Category: চলচ্চিত্র পর্যালোচনা

capital coast resort and spa hotel cipro
private dermatologist london accutane

ভীনগ্রহের দানব এবং একটি পরিবারের গল্প

কথা বললে কিংবা কোনো শব্দ করলেই ভীনগ্রহের কিছু অন্ধ দানব সেই শব্দ অনুসরণ করে আসবে এবং সব লণ্ডভণ্ড করে ফেলবে । বাঁচতে হলে বলা যাবে না কোনো কথা , করা যাবে না কোনো শব্দ । যোগাযোগের জন্য শুধুমাত্র ইশারা আর সাংকেতিক ভাষার আশ্রয় নিতে হবে । এভাবেই বিলীন হয়ে গেছে পৃথিবীর প্রায় সব প্রাণী , টিকে আছে শুধু একটি পরিবার যেখানে মা এভলিন একজন ডাক্তার এবং বাবা লি একজন প্রকৌশলী । সেই পরিবারের বড় মেয়ে রেগান মূকবধির । এজন্য উদ্ভুত সমস্যার গুরুত্ব বুঝতে পারে না সে । সেকারণেই শহর ছেড়ে যাবার পথে ছোট্ট একটি ভুলে দানবের হাতে প্রাণ দিতে হয়...

সানজুঃ এক পাপীর জাস্টিফিকেশন

বলিউডের অটোবায়োগ্রাফি সিনেমাগুলোর মধ্যে একটি রীতি চলে এসেছে , যেটি হলো ‘জাস্টিফিকেশন’ । সমালোচিত যেকোনো মানুষকে নিয়ে সিনেমা বানানো হবে আর সেই সিনেমায় মানুষটিকে অনেকাংশেই পুতঃপবিত্র হিসেবে প্রমাণের চেষ্টা করা হবে । ইমরান হাশমি অভিনীত আযহারের পর সানজুও তেমন একটি জাস্টিফিকেশন । পুরো সিনেমাজুড়ে সঞ্জয় দত্তকে একজন ভালো ব্যক্তি এবং পরিস্থিতির শিকার একজন অসহায় মানুষ হিসেবে উপস্থাপন করা হয়েছে । সঙ্গদোষে মাদক সেবন আর তিনশ’র অধিক নারীর সাথে রাত কাটানো ছাড়া আর কোনো অপরাধেই তাকে দোষী বলা যাবে না । এক মহৎ কারণে সাথে একে-৫৬ রাইফেল রাখা , নিজেকে বাঁচাতে আন্ডারওয়ার্ল্ডের ডনের সাথে বন্ধুত্ব , জেল না খাটার প্রস্তাব পেয়েও...

about cialis tablets

মানঝি- দ্যা মাউন্টেইন

    কোন এক বাংলা ছায়াছবির গানে নায়ক অমিত হাসান একবার গেয়েছিল, “আমি পাথরে ফুল ফোটাবো, শুধু ভালোবাসা দিয়ে!” সিরিয়াসলি??  যাই হউক, প্রেম ভালোবাসা নিয়ে এমন ঔদ্ধতপূর্ণ বা অবাস্তব বাক্য বিনিময় কেবল ছায়াছবিতেই সম্ভব। কথায় আছে ছিঃনেমার গরু সর্বদায় গাছে চড়িতে সক্ষম। ছিঃনেমার এরকম জানা অজানা অসংখ্য বাক্য বা ডাইলগ আমাদের মত সাধারন মানুষদের কাছে প্রেম ভালোবাসাকে এক প্রকার মিশন ইম্পসিবল এর পর্যায় নিয়ে গেছে। আর আমাদের এই সাধারণ কাতারের বাইরে যে বা যাহারা এই ইম্পসিবল কে পসিবল করেছে তাহারা এক একজন শ্রেফ টম ক্রুজ! তাদেরকে আন্তরিকভাবে অভিনন্দন। প্রেম- ভালোবাসার প্রশ্নে বা উদাহরণে বরাবরই কয়েকটি পরিচিত নাম; এই যেমন লইলি-...

