুই থাকিস কোথায় ? doctorate of pharmacy online

: মিরপুরে থাহি । যারতে মালা কিনি , হ্যায় কইসে দয়াগঞ্জে বেচতে । can your doctor prescribe accutane

- বেচা কেনা কেমন ? লাভ হয় ?

: এহেকদিন এহেক রহম । তয় বেশী লাভ হয় না ।

- আচ্ছা । এই নে আমার মোবাইল নাম্বার । আগামীকাল সকাল নয়টায় আমাকে কল দিস । আমি তোর লাভের ব্যবস্থা করে দিবো । আমিও মিরপুরে থাকি । আমার নাম জিবরান ।

জিবরানের কথা শেষ না হতেই বাস মিরপুর এক নাম্বারে পৌছে গেল । বাচ্চা ছেলেটি বাস থেকে নেমে গেল । তবে নামার আগে আশ্বাস দিয়ে গেল আগামীকাল সে কল দিবে । জিবরান নামবে বার নাম্বারে । সে বাসের জানালা দিয়ে আবার আকাশ দেখায় মগ্ন হল । সে এখন মনে মনে ভাবছে , বাচ্চা ব্যবসায়ীর নামটা তো জানা হল না । এটা তো ঘোড় অন্যায় হয়ে গেল ।

পরদিন সকাল নয়টায় জিবরানের ঘুম ভাঙ্গল মোবাইলের রিংটোনের শব্দে । অপরিচিত নাম্বার থেকে কল এসেছে । জিবরান কল রিসিভ করার পর ঐ প্রান্ত থেকে আসল একটি শিশুর কন্ঠস্বর ,

: হ্যালো , জিবরান ভাই ?

- হ্যা , কে বলছেন ?

: আরে ভাই , আমি বাপ্পি ।

- কোন বাপ্পি ?

: আমারে চিনলেন না ? আমি মালা বাপ্পি ।

- মালা বাপ্পি আবার কেমন নাম ? তোমাকে কী আমি চিনি ?

: কাইলকা রাইতে না আপনে আপনের নাম্বার দিয়া কইলেন আপনেরে ফোন দিতে । আপনে আমার লাভের ব্যবস্থা করবেন ।

- ও আচ্ছা , রাতে তোর নাম জিজ্ঞেস করতে ভূলে গিয়েছিলাম । তাই চিনতে পারি নি । তুই এখন কোথায় আছিস ?

: আমি তো ভাই দয়াগঞ্জে আছি । মালা বেচতাসি । আপনে কই ?

- আমি বাসায় , ঘুমাচ্ছিলাম । তুই শাহবাগ জাদুঘরটা চিনিস ?

: হ ভাই , চিনি ।

- তুই জাদুঘরের গেইটের সামনে আয় । আমি আসতেসি ।

: ভাই , এহন তো ব্যবসার সময় । এহন শাহবাগে আইলে মালা বেচুম কেমনে ? আর মালা না বেচলে খামু কী ?

- আজকে তোর সব মালা আমি কিনব । তুই জাদুঘরের গেইটে আয় তো ।

: আইচ্ছা ভাই , আইতাসি ।

জিবরান জাদুঘরের গেইটের উল্টো দিকের একটা চায়ের দোকানে চা হাতে সিগারেট টানছে আর ভাবছে , বাপ্পির নাম বাপ্পি ‘মালা বাপ্পি’ বলল কেন ? বাপ্পি আসলে ওরে জিগ্যেস করতে হবে । তাছাড়া ও কল দিল কার মোবাইল দিয়ে এইটাও জিগ্যেস করতে হবে । এখন এগারটা বাজে , বাপ্পি এখনো আসছে না কেন ! জিবরান আরেক কাপ চায়ের অর্ডার দিল । সিগারেটটা ধরানোর সময় বাপ্পি চায়ের দোকানটার সামনে দিয়েই জাদুঘরের গেইটের দিকে গেল । জিবরান বাপ্পিকে ডাক দিলো ,

- বাপ্পি , এই বাপ্পি , এদিকে আয় ।

: আপনে যে আমারে শাহবাগে আনাইলেন , আমার ত ব্যবসায় লস হইল । হেই ট্যাহা কী আপনে দিবেন ? এম্তেও ত হরতালের ঠ্যালায় ব্যবসা ভালা চলতাসে না ।

- তুই চিন্তা করিস না । আজকে তোর সবগুলো মালা আমি কিনব ।

: আইচ্ছা , ঠিক আসে । আমার লাভের ব্যবস্থা করবেন ক্যাম্তে , হেইডা কন ।

- সেটা পরে বলব । তার আগে তুই বল , কার মোবাইল দিয়ে কল দিয়েছিলি ?

