Author: ডন মাইকেল কর্লিওনি

The Fall— একটা ভাঙ্গা স্বপ্ন ও এক কল্পনার ফেরিওয়ালার গল্প… 

  গল্পের শুরু ১৮১৫ সালে লস এঞ্জেলসে এক মুভি Stuntman এর ভয়াবহ পাগলাটে এক লাফ দিয়ে। রয় ওয়াকার নামে এই ভদ্রলোক Stuntman হিসেবে তার জীবনের প্রথম মুভিতে রেল ব্রিজ হতে এক অকল্পনীয় লাফ দিয়ে নিজেকে প্রায় পঙ্গু করে ফেলে হাসপাতালে ভর্তি হন। আর কমলালেবুর বাগানে কমলা তুলতে গিয়ে হাত ভেঙ্গে ফেলা আলেকজান্দ্রিয়া নামে এক ছোট্ট পরীও ভর্তি হয় ঐ হাসপাতালে। এক সকালে সে তার প্রিয় নার্সকে চরকা কাটা এক কাগজে ছোট্ট একটা চিঠি লেখে। দুই তলার বারান্দা দিয়ে বাইরে দাঁড়ানো নার্সকে পাঠানো তার সেই চিঠি দিক হারিয়ে গিয়ে পড়ে নিচের তলায় ফ্ল্যাট হয়ে শুয়ে থাকা রয়ের কোলে। চিঠি আনতে যখন...

কষ্ট নেবে, কষ্ট…

প্রিয়তমা, কষ্টের সওদাগরের কাছে ভালোবাসার ডালি নিয়ে এসেছিলে, চাইনি অন্তত তোমাকে দেয়া বরুনডালায় কষ্ট মেশানো থাক… আমার উষ্ণ অভিবাদনে তোমার হাসিমাখা আনন্দ দেখে ভেবেছিলাম যাক পৃথিবীতে অন্তত একটা মানুষকে যন্ত্রণামুক্ত ভালোবাসা দিতে পেরেছি, অন্তত একজনের কাছে আমার ভালোবাসাটা যন্ত্রণার উপাখ্যান হয়ে ধরা দেয়নি। হঠাৎ করেই দেখি তুমি নীল হয়ে যাচ্ছ… মুহূর্তমাঝে তোমার হাসিমুখ ছেয়ে গেল নীলচে কালো যন্ত্রণার মেঘে… হতবাক হয়ে হঠাৎ বুঝলাম তোমায় দেয়া ভালোনবাসার বরুনডালা আসলে অসীম যন্ত্রণায় সাজানো অসাধারন কিছু কষ্ট… অভাবিত যন্ত্রণার অসামান্য পরিচর্যায় যা বহুদিন ধরে জমেছে হৃদয়ের ঠিক মাঝখানে… সুনিপুনতায়, সুচারুরূপে… একজন কষ্টের সওদাগরের কাছে তুমি ভালোবাসা চাইতে এসেছিলে, তুমি কি জানতে না, তার...

মোহাম্মদ আশরাফুল- এক বিস্ময়ের নাম, এক প্রানপ্রিয় ভালোবাসার নাম, এক বিশ্বাসঘাতকের নাম…

বেশ কয়েকদিন আগে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ(বিপিএল)য়ে ম্যাচ ফিক্সিংয়ের দায়ে আমাদের ক্রিকেট ইতিহাসের অন্যতম সেরা প্রতিভাবান ব্যাটসম্যান, একসময়ের বিস্ময় বালক    মোহাম্মদ আশরাফুলকে আট বছরের জন্য নিষিদ্ধ করা হল। অনেককেই দেখছি তার এই শাস্তি প্রত্যাহারের ব্যাপারে সোচ্চার হতে। অনেকেই বলার চেষ্টা করছেন আশরাফুলের নাকি এখানে কোন দোষ নেই। তাকে নাকি বলির পাঁঠা বানানো হয়েছে। তার শাস্তি প্রত্যাহারের দাবিতে করা মানববন্ধনে অনেকে এটাও বলার চেষ্টা করেছেন, মোহাম্মদ আশরাফুল সম্পূর্ণ নির্দোষ, তাকে নাকি  ফিক্সিংয়ে বাধ্য করা হয়েছে !! এখন প্রশ্ন হল  মোহাম্মদ আশরাফুল আসলে ম্যাচ ফিক্সিংয়ের নামে কি করেছেন? তার অপরাধ কি আদৌ শাস্তি পাবার মত? তাকে শাস্তি দেওয়াটা কি ভুল হইছে? নাকি...