acne doxycycline dosage

A Beautiful Mind– অন্তর্মুখী এক দানব কিংবা শ্বাশত ভালোবাসার গল্প…

১৯৪৭ সাল। Princeton University এর গনিতশাস্ত্রের নতুন শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে গনিত বিভাগের চেয়ারম্যান যখন প্রেরনাদায়ী বক্তব্য রাখছিলেন তাদের জন মোর্স কিংবা আলবার্ট আইনস্টাইন হবার আহ্বান জানাচ্ছিলেন, তিনি হয়তোবা জানতেনও না, হলরুমের এক কোনায় চুপচাপ বসে থাকা সোনালি চুলো ছেলেটা একদিন সবাইকে চমকে দেবে, বিস্ময়ে করবে বাকহারা। আসলে কেই বা ভাবতে পেরেছিল? সবার কাছ থেকে আলাদা একলা চুপচাপ থাকা John Nash এর গনিতশাস্ত্রের সম্মানজনক বৃত্তি Carnegie Scholarship পাওয়াটাই ছিল এক অদ্ভুত বিস্ময়।কেননা একই স্কলারশিপ পাওয়া Martin Hansen ততদিনে মোটামুটি একজন বিখ্যাত মানুষ। নাজি সাইফার আর নন-লিনিয়ার ইকুয়েশনের উপর দু দুটো থিওরি আবিস্কার করে হ্যানসেন তখন লাইমলাইটে। সে তুলনায় জন ন্যাশ পুরোপুরি অপরিচিত।...

zovirax vs. valtrex vs. famvir

Artificial Intilligence(AI) – একজন অক্ষম সন্তান ও এক নীলপরীর গল্প..

২১ শতকের শেষ দিকে পৃথিবী ক্রমেই মানুষের বসবাসের অনুপযুক্ত হয়ে পড়ে।ফলাফল মানব প্রজাতিকে টিকিয়ে রাখার স্বার্থে এক নতুন মডেলের অত্যাধুনিক সকল কাজে পারদর্শী রোবট তৈরি করা হয়। তারই ধারাবাহিকতায় পরীক্ষামূলকভাবে ডেভিড নামের এক ছোট্ট যন্ত্রমানবকে পাঠানো হয় হেনরি ও মনিকার সংসারে। উদ্দেশ্য নিরাময়অযোগ্য এক রোগে আক্রান্ত মারটিন(হেনরি ও মনিকার সন্তান) এর স্থানপুরন। কিন্তু প্রশ্ন হল একটা যন্ত্র কিভাবে সন্তানের অভাব পূরণ করবে? ডেভিডকে দেওয়া হয়েছিল এক অত্যাশ্চর্য ক্ষমতা… আপনজনকে প্রচণ্ড ভালবাসার ক্ষমতা এবং প্রিয় মানুষের জন্য প্রয়োজনে স্রোতের বিরুদ্ধে দাড়িয়ে একা লড়াই করার ক্ষমতা কেবল যে মানুষেরই আছে…   বিপত্তিটা বাধে তখন যখন মারটিন ফিরে আসে। মায়ের কোলে সন্তানের ফিরে...

ইন্ডিয়াস ডটার রিভিউঃ প্রেক্ষিত বাংলাদেশ

সম্প্রতি বিবিসির প্রযোজনায় নির্মিত “ইন্ডিয়াস ডটার” ডকুমেন্টারিটি দেখলাম। ২০১২ সালে দিল্লীর আলোচিত ধর্ষণ কান্ড নিয়ে নির্মিত ছবি এটি। ফিকশন, ডকুমেন্টারি মিলিয়ে জীবনে কম সিনেমা দেখিনি। কিন্ত বলতে বাধ্য হচ্ছি আর কোন সিনেমা এতটা “শকিং” অনুভূতি তৈরী করেনি যতটা না  তৈরী করেছে এই ছবিটি। ব্রিটিশ পরিচালক লেসলি উডউইন বেশ দক্ষতার সঙ্গেই সেদিনের ঘটনা প্রবাহ ও  ঘটনার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন ব্যক্তির বক্তব্যকে তুলে ধরেছেন। ভারতবর্ষে সংখ্যা গরিষ্ঠ পুরুষের মানসিকতা , নারী্র প্রতি দৃষ্টিভঙ্গিকে মুন্সিয়ানার  সঙ্গে তুলে ধরার জন্য পরিচালকেরও কৃতিত্ব  প্রাপ্য। এটি এমনই এক  ছবি যা প্রত্যেক ভারতীয়র  দেখা বাধ্যতামূলক করা উচিত অথচ বিস্ময়কর ভাবে ভারত  সরকার ইতমধ্যেই তাদের দেশে ছবিটির  প্রচার...

