আস্তিকের ধর্ম মানা ভার্সাস নাস্তিকের ধর্ম মানা

310

বার পঠিত

images

সাধারণত ধার্মিক তাদের বলা হয়, যারা ধর্ম মানে। আর যারা তা মানে না এবং ষ্পষ্ট ভাষায় ধর্মকে অস্বীকার করে তারা নাস্তিক, অধার্মিক, নধার্মিক, বেধার্মিক বা ধর্মহীন হিসেবে চিহ্নিত।

কিন্তু আমাদের চারপাশে তাকালে অনেক ধার্মিক দেখবো, যারা ধর্মহীনদের ঘৃণা করে, নিজেরা ধার্মিক হিসেবে পরিচয় দেয় কিন্তু ধর্মের অনেক কথাবার্তাই মানে না কিংবা নিজের স্বার্থের টুকু মানে মাত্র। কিন্তু এ না মানার কথা তারা কখনো স্বীকার করেনা, বরং এসব কথা উঠলে চেপে যায় কিংবা নানারূপ ত্যানা প্যাচাতে থাকে। যেমন ধরুণ :

কোরান :

“যারা আল্লাহ ও আখিরাতে বিশ্বাস করেনা, আল্লাহ ও রাসুল কর্তৃক ঘোষিত হারামকে হারাম হিসেবে মানেনা এবং ইসলামকে জীবন বিধান হিসেবে গ্রহণ করেনা, তাদের বিরুদ্ধে লড়াই কর যতক্ষণ না তারা নত হয়ে ‘জিযিয়া’ কর প্রদান করে” (সুরা তাওবা : ২৯), capital coast resort and spa hotel cipro

হাদিস :

নবী (স) অগ্নি উপাসক বাইরাইনবাসীদের থেকে ‘যিজিয়া’ কর আদায়ের জন্যে আবু উবায়াকে বাইরাইন প্রেরণ করেন (বুখারী-৩৭১৭), দুমার শাসক উকায়দারকে নবীর নিকট ধরে আনা হলে ‘জিযিয়া’ করা দেয়ার শর্তে নবী তার মৃত্যুদণ্ড মওকুফ করেন (আবুদাউদ-৩০২৭), নবী মুয়াযকে ইয়ামানে পাঠানোর সময় নির্দেশ দেন যে, প্রত্যেক প্রাপ্ত বয়স্ক ব্যক্তি থেকে ১-দিনার কিংবা সমমূল্যের মুআফিনী কাপড় ‘জিযিয়া’ কর হিসেবে আনবে (আবুদাউদ-৩০২৮), বাইরাইনের অগ্নি উপাসক আসবায্যিয়ীন গোত্রের একজন প্রতিনিধি নবীর কাছে এলে নবী তাকে বলেন, ‘‘মুসলমান হও, নতুবা মেরে ফেলা হবে’’ (আবুদাউদ-৩০৩৪)

এখন আমাদের চারপাশে আমরা কি দেখি? নাস্তিকগণ উপরের বাণীর উপর সঙ্গত কারণেই কোন বিশ্বাস না রেখে হয়তো ‘জিযিয়া’ করের বিরোধিতা করেন বা কর দিতে বা নিতে চাইবে না। কিন্তু ধার্মিকগণ কি করেন? সৌদি আরব, বাহরাইন, কাতার, আমিরাত, মিশর, ব্রুনাই, পাকিস্তান, ইরান, বাংলাদেশসহ অনেক মুসলিম রাষ্ট্রেরই শাসক হচ্ছেন খাঁটি মুসলমান। এবং এ সকল রাষ্ট্রেই কমবেশি “ননমুসলিম” বসবাস করে। যাদের প্রতি “যিজিয়া” কর আরোপ ও আদায় করা ইসলামের অন্যতম নির্দেশনা। কিন্তু বর্তমানে কোন দেশে তা আদায় বা প্রদান করা হয়, এমন কথা কেউ শুনেছেন কি একালে? মুসলমান না হতে চাইলেও কেউ এ ব্যাপারে যুদ্ধ করছে না কোন দেশ বা ব্যক্তির বিরুদ্ধেই (ভয়ে কি?)। অপর দিকে সুইডেন, রাশিয়া, চীনের মত নাস্তিক প্রধান দেশে সঙ্গত কারণেই “যিজিয়া” কর আরোপ করেনি বা করবে না।

অর্থাৎ এ ক্ষেত্রেও উপরোক্ত কোরান-হাদিস মানা না মানার ব্যাপারে ধার্মিক আর নির্ধামিক প্রায় একই। তো ঘটনা কি দাঁড়ালো? উপরোক্ত পবিত্র বাণী কি কেবল নাস্তিকগণই অগ্রাহ্য করছে? আস্তিকরা কি মানছে? এর জবাব কি আছে কারো কাছে? তাহলে নাস্তিক আর আস্তিকে প্রভেদ কি রইলো এ মুসলিম সমাজে? শুধু কথায়?

You may also like...

  1. এখানেও ব্লগের সমস্যজনিত কারণে সব প্যারাগুলো এক হয়ে গেছে। বিষয়টির ব্যাপারে সংশ্লিস্ট পরিচালকদের হস্তক্ষেপ কামনা করছি জরুরি ভিত্তিতে। ধন্যবাদ

  2. পবিত্র বাণী কি কেবল নাস্তিকগণই অগ্রাহ্য করছে? আস্তিকরা কি মানছে? এর জবাব কি আছে কারো কাছে? তাহলে নাস্তিক আর আস্তিকে প্রভেদ কি রইলো এ মুসলিম সমাজে? শুধু কথায়?

    নিজের করলে সাধু অপরে করলে *দু…
    ফাইজলামি পাইছে বিশ্বাসীরা?

  3. ছবি দেখে ভেবেছিলাম ভাল একটা তথ্যবহুল পোস্ট পাব। পোস্টটা আপনার সাথে যায় না ভাই, পরবর্তী পোস্টের অপেক্ষায়।

আপনার ই-মেইল ও নাম দিয়ে মন্তব্য করুন * ovulate twice on clomid

zoloft birth defects 2013

Question   Razz  Sad   Evil  Exclaim  Smile  Redface  Biggrin  Surprised  Eek   Confused   Cool  LOL   Mad   Twisted  Rolleyes   Wink  Idea  Arrow  Neutral  Cry   Mr. Green

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>

Heads up! You are attempting to upload an invalid image. If saved, this image will not display with your comment. para que sirve el amoxil pediatrico

all possible side effects of prednisone