Author: হুমায়ুন রনি।

গল্পটি কাল্পনিক

(এক) গত তিনটি দিন ধরে বেগম জিয়া একই দুঃস্বপ্ন দেখছেন। বড় ভয়ংকর দুঃস্বপ্ন। দেখার মাঝামাঝিতে তাঁর ঘুম ভেঙ্গে যায়। ভেঙ্গে যায় বল্লে ভুল হবে। প্রবল যাতনা নিয়ে সে জেগে উঠে। ঘামে ভিজে যায় তার দামী স্লিপিং গাউন। সাইড টেবিলি ঢেকে রাখা পানির গ্লাস নিয়ে ঢকঢক করে পানি পান করেন। দুঃস্বপ্ন দেখলে দু’রাকাত নফল নামাজ পড়া ভাল। উনি তাই করেন। উঠে চুলের খোপা ঠিক করে জামা বদলে ওজু করেন। নামাজ শেষে মুনাজাতে কি করে জানি তাঁর ছোট ছেলের জন্য প্রার্থনা চলে আসে, হে পরোয়ার দিগার আমার এই ছোট ছেলের কবরের আযাব তুমি মাফ করে দাও! তিনি একটা জিনিস লক্ষ্য করেছেন ভয়াবহ...

achat viagra cialis france

ডেসফ্রুরাটা ফিয়াস্তে

#১ মিরান্ডা ডি এব্রো স্পেনের সীমান্তের কাছাকাছি একটি শহর। মাদ্রিদ থেকে ৪৮০ কিমি দূরে। সমুদ্র উপকূলীয় সিটি। ফলে নির্জন আর শান্ত। সমুদ্রের গর্জন চলে আসে শহরের রাজপথে। ট্রাফিক নেই, সংবাদ হওয়ার মত নিউজ নেই। চুপচাপ আর কোমল এ শহরের মানুষগুলো। আহাদ অবশ্য এ শহরের আসতেই চায়নি। মাদ্রিদ ছেড়ে কে আসতে চায় এ মফস্বলে? ফেঞ্চ বস স্ট্রেইট জানিয়ে দিল, ব্যক্তিগত জিনিসপত্র নিয়ে অফিসটা তবে ছেড়ে দাও। মাইনেটা বেশ রিচ। তাই তল্পিতল্পা সহ সমুদ্র-ঘেষা এ শহরে চলে আসা। ছেড়ে আসার পর প্রথম দিকে মাদ্রিদের কোলাহল তাকে টেনেছে। প্রতিদিন বিষন্নতায় মুষড়ে পড়েছে। মাসখানের ভিতর সব ইজি হয়ে গেছে। বেঁচে থাকতে টাকা লাগে। গার্ল... nolvadex and clomid prices

viagra in india medical stores
amiloride hydrochlorothiazide effets secondaires

একটি অন্যরকম গল্প

১ ভালবাসাটা কি সত্যি আমি তা জানিনা। কখনো কখনো মনেহয় অদ্ভুত এক মায়ার নাম ভালবাসা। তীব্র এক টান, সীমাহীন ব্যাকুলতা, এক ঘোর লাগা শেষ রাতের মিষ্টি স্বপ্ন যেন। আবার কখনো মনেহয় ভালবাসা এক স্যাঁতস্যাঁতে অতীত। এক গুমোট কষ্ট, চারপাশে বিরহ, শরতের আকাশে মেঘটিকে দেখায় প্রিয় মানুষের মুখের আদল যেন। ভালবাসাটা কি সত্যি আমি তা জানিনা, সত্যি না। ছেলেবেলায় মায়ের আঁচল ধরে ঘুরতাম, আঁচলের ঘ্রানে তীব্র এক ভালবাসা মিশে থাকতো। স্কুল থেকে ফিরে হয়তো মাকে পাইনি, বুকটার ভিতর এক হাহাকার সৃষ্টি হয়েছে। এই হাহাকারটুকু থেকে তৈরী হতো নিরব কান্নার রোল, বুকের জমিনে খেলে যেত বানের জল। মা যখন ফিরে আসতো কি...