ovulate twice on clomid
levitra 20mg nebenwirkungen

মিরপুর-দ্যা লাস্ট ব্যাটেলফিল্ড…

অস্কার পুরস্কার বিতরণী মঞ্চ। উপস্থাপকের দিকে সবার দৃষ্টি নিবদ্ধ, টানটান উত্তেজনায় শ্বাসরুদ্ধকর অবস্থা। উপস্থাপকের ঠোঁটে রহস্যের হাসি। শেষ পর্যন্ত সেরা চলচ্চিত্রের নাম ঘোষিত হল, মনোনয়ন পাওয়া গুণী পরিচালকদের বিশ্বসেরা সব চলচ্চিত্রকে পেছনে ফেলে সকলের বিস্ফোরিত দৃষ্টির সামনে শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র হিসেবে ঘোষিত হল Mirpur-The Last Battlefield এর নাম। বিস্ময়ের তখনো বাকি ছিল। সেরা স্ক্রিপ্ট, সেরা সিনেমাটোগ্রাফিসহ আরো ছয়টি বিভাগে অস্কার জিতলো মুভিটা, এর মধ্যে সেরা পরিচালকও ছিল। হালকাপাতলা মানুষটা উঠে দাঁড়ালেন, একটু আগে সেরা পরিচালক হিসেবে তার নাম ঘোষিত হয়েছে, মঞ্চে যেতে হবে। ধীর পায়ে এগিয়ে যাচ্ছেন মানুষটা, বুদ্ধিদীপ্ত চোখ দুটোয় চিকচিক করছে গর্বমাখা আনন্দ, বাংলাদেশের প্রথম অস্কারজয়ী পরিচালক, জহির রায়হান…...

metformin tablet

দীপ নেভার আগে…

চোখের সানগ্লাস, ঠোঁটে সিগারেট, হাতে স্টেনগান– আধুনিক মডেলের একটা গাড়ি থেকে নেমেই মুহূর্তের মধ্যে নীরবে পজিশন নিল ওরা। রাজপুত্রের মত চেহারা আর স্টাইলিশ বেশভূষা দেখে বোঝার উপায় নাই কি ভয়ংকর তারছিঁড়া পোলাপান এরা, ঢাকা শহরটা পাকিস্তান সেনাবাহিনীর জন্য একেবারে নরক বানায়ে তুলছিল এই বাচ্চা ছেলেগুলো। তারছিঁড়া ক্র্যাক পোলাপান ছিল সব, অসামান্য দুঃসাহসী সব কর্মকাণ্ড দেখে দুই নম্বরের সেক্টরের সেক্টর কমান্ডার খালেদ মোশাররফ বললেন, দিজ আর অল ক্র্যাক পিপল। তখন থেকেই এই ছোট্ট দলটার নাম ক্র্যাক প্লাটুন… পাকিস্তান সেনাবাহিনী তখন সাক্ষাৎ যমদূত, সারা দেশে লাখ লাখ নিরীহ মানুষকে বিনা কারনে অবলীলায় গুলি করে মেরে ফেলতেছে ওরা। একটা পিঁপড়াকে যেমন বিনা কারনে...

