Author: আরাফ কাশেমী

কনসার্ট ফর বাংলাদেশ,১লা আগস্ট,১৯৭১

৭০ সালে ভোলায় প্রলয়ঙ্কারী সাইক্লোনটির পরপরই বাংলাদেশের বন্যাদূর্গতদের জন্য কিছু করার কথা ভাবছিলেন রবি শংকর।ব্যাপারটি নিয়ে আলোচনা করেছিলেন বন্ধু জর্জ হ্যারিসনের সঙ্গে।হ্যারিসন অনেকদিন ধরেই ভারতীয় রাগ সঙ্গীতের প্রতি অনুরক্ত,সুবাদেই সেতার শিখছিলেন শংকরের কাছে।উদ্দেশ্য গানের বিক্রি ও রয়ালটি বাবদ টাকা বন্যাদূর্গতদের জন্য ব্যয় হবে এই কথা টা আগেই ভেবে রেখেছিলেন দুজন।এই উদ্দেশ্যটা নেওয়া পরে হয়েছিলো রেকর্ডিং শুরুর আগেই।ততদিনে যুদ্ধ শুরু হয়ে গেছে বাংলাদেশে।   তারপর রবি শংকর পরিবর্তন করলেন অনুরোধের।হ্যারিসনকে বললেন ছোটোখাটো একটা কনসার্ট আয়োজনের।উদ্দেশ্য ২৫-৩০ হাজার ডলার সংগ্রহ করে শরণার্থীদের সাহায্য করা।কিন্তু জর্জ হ্যারিসন নিজের জনপ্রিয়তার কথা মাথায় রেখেই হয়তো তার আত্নজীবনী তে লিখেছিলেন ‘The Beatles had been trained that if...

কবিতার ধর্ম

যখন আমি খুব ছোট মাথা ঝাঁকিয়ে ঝাঁকিয়ে স্কুলের অনুষ্ঠানে বলেছিলাম . “আমাদের ছোটো নদী চলে বাঁকে বাঁকে বৈশাখ মাসে তার হাঁটু জল থাকে। পার হয়ে যায় গরু,পার হয় গাড়ি, দুই ধার উঁচু তার, ঢালু তার পাড়ি।” . আমি তখন বুঝনি আমি ছোট্ট বেলায় মাথা দুলিয়ে পড়া সেই কবিতার কবি রবি ঠাকুর হিন্দু-কি মুসলিম ছিলো।কিন্তু বইয়ের পাতায় সেই কবিতা আমি পড়েছিলাম,সেই কবিতা এতটাই মনে গেঁথে আছে এখনো মাথা নাড়িয়ে বলতে পারবো অনেকটা।যেমন – . “কিচিমিচি করে সেথা শালিকের ঝাঁক, রাতে ওঠে থেকে থেকে শেয়ালের হাঁক।” . হ্যাঁ এদেশের শালিকের মাঝে আজো কিছু শেয়াল বসবাস করে।সেই সমস্ত শেয়ালরা দাবী করে ধর্ম দিয়ে...

বদ্বীপের অভিমানী বীরশ্রেষ্ঠ মোস্তফা কামাল

ছোটবেলায় বড় ডানকিটে ছিলেন।তার দুরন্ত পানার গ্রামের সবাই তথস্থ থাকতো। বাবা ছিলেন সেনাবাহিনীর হাবিলদার।গ্রামের সবাই ডাকতেন হাফিজ মিলিটারী বলে।সেই হাফিজ মিলিটারীর চাক্যচিক্য শিশু মোস্তফার চোখে নেশা ধরিয়ে দিয়েছিলেন সৈনিক হবার।সেই স্বপ্নে বাধ হয়ে আসলেন বাবা কিন্তু জেদী আর একরোখা মোস্তফা বাড়ি থেকে পালিয়ে সেনাবাহিনীতে যোগ দিয়েছিলেন ঠিকই। সৈনিক হয়ে চাওয়া সেই মানুষটি থেকে আর কেই বা বেশি জানে মাতৃভূমি রক্ষায় জীবন উৎসর্গ করার সেই গৌরব।এ জ্ঞানের গর্ব আর অভিমান তাকে তরুণ বয়সেই ঠেলে দিয়েছিলো মহান পথে আত্নহুতির বাণীতে।মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল ১৯৪৭ সালের ১৬ ডিসেম্বর ভোলা জেলার দৌলতখান থানার পশ্চিম হাজীপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন।২০ বছর বয়সে জয়েন করেন সেনাবাহিনীতে।ট্রেনিং শেষ করে...