যন্ত্র হবার ইতিকথা…

যন্ত্র হয়ে যাবার আগে আমি মানুষ ছিলাম। একটা মানুষের মত উপলব্ধি করতে পারতাম সব মানবীয় অনুভূতিগুলো… হাসি-কান্না, আনন্দ-বেদনা, কষ্ট আর সুখের অনুভূতিগুলো আমাকেও ছুয়ে যেত আর দশজনের মতই… কিন্তু কে জানত, ধীরে ধীরে আমি বিবর্তিত হয়ে যাচ্ছি। বিবর্তন হয়ে যাচ্ছে আমার ভেতরের সকল আবেগ-অনুভূতিগুলো… প্রিয়তমা পরিনয় বন্ধনে আবদ্ধ হতে যাচ্ছে, পেতে যাচ্ছে আরেকজনের ভালোবাসা প্রযোজিত চমৎকার এক জীবন। কথাটা যেদিন প্রথম শুনেছিলাম, সেদিনও আমি মানুষ ছিলাম… তাই যদিও প্রিয়তমার অনন্তবিস্তৃত ভালবাসা ধূসর হতে হতে হারিয়ে যাচ্ছিল লীন আঁধারে, আর সেই ভালোবাসাকে ফিরিয়ে আনবার সকল অধিকার আমি হারিয়েছিলাম অনেক আগেই… কিন্তু তবুও একটা সাধারণ মানুষের মত, অতি সাধারণ আবেগে আমার অব্যক্ত...

levitra 20mg nebenwirkungen

কিছু অসমসাহসী বাঙ্গালী আর এক অদ্ভুত পাগলের গল্প…

ছেলেটা খুব অবাক হত। খুব ছোটবেলার থেকেই, যখন থেকে ক্রিকেট নামের খেলাটা সে বুঝতে শিখেছে, তখন থেকেই সে দেখে আসছে, তার আত্মীয়স্বজন, বন্ধুবান্ধব, কাজিন কিংবা মহল্লার বড়ভাইয়েরা সবাই ক্রিকেট খেলার প্রসঙ্গ উঠলেই কেন যেন ভারত কিংবা পাকিস্তানকে নিয়ে যুদ্ধ শুরু করে দেয়। কোন দল সেরা তা নিয়ে যুক্তি-পাল্টাযুক্তিতে মারামারি লেগে যাবার উপক্রম হয়। ছেলেটা যতদূর জানে তাদের দেশের নাম বাংলাদেশ, ভারত কিংবা পাকিস্তান নয়। সুতরাং বাংলাদেশের কথা কেউ না বলে কেন অন্যদেশ নিয়ে এতো আলোচনা-সমালোচনা, সেটা তার ৬-৭ বছর বয়সী ব্রেনে ঢুকত না। বিশেষ করে ভারত আর পাকিস্তানি খেলোয়াড়দের নিয়ে এতো উৎসাহ আর মাতামাতি দেখে তার মনে হত তাদের কি... metformin tablet