: লোডের দোহান আছে না । ঐ লোডের দোহানতে কল দিসিলাম । এক মিনিট কথা কইয়া দোকানদাররে আমার দুইডা ট্যাহা দিতে হইসে ।

- ও আচ্ছা । সমস্যা নেই । আমি তোর ঐ দুই টাকাও দিয়ে দিব । এখন আমার সাথে টিএসসিতে চল ।

: টিএসসি কী ?

- গেলেই দেখবি । আমি যা যা বলি তা মন দিয়ে শুনতে থাক । তুই শাহবাগ থেকে নিউমার্কেট পর্যন্ত ফুল বিক্রি করবি । মাঝে মাঝে সোহরাওয়ার্দিতেও ঢুকতে পারিস ।

: আইচ্ছা । কিন্তু ভাই , সোহরাওয়ার্দি আর নিউ মার্কেট কোন দিকে ?

- তোকে আমি সব চিনিয়ে দিব । এই যে ডানদিকের বিল্ডিংটা দেখছিস , এইটা চারুকলা । এর গেইটের সামনেও মালা বিক্রি করতে পারিস । আর বাদিক দিয়ে ঢুকলেই সোহরাওয়ার্দি উদ্যান । এইখানেও তোর ব্যবসা জমবে ভালো ।

: ভাই , উদ্যান কী ?

- উদ্যান মানে পার্ক ।

: ও আইচ্ছা । ভাই , সামনের ঐ মূর্তিডা কীয়ের ?

- ঐটা মূর্তি না । ঐটা ভাস্কর্য , রাজু ভাস্কর্য । তুই এখন অতো কিছু বুঝবি না । পড়ালেখা করলেই সব বুঝতে পারবি । শুধু এতটুকু জেনে রাখ , এই ভাস্কর্যের আশেপাশেই তুই মালা বিক্রি করবি । এইটাই টিএসসি । half a viagra didnt work

: ঠিক আসে ভাই । কিন্তু পড়ালেহার কথা যে কইলেন , হেইডা করনের সময় কই ?

- হবে , এখন সময় হবে । আগে তো তোর ব্যবসায় লাভ হতো না । তাই দেরী করে বাসায় ফিরতি । কিন্তু এখন এই টিএসসিতে তোর ব্যবসায় লাভ হবে । তাই সন্ধ্যায় বাসায় ফিরতে পারবি । কিন্তু বাসায় ফিরার আগে তোকে স্কুলে ক্লাস করে যেতে হবে ।

: কোন স্কুল ?

- তোর মতো যেসব শিশু সারাদিন তাদের কাজকর্মে ব্যাস্ত থাকে বা অর্থের অভাবে পড়াশুনা করতে পারে না । তাদের জন্যে আমার কিছু বন্ধুবান্ধব একটা স্কুল খুলেছে । সেই স্কুলে সন্ধ্যায় ক্লাস নেয়া হয় । এমনকি তারা কোন টাকা পয়সাও নেয় না , একদম ফ্রী । উল্টো ওরা প্রতিদিন তোদের মতো শিশুদের সন্ধ্যার নাস্তার ব্যবস্থা করে । কী , যাবি না স্কুলে ?

: স্কুলে তো যাইতে মন চায় । কিন্তু আমার ব্যবসার কী হইব ?

- আরে গাধা , কী বল্লাম তোকে ? এখন এখানে সন্ধ্যার আগেই তোর সব ফুলের মালা বিক্রী হয়ে যাবে । তারপর সন্ধ্যায় স্কুলে এক ঘন্টা ক্লাস করে বাসায় ফিরবি । বুঝা গেসে ? all possible side effects of prednisone

: যদি কোনদিন সন্ধ্যার আগে সব মালা বেচতে না পারি ?