ইনগ্লোরিয়াস বাস্টার্ডস এবং কিছু আক্ষেপের গল্প

ইনগ্লোরিয়াস বাস্টার্ডস দেখছিলাম। জার্মান নাৎসি বাহিনীর নৃশংসতম বর্বরতার শিকার হওয়া কিছু মানুষের গল্প। তাদের যন্ত্রণার গল্প, উঠে দাড়াবার গল্প, প্রতিরোধের গল্প, প্রতিশোধের গল্প… ২য় বিশ্বযুদ্ধের সময় ফ্রান্সের ইহুদী নিধন চলছে। একটা ইহুদী পরিবার ফ্রেঞ্চ প্রতিবেশীর বাড়িতে আশ্রয় নিল প্রান বাঁচাবার জন্য। কিন্তু জার্মান এসএস বাহিনীর কর্নেল হ্যান্স লিন্ডার শকুনে দৃষ্টি তাদের ঠিকই খুঁজে বের করে, নির্বিচার গণহত্যা থেকে বেঁচে যায় কেবল তাদের কিশোরী মেয়েটা, পালিয়ে যায় অকল্পনীয় যন্ত্রণা বুকে নিয়ে… এদিকে জার্মান গেস্টাপো বাহিনীর অমানুষিক অত্যাচারের শিকার হওয়া ছয়জন ইহুদিকে নিয়ে এক আমেরিকান লেফট্যানেন্ট গড়ে তোলে একটা ছোট্ট দল। যে দলটার প্রধান এবং একমাত্র লক্ষ্য হল নাৎসি হত্যা, নৃশংস ও...

পিঁপড়াবিদ্যা- পিপীলিকার পাখা গজায় মরিবার তরে…

গল্পের শুরুটা খুব সাদামাটা। একটা মধ্যবিত্ত পরিবার। কর্মজীবন শেষে বাবা অবসরে চলে যাওয়া বাবার স্থলাভিষিক্ত হবার জন্য, সংসারের হাল ধরবার জন্য পুত্রের একের পর এক জুতোক্ষয়, কিন্তু চাকরি নামের সোনার হরিন রয়ে যায় অধরাই। নাহ, একটু ভুল বলা হল। যে চাকরির সুযোগ সে পাচ্ছে, তার শিক্ষাগত যোগ্যতা তাকে সে চাকরি করতে দিচ্ছে না। এদিকে বোনের পড়ালেখা বন্ধ হবার উপক্রম প্রায়। এরইমাঝে সুখকল্পনা গুলো খুব বেরসিকের মত হানা দেয় বারবার। একটা ভালো চাকরি, শহুরে স্মার্ট একটা মেয়ের সঙ্গ, দামী একটা গাড়িতে চড়ে লং ড্রাইভ- মিঠুর নিজেকে বড়ই স্বার্থপর মনে হয়। কল্পনার নাগাল সে পায় না, কল্পনাগুলো যেন এক একটা রসগোল্লা, আর...

The Boy In The Striped Pajamas

যুদ্ধ যে কত মর্মান্তিক আর হৃদয়বিদারক হতে পারে , সেটা না দেখলে অনুভব করা যায় না । John Boyne এর একই শিরোনামে রচিত উপন্যাসের উপর নির্মিত এক ঘণ্টা চৌত্রিশ মিনিটের চলচিত্রটি চলচিত্রবোদ্ধা কিংবা সাধারণ দর্শকের কাছে ইতোমধ্যে একটি মাস্টারপিস হিসেবে পরিচিত । দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের আশ্চর্য ভীতিকর সময়ের পটভূমিতে নির্মিত এই চলচিত্রে ফুটে উঠেছে আট বছর বয়সী দুই বালকের কালজয়ী বন্ধুত্ব। ঘৃণা ভালোবাসা নৃশংসতা- সব মিলিয়ে সদ্য কৈশোরে পা দেয়া এক বালকের বর্ণনায় অসাধারণ এক চিত্রায়ন The Boy In The Striped Pajamas The Boy In The Striped Pajamas চলচিত্রটি ব্রুনো নামে এক বালকের গল্প দিয়ে শুরু হয় । পরিচিত বার্লিন শহর...