can your doctor prescribe accutane

বর্ণ মালার “র” আর ভাষা শহিদ রফিক

মানিকগঞ্জের সিঙ্গাইরের পারিল গ্রামে ছিলো তাঁর বাড়ি।একই গ্রামের মেয়ে রাহেলা খাতুন পানুর সঙ্গে গড়ে উঠে প্রেমের সম্পর্ক।তাদের এই সম্পর্ক পারিবাড়িক ভাবেই মেয়ে নিয়েছিলেন দুই পরিবার।তাইতো রফিক ঢাকায় এসেছিলেন রাহেলার জন্য বিয়ের শাড়ী-গহনা কিনতে।২১তারিখ বাড়ি ফিরে যাবার কথা ছিলো রফিকের কিন্তু আর কোনদিন বাড়ি ফিরে যাওয়া হয়নি রফিকের,রাহেলার জন্য শাড়ি-গহনা কিনে বিয়ের পিড়িতেও বসা হয়নি তাঁর। . ছোট্ট সুন্দর পারিল্ গ্রামে আবদুল লতিফ ও রাফিজা খাতুনের ঘরে ৩০ অক্টোবর ১৯২৬ সালে জন্মগ্রহন করেন রফিক।পুরো নাম রফিকউদ্দিন আহমদ।তাঁর পিতা আবদুল লতিফ ছিলেন ব্যবসায়ী, কলকাতায় ব্যবসা করতেন।রফিকউদ্দিনের ডানপিঠে শৈশব আর পড়ালেখা শুরু কলকাতার ‘মিত্র ইনস্টিটিউটে’। . ১৯৪৭ সালে দেশভাগের পর রফিকউদ্দিনের পিতা ঢাকায়...

will i gain or lose weight on zoloft

ব্লগার হত্যার পেছনের সূত্র খুজচ্ছি (পর্ব -২)

একটা কথা জিজ্ঞেস করি শাহবাগ আন্দোলনের আগে কয়জন জানতো ব্লগ বলে একটা কিছু আছে আর যেখানে চাইলেই লেখালেখি করা যায় আর যারা সেখানে লেখালেখি করে তাদের ব্লগার বলে।যদি মানুষ সত্যিকার অর্থেই সত্যি উত্তর দেয় তাহলে বাজি রেখে বলতে পারি না জানা মানুষের সংখ্যাটাই বেশি হবে।   একটু পিছনে ফিরে যাই,হুমায়ূন আজাদের কথা মনে আছে।না থাকলে মনে করিয়ে দিচ্ছি তিনি বাংলাদেশের প্রথম দিককার প্রথাবিরোধী এবং লেখক যিনি ধর্ম, মৌলবাদ, প্রতিষ্ঠান ও সংস্কারবিরোধিতা,নারীবাদ,রাজনৈতিক এবং নির্মম সমালোচনামূলক লেখক ছিলেন।আমি আবারো বলছি তিনি লেখক ছিলেন ব্লগার নয় কিন্তু।হঠাৎ আপনার মনে হতেই পারে তার কথা আনলাম কেন সূত্র মিলাতে তাকে যে আনতে হবেই।   তিনি...

cialis new c 100

জননীর শেষ চিঠি

চিকিৎসার জন্য শেষবার ঢাকা ছাড়বার আগে জাহানারা ইমাম বলেছিলেন “ওদের মৃত্যুঘণ্টা বেজে গেছে।এবার ফিরে এলেই দুর্বার আন্দোলন গড়ে তুলবো আমরা।দেশ জেগে গেছে,তরুণরা হাল ধরেছে। আমার সন্তানরা এক হয়েছে ‘দানবশক্তি’র বিরুদ্ধে তাই ‘জয় আমাদের সুনিশ্চিত’।”   কিন্তু দেহে বাসা বাঁধা কর্কটব্যাধি তাকে দেশব্যাপী জেগে ওঠা মুক্তিযুদ্ধের চতনাদীপ্ত মানুষদের নিয়ে দেশকে শত্রুমুক্ত করার পবিত্র কাজটি সম্পন্ন করতে দেয়নি।ব্যাধি যতই প্রকটতর হয়েছে, উদ্দেশ্য সাধনে তিনি যেন আরো দৃঢ়প্রতিজ্ঞ হয়েছেন। মৃত্যুশয্যায়ও তিনি ভুলেননি স্বীয় দায়িত্ব। কম্পিত হস্তে খোলা চিঠি লিখেছেন-   “সহযোদ্ধা দেশবাসীগন, আপনারা গত তিন বছর ধরে একাত্তরের ঘাতক ও যুদ্ধাপরাধী গোলাম আযমসহ স্বাধীনতাবিরোধী সকল অপশক্তির বিরূদ্ধে লড়াই করে আসছেন।এই লড়াইয়ে আপনারা দেশবাসি...