- যেদিন এমন হবে সেদিন যেই মালাগুলো বিক্রি করতে পারবি না সেই সবগুলো মালা আমি কিনে নিব । এইবার খুশী ? capital coast resort and spa hotel cipro

: তাইলে ঠিক আছে । স্কুলে যামু ।

- হুম , মন দিয়ে পড়াশুনা করতে হবে কিন্তু ।

 

  can levitra and viagra be taken together

সেদিনই বাপ্পিকে আমাদের স্কুলে ভর্তী করে দিলাম । ছেলেটা খুবই পরিশ্রমী ছিল , পড়াশুনাতেও ভালো ছিল ।

 

- বাবা , তারপর বাপ্পি চাচ্চুর কী হল ?

: এরমধ্যেই হঠাত্‍ একদিন খবর পেলাম বাপ্পির মা মারা গেছে । ছেলেটার যাওয়ার কোন জায়গা নেই । ততোদিনে আমার সাথে তোর মায়ের বিয়ে হয়ে গেছে । আমি ভালো বেতনের চাকরিও করছিলাম । তাই আমি আর তোর মা ঠিক করলাম বাপ্পীকে আমাদের বাসায় নিয়ে আসব । ওকে ক্লাস ফাইভে ভর্তী করে দিব । যেই ভাবা , সেই কাজ । ছেলেটা ফাইভে বৃত্তি পেল , এইটে বৃত্তি পেল । এসএসসি , এইচএসসিতে গোল্ডেন পেল । কতো করে বললাম , বুয়েটে বা মেডিকেলে পরীক্ষা দে । না সে শুনবেই না । তার একটাই কথা , ‘জীবরান ভাই , আপনে চারুকলায় পড়সেন । আমিও চারুকলায় পড়মু ।’ আমিও আর বাধা দিলাম না ।

- বাবা , আমি ভেবেছিলাম বাপ্পি চাচ্চু তোমার ভাই ।

: শোন রিয়া , আমার কোন ভাই বোন ছিল না । মা বাবা ছিল না । আমার নানু আমাকে বড় করেছে । একদিন সেও চলে গেল । আমি চাই নি আরেকটি শিশু আমার তো একাকিত্বকে বরণ করে নেক । তাই আমি বাপ্পিকে আমার ভাই হিসেবে এই বাড়িতে নিয়ে এসেছিলাম । আটারবছর আগের সেই ‘মালা বাপ্পি’ আজকে বাংলাদেশ প্রথম সারির ফটোগ্রাফারদের মধ্যে একজন । আমি গর্বিত সে আমার ভাই । মা , তোকে আজকে এসব কথা বল্লাম কারণ , তুই প্রাপ্ত বয়স্ক হয়েছিস । তোর এসব জানা দরকার । আমি চাই না তুই কখনো বাপ্পিকে খাটো করে দেখ । সে তোর চাচ্চু এবং সে তোকে যথেষ্ট স্নেহ করে । আশা করি তুই তাকে সর্বদা সম্মান করবি ।

- আচ্ছা বাবা , তুমি এ নিয়ে কোন টেনশান করো না । তোমাকে একটা মজার ঘটনা বলি ? wirkung viagra oder cialis

: বল ।

- চাচ্চুর গার্লফ্রেন্ড আছে । আমি আর মা মেয়ে দেখেছি । মেয়ে আমাদের পছন্দ হয়েছে । চাচ্চু সম্ভবত লজ্জায় কিছু বলতে পারছে না । তুমি চাচ্চুর সাথে কথা বলে বিয়ে দেয়ার ব্যবস্থা করো ।

: তাই নাকি ? তোর চাচ্চু কোথায় ? ডাক দে দেখি । বাপ্পি , এই বাপ্পি ।

- বাবা , চাচ্চু বাসায় নেই ।

: ও আচ্ছা । ও বাসায় আসলে ওকে বলিস আমার সাথে দেখা করতে । clomid over the counter

- আচ্ছা বলব ।

: মা , এখন তুই যা ।

 