মুভি রিভিউ-Singhum Returns এবং বাংলাদেশ

সচরাচর হিন্দী মুভিগুলোতে কোন কাহিনী থাকেনা। শুধু বিনোদন থাকে। কিন্তু কিছু কিছু মুভিতে অনেক গুরুত্বপূর্ণ জিনিস ফুটে উঠে। রোহিত শিট্টি বরাবরই একজন কমেডি ফিল্ম ডিরেক্টর হিসেবে পরিচিত। সম্প্রতি তার একটি ছবি রিলিজ পেয়েছে। “সিঙ্ঘাম রিটার্নস। আমি সচরাচর হিন্দী মুভি নিয়ে বেশি কথাবার্তা বলতে পছন্দ করিনা। কিন্তু এই মুভিটি দেখে আমার বাংলাদেশের প্রেক্ষাপট মনে পড়ে গেল তাই বলছি। আমি বিস্তারিত কিছু বলব না। শুধু প্রেক্ষাপটটা বলব। এখানে মূখ্য চরিত্র একজন পুলিশ অফিসার। তিনি অত্যন্ত সাহসী এবং ভাল মনের মানুষ। শুরুতেই দেখা যায় কিছু বখাটে ছেলে বাইক নিয়ে বেহাল্লাপনা করে বেড়ায় এবং একজন ট্রাফিক সার্জনের সাথে বেয়াদবি করে। সেই সার্জন সেই অফিসারটির...

হেমলক সোসাইটি- মরবে মরো, ছড়িয়ো না…

তুই চিরদিন তোর দরজা খুলে থাকিস – অবাধ আনাগোনার হিসেব কেন রাখিস? সাক্ষাৎ আলাদীন তোর প্রদীপ ভরা জ্বিনে – কেন খুঁজতে যাস আমায় সাজানো ম্যাগাজিনে? সিদ্ধার্থ রায়  এর মোহনীয় কণ্ঠের জাদুতে অন্য এক জগতে হারিয়ে গিয়েছিল মেঘনা। হঠাৎ করেই ফোন এল তার এক বান্ধবী ইরা’র। ফোনটা না ধরলেই বোধহয় ভালো হত। কেননা কলটা রিসিভ করার কিছুক্ষন পরেই সে খুব অদ্ভুত  বিস্ময়ে হঠাৎ খেয়াল করল, বারের ওপাশে তার বাগদত্তা প্রিয়তম খুব আবিষ্ট ভঙ্গিমায় ভালোবাসার চিহ্ন এঁকে দিচ্ছে আরেকটি তরুণীর ওধরে। হুট করে মায়ের চলে যাবার পর যাকে আশ্রয় করে বেঁচে ছিল মেঘনা, চৌদ্দ বছরের পুরনো সম্পর্ক যার সাথে,এভাবে সে নিতান্তই অপরিচিত হয়ে...

“পথের পাঁচালীর” সেই ছোট্ট অপুর পাঁচালী !

(কভার ফটো অফ অপুর পাঁচালি, ২০১৪) ঘটনা সম্ভবত ২০১০ কি ১১ সালের,  ঠিক মনে করতে পারছিনা; এই সময় আমি একটি মুভি দেখি “ফরেস্ট গাম্প”। এই ফরেস্ট কে নিয়ে নতুন করে কোন কিছু না বলাটাই বোধহয় বুদ্ধিমানের কাজ হবে। তাই আর না বলি; তবে হ্যাঁ মুভিটি শেষ হবার পর আমি অনেকটা নিস্তব্ধ হয়ে কিছু সময় মনিটরের স্ক্রিনে তাকিয়ে ছিলাম। আর খুব আফসোস হচ্ছিল। কেননা এই মুভি মুক্তি পেয়েছিল ১৯৯৪ সালে আর আমি গাধা মুভিটি দেখলাম ২০১০ এ এসে!! হয়তবা, ওটাই পারফেক্ট সময় ছিল। জীবনের ডেফিনেশন জানতে হয়তবা কিছু সময় দিতে হয় বা লাগে। ঐ যে শিরোনামহীন তাদের জাহাজিতে গেয়েছিল, “বুঝতে কিছু...

