Author: ইলেকট্রন রিটার্নস

এক চুমুক ইতিহাস

জ্বী আপু! এইতো, এইদিকে। একটু ডানে ঘুরে সবুজ সাদার এই দোকানে। এই যে দেখুন এই জামাটা টকটকে লোহিত রঙা জরি চুমকির লন। কি বললেন? হ্যাঁ, এটা অবশ্যই থ্রিপিস। উপরে দুই পিস নিচে এক পিস-একাত্তুরে ক্ষতবিক্ষত। এই যে দেখুন, পোয়াতি বধুর নাড়িভুড়িতে আঁকা কি সুন্দর নকশী ডিজাইন। বেয়নেটে খুবলে যাওয়া মাংসের মত চুমকি। ছিন্ন ভিন্ন চুলে সিলাই করা টেকসই এক থ্রিপিস। পাবেন কোথাও? লাল রঙটা এতটা কালচে কেন? একাত্তুরের রক্ত! শুকিয়ে গেছে যে আপু! কত সুন্দর কান্নার রঙ এই পোশাকে। ভারী কান্না, চাপা কান্না, ভীত কান্না, লাল নীল কষ্টের মত বায়বীয় ধূসর কান্না, অপমানের কান্না, কান্না আর কান্না। ধর্ষিত কান্না। জানেন...

দৈনন্দিন কর্মকান্ডে বিজ্ঞান (পর্ব ১)

দৈনন্দিন জীবনে বিজ্ঞানের প্রয়োজনীয়তা আমাদের সবারই জানা আছে। বইতে প্রতিনিয়তই পরি, আর অবনত মস্তকে স্বীকার করে নিই, বিজ্ঞান আমাদের এসব দিয়েছে, বিজ্ঞান ঐসব দিয়েছে! বস্তুত, বিজ্ঞান একটি উন্মুক্ত জ্ঞান। আমরা যে কেউই চিন্তা করতে বের করতে পারি বিভিন্ন কম্বিনেশান। বেসিক জ্ঞান কাজে লাগিয়ে আমরা কিছু বানাতে না পারি, অন্তত কিছু থিয়োরি সহজেই দিতে পারি! অনুরূপ কথা গণিতের ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য! জাস্ট কিছু ক্রিয়েটিভিটি কাজে লাগাতে পারি যেকোনো সময়। আজ তেমনই কিছু আলোচনা থাকছে। স্বয়ংক্রিয় চার্জারঃ যদি বলি, আমি এমন একটা যন্ত্র বানাবো যেটা বিদ্যুৎ ছাড়াই আজীবন নিজে নিজে চার্জ হবে। ভাবছেনয সৌর শক্তি? না! তাহলে ভাবছেন, জেনারেটর? না! আমার তেল কিনার টাকা... thuoc viagra cho nam

metformin synthesis wikipedia

বিদ্রোহী কবি নজরুল ; একটি বুলেট কিংবা কবিতার উপাখ্যান

এই পৃথিবীতে যুগে যুগে এসেছেন আলোকদ্যুতি ছড়ানো মহামানবরা। সভ্যতার আগ্রযাত্রায় তাঁরা রথ সারথি হয়ে গেয়ে গেছেন মানব মুক্তির জয়গান। আমি একটি সুন্দর পৃথিবী দেখতে পাই চারিদিকে। আর দেখতে পাই আবেগের বন্ধনে আবদ্ধ এক ঝাঁক দ্বিপদ মেরুদন্ডী মানব গোষ্ঠি। এদের মাঝে কেউ কেউ কালকে উত্তীর্ণ করেন। কেউ কেউ হয়ে পড়েন সকল সমাজের সকল কালের। কেউ কেউ যুদ্ধ করেন এক হাতে বাঁকা বাঁশের বাঁশরী আর হাতে রণ তূর্য নিয়ে। কেউ গোপন পিয়ার চকিত চাহনী ছল করে দেখা অনুখনে-অজুহাতে কালবৈশাখী হয়ে ধ্বংস করে দেন অন্যায়ের বার্লিন দেয়াল কিংবা সাম্রাজ্যবাদের মহাপ্রাচীর। কেউ কেউ বিদ্রোহী ভৃগু হয়ে ভগবান বুকে পদচিহ্ন এঁকে দেন। আবার তিনিই জাহান্নামের... posologie prednisolone 20mg zentiva

আমি কিংবদন্তীর কথা বলছি; আমি রিচার্ড ফাইনম্যানের কথা বলছি…

পৃথিবীর ইতিহাসে যুগে যুগে আবির্ভূত হয়েছেন অনেক জ্ঞান তাপস। তাঁরা মেধাশক্তির ছড়ি ঘুরিয়ে পৃথিবীর সভ্যতার বিচ্ছুরন ঘটিয়েছেন সারা মহাবিশ্বে। তাঁদের অক্লান্ত পরিশ্রমেই মানুষ আজ হয়ে উঠেছে এই মহাবিশ্বের সবচেয়ে আলোচিতএবং স্বঘোষিত সম্রাট। যুগে যুগে মানুষের এই সাহসের সঞ্চরন ঘটিয়েছেন মহামনীষীরা। তাঁদের মাঝেই একজন স্যার রিচার্ড ফাইনম্যান। বিংশ শতাব্দীর পদার্থবিজ্ঞানের অন্যতম পুরোধা, আইনস্টাইনের যোগ্য উত্তরসূরি এবংনিঃসন্দেহে এক মহামানব। নানারূপ কুসংস্কারকে পাশ কাটিয়ে যারা শৈশব থেকেই নিজেকে গড়ে তুলেছেন আধুনিক বিজ্ঞানের প্রতিভারূপে তাঁদের মাঝে রিচার্ড ফাইনম্যানের নাম চলে আসে সর্বাগ্রে। পান্ডুলিপির শুরুতেই আমি আমার আলোচ্য বিষয়গুলো বর্ণনার প্রয়োজনে প্রারম্ভিকার শ্রাদ্ধ করছি এখানেই। আজ স্যার রিচার্ড ফাইনম্যানের জন্মদিনঃ১৯১৮সালের ১১ মে নিউ ইয়র্কে জন্মগ্রহণ...

বৃষ্টির দিনের শেষ কদম ফুল (ডাইন ১)

এইবার কিছুটা বিরক্তি লাগছে। মহা এক শক্তিধরের পাল্লায় পড়েছি। শক্তিধরের নামটা খুব শক্ত। এর চেয়েও বেশি ভয়ঙ্কর তার ধ্বংসযজ্ঞ। কিন্তু আমিও কম যাচ্ছিনা। পথ ঘাট, গাড়ি বাড়ি সব উড়িয়ে দিচ্ছি সমানে। কিন্তু থামানো যাচ্ছেনা দুষ্টুটাকে। একসময় দুষ্টুটা আমাকে জাপটে ধরলো। ধরেই এক আছাড়! আমি আছাড়ের তোড়ে পৃথিবীর পরিধি ছাড়িয়ে কেন্দ্রের দিকে ঢুকে গেলাম। কিন্তু আমিও কম না। চেস্টা করছি প্রতিকণা মার শতগুন বর্ধিত করে দুষ্টুটাকে কাবু করতে। প্রায় একঘন্টা ধরেই চেস্টা করে যাচ্ছি। কিন্তু লাভে খাতায় শূন্য। তবে আমার একটা প্লাস পয়েন্ট আছে। আমি মরে গেলেও আবার বেঁচে উঠতে পারি। কিন্তু দুষ্টুটার এই ক্ষমতা নেই। সে একবার মরে গেলেই শেষ!...