ভালবাসার এপিটাফ…

জানো প্রিয়তমা, আমি আজকাল খুব চমৎকার অভিনয় পারি। এমন অভিনব অভিনয় তুমি হয়তো কোনদিন দেখোনি সারাটাদিন প্রয়োজনীয় ও অপ্রয়োজনীয় নানা কাজে ব্যস্ত থাকার সুনিপুন অভিনয়ে পালিয়ে থাকতে পারছি আমার মনের আদালত থেকে; কিভাবে যেন তোমাকে আমার অভিশপ্ত ছায়া থেকে বাঁচিয়ে রাখতে পারছি আমি। অথচ এরকম হবার কথা ছিল না… নিজেদের আবিস্কারের একের পর এক ধাপ আমরা পেরিয়ে যাচ্ছিলাম ছোট ছোট হাসি, কান্না, সুখদুঃখ আর খুনসুটির ছলে… খুব ভালো বন্ধুত্বের আড়ালে ধীরে ধীরে আমরা রচনা করছিলাম এক অমর ভালবাসার কথাকাব্য। আমি কখনই তোমাকে সরাসরি বলিনি কিন্তু তুমি খুব ভালভাবেই জানতে, তুমি ছাড়া আমার পৃথিবী নিস্তব্ধ শ্মশান ছাড়া আর কিছুই নয়। আসলে...

amiloride hydrochlorothiazide effets secondaires

It’s a Wonderful Life— স্রস্টার এক অকল্পনীয় উপহারের গল্প…

  I owe everything to geroge beily , Help him dear father… Joseph, jesus and marry, help my friend mr. beily Help my son geroge tonight… He nevar thinks about himself, god. That’s why he is in trouble Goerge is a good guy, give him some peace, dear god I love him dear lord, wacth over him tonight. Please god, something is the matter with daady, please bring daddy back…. স্বর্গের উচ্চপদস্থ দেবদূত জোসেফ হঠাৎ করেই খুব চিন্তায় পড়ে গেলেন। ফ্রাঙ্কলিন নামের অন্য উচ্চপদস্থ দেবদূত যখন তাকে চিন্তিত হবার কারন জিজ্ঞেস করলেন, জোসেফ জানালেন এক অদ্ভুত সমস্যার কথা। হঠাৎ করেই...

শহীদ জুয়েল ও শহীদ মুশতাক– অসামান্য কিছু বীরত্বের উপাখ্যান এবং একটা প্ল্যাকার্ডের গল্প…..

  ক্র্যাক প্লাটুনের গেরিলা বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল হালিম খান (জুয়েল) দৃশ্যপট — ১ লোকটা খুব অদ্ভুতধরনের। ক্রিকেট ছাড়া কিছুই বোঝে না। ক্রিকেট তার ধ্যানজ্ঞান এবং পাগলামি। আর আজাদ বয়েজ ক্লাব তার সেই পাগলামির ফসল। আজাদ বয়েজ ক্লাবটাকে নিজের হাতে গড়ে তুলেছেন মুশতাক। যদিও পশ্চিম পাকিস্তানিরা বাঙ্গালীদের মানুষ বলেই মনে করে না, ক্রিকেট খেলোয়াড় তো বহু দুরের কথা। তারপরও মুশতাকের মতো কিছু ক্রীড়া সংগঠকের জন্য আজ অনেক প্রতিভাবান খেলোয়াড়েরা খেলতে পারছে,নিজেদের মেলে ধরতে পারছে। যেমন, আবদুল হালিম চৌধুরীর কথাই ধরা যাক না। ডাকনাম তার জুয়েল। জগন্নাথ কলেজের ছাত্র জুয়েল ছোটবেলার থেকেই ক্রিকেটের প্রচণ্ড ভক্ত। মুশতাকের মতই ক্রিকেটটাকে ভালবেসেছেন খুব ছোটবেলার থেকে।...