‘অসম্ভবকে সম্ভব করাই অনন্তর কাজ’

 বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম এর ‘সেঁজুতি শোণিমা নদী’ উক্ত শিরোনামের এই চমৎকার পোস্ট সবার সাথে শেয়ার না করে পারলাম না।   অনন্তর চলচ্চিত্রের আঙ্গিক, অভিনয়, উচ্চারণ সবকিছু নিয়েই সমালোচনা থাকতে পারে, কিন্তু ম্যাড়ম্যাড়ে ঢাকাই ছবিতে একটা ‘চকচকে’ ভাব নিয়ে আসেন তিনি। ইন্ডাস্ট্রির বেহাল দশার মধ্যেও বিশাল বিনিয়োগ করে একের পর এক ছবি বানানোর সাহসটাও তিনিই দেখিয়েছেন। বিশেষ ধরনের কাহিনিবিস্তারে আর সংলাপ প্রক্ষেপণের ‘গুণে’ অনন্তর ছবি বিরতিহীন বিনোদনের খোরাক যোগায়। আর সে-কারণেই, ঈদে মুক্তি পাওয়া ‘মোস্ট ওয়েলকাম টু’ নিয়েও প্রত্যাশার পারদ ছিল উঁচুতে। প্রায় পৌনে তিন ঘণ্টার সিনেমা দেখার পর বলতে হচ্ছে, সেই প্রত্যাশার প্রতি সুবিচার করতে পারেননি তিনি। বিরক্তির কারণ অনেকগুলোই।...

Escape Plan (2013) মুভির রিভিউ

Escape Plan (2013) Action | Mystery | Thriller Director: Mikael HåfströmWriters: Miles Chapman , Jason KellerStars: Sylvester Stallone, Arnold Schwarzenegger Imdb Ratings: 7.8 /10 http://www.imdb.com/title/tt1211956/Rottentomatoes Ratings: http://www.rottentomatoes.com/m/escape_plan/ জেল  এটা কোন ভাল মানুষের জন্য থাকার স্থান না এটা আমরা সবাই জানি। দেশে কোন না কোন অপরাধ করলে তাকে জেলে যেতে হবেই আর সাজা পূরণ না হওয়া পর্যন্ত কেউ সেখান থেকে বের হতে পারে না। তবুও কিছু চালাক কয়েদী আছে যারা বিভিন্ন উপায়ে বের হওয়ার সুযোগ ঠিকই খুজে নেয় এবং জেলের থেকে পালিয়ে যায়। Ray Breslin বিএনসিসি সিকিউরিটি সংস্থাতে কাজ করে। এদের কাজ হল মেকসিমাম সিকিউরিটি ওলা জেলগুলোর সফলার খুদ বের করা,...

Red Riding Hood (2011) মুভির রিভিউ

Red Riding Hood (2011)Fantasy | Horror | Mystery Director: Catherine HardwickeWriter: David JohnsonStars: Amanda Seyfried, Lukas Haas, Gary OldmanImdb Ratings: 5.4 /10 http://www.imdb.com/title/tt1486185/Rottentomatoes Ratings: http://www.rottentomatoes.com/m/girl_with_the_red_riding_hood/ আমরা সবাই ছোটবেলাতে একটি গল্প শুনেছি, সেটা হল একটা বাচ্চা মেয়ে যেকিনা প্রতিদিন লাল রঙ্গের জামা পড়ে তার নানীর জন্য খাবার নিয়ে যেত, আর সে গল্পে একটা নেকড়েও ছিল যে সে বাচ্চাটাকে খাওয়ার চেষ্টা করত। এখন আমরা আর ছোট নেই সেজন্য এমন কাহিনী আমাদের আর ভাল লাগবে না তবে এ গল্পে যদি কিছু রোমান্টিক আর কিছু একশন আসে তবে এটা আমাদের জন্য প্রযোজ হবে। এক গণ জঙ্গলের ভিতরে ছোট একটা গ্রাম। সে গ্রামে ভালেরি নামে...