ovulate twice on clomid

আলবদর মুজাহিদের অপরাধনামা

একাত্তরে রাজধানীর ফকিরাপুলের গরম পানির গলিতে ফিরোজ মেম্বারের বাড়িতে রাজাকার ক্যাম্প ছিল। এপ্রিলে শান্তি কমিটি গঠনের পর সেখানে কার্যালয় বসানো ও রাজাকারদের নিয়োগ দেওয়া হয়। মুজাহিদ নিয়মিত সেখানে যাতায়াত করতো এবং সেখান থেকে মানবতাবিরোধী অপরাধ ও গণহত্যা সংঘটন করা হতো।মুজাহিদ ওই রাজাকার ক্যাম্পে গিয়ে মানবতাবিরোধী অপরাধ ও গণহত্যা সংঘটনের নির্দেশ দিতেন এবং সে অনুসারে সারা দেশে আলবদর বাহিনী, রাজাকাররা অপরাধ ঘটাত। ২২ সেপ্টেম্বর কুমিল্লা টাউন হলের এক সমাবেশে তিনি বলেন, ছাত্রসংঘের একজন কর্মী জীবিত থাকতেও পাকিস্তানকে ভাঙতে দেওয়া হবে না।দরকার হলে তাঁরা সীমান্তে গিয়ে অস্ত্র ধারণ করবে।৭ নভেম্বর বিকেলে বায়তুল মোকাররম মসজিদ প্রাঙ্গণে ছাত্রসংঘের গণজমায়েতে মুজাহিদ বলেন, আর কোনো হিন্দু...

জামাত গো হোম

অনেক প্রতিবাধের পড়ে জামাতের নিবন্ধন বাতিল হলো শেষমেশ জামাতের নিবন্ধন বাতিল হলো।৭১ এ খুনের রক্ত নিয়ে এদেশে   দাপিয়ে চলা আর গাড়িতে এদেশের পতাকা লাগানোর দিন ফুরালো।   বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর নিবন্ধন বাতিল- জাতীয় সংসদকে এমন তথ্যই জান‍ালো নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এর মধ্য দিয়ে প্রথমবারের মতো দলটির নিবন্ধন বাতিলের বিষয়টি খোলাসা করলো রাজনৈতিক দলের নিবন্ধন অথরিটি ইসি।সংসদ সচিবালয়কে ইসির জ্যেষ্ঠ সহকারী সচিব মো. আতিয়ার রহমানের পাঠানো এক তথ্য বিবরণী থেকে বিষয়টি জানা গেছে।   ২০১৩ সালে ১ আগস্ট রাজনৈতিক দল হিসেবে জামায়াতের নিবন্ধন অবৈধ ঘোষণা করেন হাইকোর্ট। তবে দলটির নিবন্ধন বাতিল করা হয়েছে কিনা তা নিয়ে গত রোববার পর্যন্তও কোনো...

ওল্ডহোম

ওল্ডহোম কিংবা বৃদ্ধাশ্রম শহরের বাইরে সত্যি বলতে সমাজের বাইরে থাকা এই ওল্ড হোমের লাল টালির ছাতে রোজ বিকেলে সূর্যের আলো ঝিকমিক করে ঠিকই, কিন্তু তারপরই নেমে আসে গাঢ় অন্ধকার।প্রকৃতির সেই অন্ধকার আর আর একা থাকার আঁধার মিলে মিশে পথ চলার অপেক্ষা করতে হয়,জীবনের খাতায় জমা থাকা সামনের দিনগুলোর।কিভাবে  সমাজের বুকে এলো এই ওল্ডহোম প্রথমে সেই গল্পটা বলা যাক।   জাপানের অর্থনীতি তখন আজকের মত ছিলো না।প্রাচীন জাপানের দরিদ্র মানুষের পক্ষে  তাদের মা-বাবা কে লালন পালন করার মত  সামর্থ্য তাদের ছিলো না। তাইবাবা-মা বৃদ্ধ হবার  এক পর্যায়ে তারা পিঠে করে বাবা মাকে এক পর্যায়ে তারা পিঠে করে বাবা মাকে পাহাড়ের খাদে ফেলে...