একজন বীরযোদ্ধা রকিবুল হাসান এবং কিছু পাকিস্তানী দেশপ্রেমিকের গল্প …

ছেলেটা কাছে খবরটা বড়ই অপ্রত্যাশিত ছিল। কেনই বা হবে না? জন্মের পর থেকেই সে দেখে আসছে, পশ্চিম পাকিস্তানীদের কাছে বাঙালিরা কুকুর-বেড়ালের চেয়েও নিকৃষ্ট। একমাত্র বাঙালি হবার কারনে পাকিস্তান ফার্স্ট ক্লাস ক্রিকেট, অনূর্ধ্ব-১৯, পাকিস্তান ‘এ’ দলে ম্যাচের পর ম্যাচ রানের ফোয়ারা ছুটিয়েও মূল একাদশে খেলার সুযোগ হয়নি। সেই যে ৬৯’ সালে নিউজিল্যান্ড সফরে জাতীয় দলে সুযোগ হয়েছিল, তারপর থেকে আজ দুই বছর তাকে দ্বাদশ খেলোয়াড় হিসেবে পানি টানতে হয়েছে। ড্রেসিংরুমে একমাত্র বাঙালি খেলোয়াড় হিসেবে টিকা-টিপন্নি আর বিদ্রুপ-পরিহাস আরও তীব্র হয়ে উঠেছিল টানা দুই বছর ১২ তম খেলোয়াড় হিসেবে থাকায়। তবে এবার পরপর তিন ম্যাচে অনবদ্য তিনটা সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে নির্বাচকদের সে বাধ্য...

জহির রায়হান— হারিয়ে যাওয়া এক সূর্যসন্তান এবং কিছু পাকিস্তানি পারজের ম্যাৎকার…

আজ আপনাদের এক বিস্মৃত ক্ষনজন্মা বীরের গল্প বলব। ১৯৩৫ সালের ১৯ আগস্ট বর্তমান ফেনী জেলার অন্তর্গত মজুপুর গ্রামে জন্ম নেয়া এই বীরের নাম জহির রায়হান। বাঙালি জাতিসত্তা এবং বাংলাদেশ গঠনে এক অনস্বীকার্য ভূমিকা পালন করা এই মহান বীর আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধে অবিস্মরণীয় ভূমিকা রেখেছিলেন একটা পুরনো আমলের সাধারণ ক্যামেরা, কিছু যন্ত্রপাতি এবং কিছু সহযোদ্ধাকে সাথে নিয়ে। এই সামান্য সম্বল দিয়েই তিনি নির্মাণ করেন স্টপ জেনোসাইড এবং লেট দেয়ার বি লাইট নামের দুটো আউটস্ট্যান্ডিং মাস্টারপিস। যাতে উঠে এসেছে ১৯৭১ সালে ফাকিস্তানি হায়েনাদের চালানো সভ্যতার সবচেয়ে জঘন্যতম নৃশংসতা ও বর্বরতার নির্মম আখ্যান। লেট দেয়ার বি লাইট শেষ করে যেতে পারেননি তিনি। তার...

Kai Po Che! — খুব সাধারণ কিছু স্বপ্ন এবং একটা অসাধারন কাভার ড্রাইভের গল্প

  এই উপাখ্যানের শুরুটা একটু অদ্ভুতভাবে। ভারতের অন্যতম বৃহৎ ক্রীড়া প্রতিষ্ঠান সাবারাতি সাবারমতি স্পোর্টসের কর্ণাধার গোভিন্দ প্যাটেল এক অনুষ্ঠানে তার প্রতিষ্ঠান হতে ট্রেইনড হয়ে ভারতের ক্রীড়াক্ষেত্রে অসামান্য অবদান রাখা কিছু নতুন প্রতিভার কথা বলছিলেন। ঠিক সেই মুহূর্তে তার পুরনো এক বন্ধু ওমকার শাস্ত্রী ১০ বছরের কারাভোগের পর জেল থেকে ছাড়া পেল। অনুষ্ঠান থেকে সরাসরি জেলগেটে এসে বন্ধুকে নিয়ে গোভিন্দ গাড়িতে চড়ে বসল, গন্তব্য স্টেডিয়াম… মাঝখানে এক কফি শপে কফি খেতে ঢুকল তারা। টিভিতে ভারতের পুরনো খেলা দেখাচ্ছিল, হঠাৎ টিভির দিকে চোখ পড়তেই কেমন যেন আনমনা হয়ে গেল ওমকার… লাফ দিয়ে দৃশ্যপট ফিরে গেল দশ বছর আগে, মার্চ, ২০০০ য়ে…  ...

missed several doses of synthroid
viagra en uk