Rain Man– একজন অনবদ্য ও অসাধারণ বৃষ্টি মানবের গল্প…

Charlie Babbitt লসএঞ্জেলেস এর একজন car dealer। ল্যাম্বর গিনি গাড়ির এক কন্ট্রাক্টের মাঝখানে হঠাৎ এক সমস্যায় যখন তার কন্ট্রাক্ট প্রায় ভেস্তে যাবার পথে, তখন সমস্যাটার সমাধানের জন্য তার পাম স্প্রিঙে যাবার প্রয়োজন হয়। যাত্রা শুরু করার ঠিক আগ মুহূর্তে হঠাৎ তার শয্যাশায়ী পিতার আকস্মিক মৃত্যু সংবাদ তাকে ট্যুর বাতিলে বাধ্য করে। বাবার শেষকৃতের অনুষ্ঠানে এসে সে হঠাৎ জানতে পারে তার জীবনের সবচেয়ে আজব এক অধ্যায়ের কথা।   তার বাবার আরেকটি সন্তান ছিল। অটিজমে আক্রান্ত তার এই ভাইয়ের কথা সে কোনদিন জানতে পারেনি। আজ তার বাবার মৃত্যুর পর চার্লস জানতে পারল Raymond Babbitt নামের তার সেই ভাইকে যে মানসিক হাসপাতালে রাখা...

জাতিস্মর– জন্মজন্মান্তরের আক্ষেপমাখা অনন্তবিস্তারী এক ভালোবাসার গল্প…

  প্রথম আলোয় ফেরা, আঁধার পেরিয়ে এসে আমি অচেনা নদীর স্রোতে চেনা চেনা ঘাট দেখে নামি… চেনা তবু চেনা নয়, এভাবেই স্রোত বয়ে যায় খোদার কসম জান, আমি ভালোবেসেছি তোমায়..  রোহিতের জন্ম গুজরাটে হলেও তার শিক্ষা-দীক্ষা বড় হওয়া সবই কলকাতায়। কিন্তু আফসোসের ব্যাপার হল, কলকাতায় এতদিন থেকেও সে বাঙলা ভাষাটা রপ্ত করতে পারল না। বাঙলা ভাষায় তার দৌড় বড়ই শোচনীয়। ভাঙ্গা ভাঙ্গা তিন চারটে বাঙলা শব্দ সে জানে বটে, কিন্তু সেগুলোর ব্যবহার করতে গিয়েই বাধে বিপত্তি। ভুল জায়গায় ভুল শব্দ ব্যবহার করে ভয়ংকর রকমের বেকায়দায় পড়ে যায় সে। মহামায়াকে খুব ভালো লাগে তার, কিন্তু ভালোবাসার কথা তাকে বলতে গিয়েই আবার সেই ভাষাগত বিপত্তি।...

বাইশে শ্রাবণ- অপ্রয়োজনীয় কিছু খুন এবং হাংরি বিদ্রোহের এক সৈনিকের গল্প…

হাজার বছর ধরে আমি পথ হাঁটিতেছি পৃথিবীর পথে,সিংহল সমুদ্র থেকে নিশীথের অন্ধকারে মালয় সাগরে অনেক ঘুরেছি আমি;বিম্বিসার অশোকের ধূসর জগতে সেখানে ছিলাম আমি;আরো দূর অন্ধকারে বিদর্ভ নগরে; গভীর ঘুমে ডুবে থাকা কলকাতা শহরের ফুটপাথ ধরে হেটে যাচ্ছে এক ক্লান্ত-শ্রান্ত নিশিকন্যা ,ব্যাকগ্র্যাউন্ডে আবৃতি হচ্ছে জীবনানন্দের বনলতা সেন। হঠাৎ সে খুন হয়ে গেলো। শুধু সেই নয়, একে একে খুন হয়ে গেলো ৪ জন।তোলপাড় শুরু হল পুলিশ ডিপার্টমেন্টে। খুনের কোন ক্লু নেই, মোটিভ নেই।শুধু লাশের পাশে ষাটের দশকে চরমভাবে সমালোচিত হাংরি আন্দোলনের কবিদের লেখা কবিতার একটা করে চিরকুট পাওয়া যেতে লাগলো। কলকাতা পুলিশের তদন্ত বিভাগের রগচটে চৌকস কর্মকর্তা অভিজিৎ যখন বহু চেষ্টায়ও কোন...

half a viagra didnt work