জননীর জীবনের গল্পটা

এ এমন জননীর গল্প যিনি খলীল জিবরানের প্রফেট থেকে লাইন আউড়ে মনকে শক্ত করেছেন,পুরো পরিবার যেন নীলকণ্ঠ।পুরাণে এক দেবতা বিষ নিজের গলায় ধারণ করে বাঁচিয়েছিল বিশ্ব,নিজে হয়েছিল নীলকণ্ঠ।এই পরিবার ,এই গল্প,এই পিতা পুত্র জননীরাও যেন তাই।আমরা দুর্ভাগ্যবান তাদের নষ্ট বীজ আজো বিষবৃক্ষ ছড়িয়ে দিচ্ছে শ্যামল বাঙলায়,যার জন্য গল্পের জননীকে,আমাদের জননীকে পেতে হয় রাষ্ট্রদ্রোহীর অভিধান। এরচেয়ে বড় জঘণ্য অনাচার পৃথিবীতে আর কি হতে পারে? চল্লিশের দশকে পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদ জেলার সুন্দরপুর গ্রামে একটি রক্ষণশীল বাঙালি মুসলমান পরিবারে সৈয়দা হামিদা বেগম আর তার ডেপুটি ম্যাজিস্ট্রেট স্বামী সৈয়দ আবদুল আলীর ঘর আলো করে ১৯২৯ সালের ৩ মে জন্ম নিলো এক ফুটফুটে কন্যা সন্তান।মেয়ের ডাক...

যে শ্রমিকদের রক্তে শ্রমিকদের ঘামে ভেজা একটি দিবস হলো

সভ্যতার প্রতিটি ইট,বালু,পাথরে যাদের ফোটা ফোটা ঘাম জড়িয়ে আছে তারা কিন্তু কখনোই সভ্যতার আশীর্বাদধন্য শ্রেনী ছিলনা,এখনো নয় বলছিলাম অধিকার বঞ্চিত শ্রমিকদের কথা। ‘তারাই মানুষ,তারাই দেবতা,গাহি তাহাদেরি গান, তাদেরি ব্যথিত বক্ষে পা ফেলে আসে নব উত্থান’! বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুল ইসলামের ‘কুলিমজুর’ কবিতার এই অসামান্য লাইন দুটো জানান দেয় শ্রমিকের সম্মান,প্রকৃত মর্যাদা।১লা মে দিনটি পৃথিবীর অনেক দেশে আন্তর্জাতিক শ্রমিক দিবস হিসেবে পালিত হয় যা মে দিবস নামেও পরিচিত কিন্তু এর পিছনে জড়িয়ে আছে দীর্ঘ দিনের ইতিহাস। . . . ঊনিশ শতকের গোড়ার দিককার কথা।শ্রমিকরা তখনো শোষিত,সপ্তাহে ৬ দিনের প্রতিদিনই গড়ে প্রায় ১০ থেকে ১২ ঘন্টার অমানবিক পরিশ্রম করতো কিন্তু তার বিপরীতে...