জিবরান আপন মনেই ভাবছে । সে বাপ্পিকে চিনে বাপ্পির বয়স যখন নয় বছর তখন থেকে । আজকে বাপ্পির বয়স ত্রীশ ছুই ছুই করছে । জিবরান কখনো ভাগ্যকে বিশ্বাস করে না । তবে আজ তার খুব ইচ্ছে করছে ভাগ্যকে বিশ্বাস করতে । কারণ তার ধারণা বাপ্পির জন্যে তার ভাগ্যের পরিবর্তন ঘটেছে । এই ভাবনাটা আরো প্রকট হয় যখন জিবরান বাপ্পির সাথে তার জীবনের প্রতিটি টার্নিং পয়েন্টের যোগসূত্র খুঁজে পায় ।

 

বাপ্পির সাথে দেখা হওয়ার পরেই জিবরান চাকরিটা পেয়ে যায় । বাপ্পির সুবাদেই সেই পথশিশুদের স্কুলে জিবরানের সাথে পরিচয় হয় সেজুতির । এরপর জিবরান সেজুতিকেই বিয়ে করে ঘরে তুলল । বাপ্পির মা মারা যাওয়ার পর বাপ্পি জিবরানদের বাড়িতে এসে উঠল । আর তখনই জিবরান সুসংবাদটা পেল যে , সেজুতি মা হতে যাচ্ছে । কিছুদিন পরেই ঘর আলোকিত করে জন্ম নিল রিয়া । জিবরান মনে মনে হাসছে , কারণ বাপ্পির সাথে পরিচয় হওয়ার আগের অতীতটা ছিল তার জন্যে বিষাদময় । তবে গত বিশ বছরের স্মৃতিগুলো বড়ই মধুর । হঠাত্‍ বাপ্পির ডাকে কল্পনার জগতে ফিরে আসল জিবরান ।

 

- ভাই , আমারে নাকি ডাকসেন ? buy kamagra oral jelly paypal uk

: হ্যা , শুনলাম ইদানিং প্রেম ট্রেম করছিস । metformin tablet

- ভাই , এইসব আপনেরে কে কইসে ?

: তোর ভাবি আর ভাতিজি মেয়ে পছন্দ করেছে । একদিন বাসায় নিয়ে আসিস । আর মেয়ের বাড়ির ঠিকানাটা আমাকে দিস । এখন যা ।

- ঠিক আসে ভাই , দিমু নে ।

 

এই ছেলেটা বড়ই অদ্ভুত । সে আমার সাথে তর্ক করেছে মাত্র একবার । তাও সেটা তার চারুকলায় ভর্তী নিয়ে । এর আগে বা পরে কখনোই সে আমার সাথে তর্কে জড়ায় নি । এমনকি আমার চোখের দিকেও কখনো তাকায় না । ছেলেটা খুব বেশী সহজ সরল । একদিন ওকে বলতে হবে , ‘তুই তো আমার ভাই । এতো সংকোচ কিসের ?’ জিবরান আবার মনে মনে হাসছে । কারণ সে জানে তার সামনে বাপ্পি সবসময় নিজেকে গুটিয়ে রাখবে । একটা সময় ছিল , যখন জিবরানও নিজে গুটিয়ে রাখত ।

You may also like...

  1. অংকুর বলছেনঃ

    গল্পটা অনেক ভালো লাগল ভাই । আপনাকে অনেক ধন্যবাদ । :-bd :-bd :-bd :-bd :-bd

  2. :bz :bz :bz :bz :bz :bz :bz :bz :bz :bz @};- @};- @};- @};- @};- @};- @};-

  3. দুরন্ত জয় বলছেনঃ

    খুব ভাল লেগেছে গল্পটা খুব ভাল লেগেছে……

  4. kamagra pastillas

আপনার ই-মেইল ও নাম দিয়ে মন্তব্য করুন *

Question   Razz  Sad   Evil  Exclaim  Smile  Redface  Biggrin  Surprised  Eek   Confused   Cool  LOL   Mad   Twisted  Rolleyes   Wink  Idea  Arrow  Neutral  Cry   Mr. Green

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>

Heads up! You are attempting to upload an invalid image. If saved, this image will not display with your comment.

renal scan mag3 with lasix
about cialis tablets