ফিরে আসা

ফিরে আসা ১. সকালে পিয়নটা চিঠিটা দিয়ে গেল। জোয়ার্দারের বিদ্যার জোর খুব বেশী নয়। নবম শ্রেণী পর্যন্ত। ইংরেজী সে ভালো বুঝেনা। খাম খুলে বহুকষ্টে চিঠিটা সে পড়তে শুরু করলো। ডিভোর্স লিখাটা বেশ ক’বার লিখা। জোয়ার্দারের বুঝতে অসুবিধা রইলো না এইটে একটা ডিভোর্স লেটার এবং তার মেয়ে কুড়ি দিন হলো যে বাসায় চলে এসেছে তার হেতু। পিয়নের হাত থেকে চিঠিটা নেয়ার সময় এসে সাইন করে দিয়ে সে চলে গেছে। তাহলে মেয়ে কি জানতো কি হতে চলেছে? সে মেয়ের মা তারা বেগমকে ডাকে। তারা বেগম হেসেল ঘরে। ডালে বাগার দিচ্ছিলো। ওখান থেকেই চেঁচিয়ে জবাব দেয়, কি হইছে কও? জোয়ার্দারের মেজাজ দ্বিগুন গরম... will metformin help me lose weight fast

tome cytotec y solo sangro cuando orino

শহুরে দীর্ঘশ্বাস

অফিস থেকে ফিরেই মোস্তবা তার ছেলেকে কোলে নিয়ে থাকে। ছেলের গায়ের ঘ্রান নিতে ভাল লাগে। তার ছেলের বয়স এগারো মাস। ছেলে যখন বাব্বা বাব্বা করে মা’কে আংগুল উঁচিয়ে ইশারা করে মা মা করে তখন মোস্তবা বুঝে নেয় মা তাকে মেরেছে। তখন সে ছেলের ফুঁলে উঠা ঠোঁটে চুমু খায়। ঝুমুরকে খুব বকে দেয়, তুমি আমার ছেলেকে আজ সারা দিন কয়বার মারছো, শুনি? এইটুকু একটা ছেলে তোমার মারতে কষ্ট হয়না? মায়া লাগেনা? ঝুমুর তখন কোমরে আঁচল গুজে রান্না ঘরের দিকে হাঁটা ধরে। দুধ গরম করতে হবে। বাবুর সন্ধা-খাবারের সময় হয়েছে। মোস্তবা পিছন পিছন হাটে। রান্না ঘরের দরজায় গিয়ে দাঁড়ায়, কথা বলছো না...

বিষন্নতার শহরে(২য় অধ্যায়)

সায়রা বেগম শুয়ে আছেন। ইদানিং বুকের ব্যথাটা সামান্য বেড়েছে। তিনবেলা রুটি খাওয়ার ফলে কি বুকের ব্যথাটা বাড়ছে? একটা সময়ের পর শুধু বেঁচে থাকার জন্য বেঁচে থাকে মানুষ। সময় তার গতিতে ছুটে যায়। দিন আসে রাত যায়। মানুষ হয়তো স্রষ্টার কাছে নিজেকে সপে দিতে গিয়ে নিজেকে নিজের কাছে সপে দেয়। মিলি ঢুকে দেখলো মা ঘর অন্ধকার করে শুয়ে আছে। হাত বাড়িয়ে লাইট অন করলো মিলি। সায়রা বেগম চোখ মেলে তাকালেন। দেখলেন মিলি বিছানায় উঠে আসছেন। তার এই মেয়েটা বড় লক্ষ্মী হয়েছে। তাঁর শাশুড়ীর মত দেখতে সুন্দরী আর খুব মিশুক। সবার সাথে সহজেই মিশে যায়। বড় ভয় হয় সায়রা বেগমের। মেজো মেয়ের...

একটি গুজব

অত্যন্ত গোপন সুত্রে জানা গেছে নারায়ণগন্জ প্যানেল মেয়র নজরুল ইসলাম এবং আইনজীবী এডভোকেট চন্দন সাহা সহ সাত খুনের প্রধান আসামী নাসিকের ৪নং ওয়ার্ড কমিশনার নূর হোসেন ইন্ডিয়ার সীমান্ত রক্ষী বাহিনীর কাছে ধরা পড়েছেন। একদল গো-পালের মধ্য পলায়ণরত অবস্হায় ইন্ডিয়ান এক জওয়ানের চোখে ধরা পড়েন তিনি। তাৎক্ষনিকভাবে তাকে সীমান্তবর্তী ক্যাম্পে নিয়ে চলে জিজ্ঞাসাবাদঃ কমান্ডারঃ ক্যাঁয়া নাম হ্যায়? নু হোঃ নুর হোসেন, সাব। হামার নাম নুর হোসেন। কমান্ডারঃ বাপ কা নাম ক্যাঁয়া হ্যায়? নু হোঃ সামিম য়ুসমান। কমান্ডারঃ ক্যাঁয়া? নু হোঃ সামিম য়ুসমান… আল্লার কিড়া লাগে! কমান্ডারঃ ত্যারা গ্রান্ড ফাদার কা নাম কিয়া হ্যায়? নু হোসেন পাশের সেকেন্ড অফিসারের দিকে তাকায়। সেঃ...

সাপ্তাহিক ধর্ষন

অল্প কিছু টাকা হলেই হয়ে যায়। আর দরকার সামান্য কিছু ক্ষমতাসম্পন্ন একজন মানুষ। একটা পত্রিকা বের করতে চাই। সাপ্তাহিক পত্রিকা। সাপ্তাহিক ধর্ষন। আঁতকে উঠলেন? ভয় পেলেন? আরে ভাই ভয় পাবার কোন দরকার নাই। জাষ্ট লিসেন মাই প্লান। এক জীবনে টাকার কোন বিকল্প নাই। হোক সেটা কাল টাকা। খ্যাতিরও কোন বিকল্প নাই। হোক সেটা কুখ্যাতি। আপনি জানেন কি পরিমান বিকারগ্রস্হ মানুষ এই দেশে ছেয়ে গেছে? শুধুমাত্র তাদের জন্য প্রতিটি জাতীয় দৈনিক অত্যন্ত রসিয়ে রসিয়ে ধর্ষন নিউজগুলো পত্রিকায় ছাপানোর মহান ব্যবস্হা গ্রহন করেন। কোথায় কবে কেন কতজন মিলে কোন মেয়ে ধর্ষন করেছে তার বিস্তারিত সংবাদ, আহাহা, কি শিহরণ, কি শিহরণ! আমরা পুরো... all possible side effects of prednisone

বিষন্নতার শহরে(১ম)

সোবাহান সাহেব কে তা মজিদ জানেনা। জানার কথাও নয়। আজ সকালে নাসরুদ্দিন সাহেব যখন জুতোর বাক্সের সাইজের একটা প্যাকেট সুদৃশ্য শপিং ব্যাগে করে তাকে দিল তা দেখে মজিদ খানিকটা হতবাকই হল। সে রাজ্যের বিরক্তি নিয়ে বললো, কি এটা? নাসিরুদ্দিন সাহেব ধমকে উঠলেন, তুমি তা জাইন্না কি করবা? এই নাও এই কাগজটা ধর। ঠিকানা লিখা আছে। এই প্যাকেটটা সোবাহান সাহেবরে দিয়া আসো। মজিদ কিছু বলে না। এখন কিছু বললেই বাবা খেপবে। সাত সকালে ভদ্রলোক খেপিয়ে লাভ নাই। ভাড়া কত দিমু? মজিদ তার বাবার দিকে তাকায়। মুখের খোঁচা খোঁচা দাড়ি চুলকে বলে, দেন, সিএনজি ভাড়া দেন। সিএনজিতেই যাইতে হবে এমন তো কথা...

ফোনালাপ, টকশো এবং পাকা ফল তত্ত

আলোচিত ” নাঃগন্জ সেভেন মার্ডার” নিয়ে জনাব শামীম ওসমানের সঙ্গে যে কথাগুলো আমার হয়েছিলঃ আমিঃ ভাই আপ্নে আমার বাপ। আমি শিক্ষিত্ গাধা। আপনি আমারে বিবাহ করায় দেন। বয়স তো কম হল না! শামীম ওসমানঃ তুমি গৌরি সেনের সাথে দেখা করো। আমিঃ কি সব কালা মাইয়া দেখায়। আমার মায়েতো কালা মাইয়া পছন্দ করে না। শামিম ওসমানঃ মিয়া, ধরা পড়লেই তো ফাঁসিতে ঝুলাইবো। এহন কালা- ফর্সা খুঁইজো না। ফরজ কামটা সাইজ করো। সামর্থবান পুরুষ বিবাহ না করে মরলে শেষে আম-ছালা দুইডাই খোয়াইবা! #সময় টিভির টক শোতেশামীম ওসমান – শামীম ওসমানঃ হ্যাঁ, ওটা আমারই কন্ঠস্বর। ছেলেডা সামর্থবান। বিবাহর বয়স পার অইতাছে। আমার একটা...

walgreens pharmacy technician application online
buy kamagra oral jelly paypal uk
can levitra and viagra be taken together
side effects of quitting prednisone cold turkey