মুজিবনগর সরকার

১৬ এপ্রিল সন্ধ্যায় বাংলাদেশের এক কর্মকর্তা কলকাতা প্রেসক্লাবে উপস্থিত হন৷তিনি বিদেশী ও ভারতীয় সাংবাদিক ও কূটনীতিকদের পরদিন সকাল ৬টায় প্রেসক্লাবে হাজির থাকতে বলেন৷ ভোর হতেই সাংবাদিক ও টেলিভিশন ক্যামেরাম্যানরা ভিড় করতে থাকেন।৬টা বাজতেই কয়েকশ সাংবাদিক হাজির হয়ে যান কলকাতা প্রেসক্লাবে৷কেউ কিছু আঁচ করতে পারেন না৷ যথা সময়ে বাংলাদেশের কর্মকর্তা প্রেসক্লাবে উপস্থিত হয়ে সাংবাদিকদের স্বাগত জানান৷ কোন কিছুর আভাস না দিয়ে শুধু বললেন,তাঁর গাড়ি অনুসরণ করতে৷অতি উত্‍সাহে সাংবাদিকরা বাংলাদেশের কর্মকর্তার গাড়ি অনুসরণ করতে থাকেন নিজেদের গাড়িতে বসে৷তারা তখনও জানতেন না বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসের ঐতিহাসিক ঘটনার নিউজ কভার করতে যাচ্ছেন৷গাড়ি বহর কলকাতা মহানগর পেরিয়ে কৃষণনগরের পথে এগুতে থাকে৷ তারপর সীমান্তের দিকে এগিয়ে...

বিধবাপল্লীর বোবা কান্না

আজো আমি বাতাসে লাশের গন্ধ পাই আজো আমি মাটিতে মৃত্যূর নগ্ননৃত্য দেখি, ধর্ষিতার কাতর চিৎকার শুনি আজো আমি তন্দ্রার ভেতরে এ দেশ কি ভুলে গেছে সেই দু:স্বপ্নের রাত, সেই রক্তাক্ত সময় বাতাসে লাশের গন্ধ ভাসে মাটিতে লেগে আছে রক্তের দাগ। শেরপুর জেলা থেকে ৩৬ কিঃ মিঃ দূরে নালিতাবাড়ী উপজেলার সীমান্তবর্তী ইউনিয়ন কাকরকান্দি,গারো পাহাড়ের কোল ঘেঁষে নিভৃত এক গ্রাম নাম সোহাগপুর। গল্পের কোন গ্রাম এর কথা শুনলে চোখের সামনে যেমনটি ভেসে উঠে বাস্তবে ঠিক তেমনি একটি গ্রাম ছিলো সোহাগপুর। শ্রাবনের ১০ তারিখ(২৫জুলাই,১৯৭১)গ্রামের মানুষ যখন ক্ষেতে খামারে গিয়ে কাজ শুরু করার প্রস্তুতি নিচ্ছে।হাসেন বানু স্বামী আব্দুল লতিফ হাল চাষের জন্য ক্ষেতে পাঠিয়ে...

৪৪ বছর পরের গল্প

৭১ এর সেপ্টেম্বর মাস ঢাকা থেকে গ্রামের বাড়ির পথে পা বাড়ালো বালক ইব্রাহিম ভূঁইয়া।সদরঘাট পর্যন্ত যেতেই পচা লাশ-আর শুকানো রক্তের গন্ধে ভিতর থেকে নিজেকে ঘুলিয়ে ফেলছিলো বার বার।রাস্তার মোড়ে মোড়ে পাঞ্জাবী সেনাদের তল্লাশীর ভিতর দিয়ে সদরঘাট পৌছে অপেক্ষা করতে থাকলো বাড়ি ফেরার। পুরো টার্মিনাল জুড়ে পাঞ্জাবী সেনাদের কড়া পাহারা।কিছুক্ষণ বাদেই এক বৃদ্ধ এলো সঙ্গে তার নবপরিণীতা পুত্রবধূ আর নিজের ১৬ বছরের কন্যা, উদ্দেশ্য মুন্সিগঞ্জ।পাঞ্জাবী সেনারা সবাইকে তল্লাশী চালিয়ে বললো’ ইয়ে দো আওরাত… নাহি যায়েগী”।আকাশ ভেঙ্গে পড়লো বৃদ্ধর মাথায় হাতে পায়ে পড়লো পাঞ্জাবী নরপশুদের,সেনাদের লাথি আঘাতে খানিক দূরে গিয়ে পড়লো।কোনমতে উঠে দাঁড়িয়ে সামনে যাকে পাচ্ছে তার কাছেই নিজের মেয়ে আর ছেলের...

সেলিনার সেই শিলালিপি

স্বাধীন বাংলাদেশেই আজ কলম চালানো যে কত কঠিন তা চোখে মেললেই দেখতে পাওয়া যায়,তাহলে ভাবতে পারেন কি পরাধীন বাংলার মাটিতে কলম চালানো কতটা কঠিন ছিলো।কিন্তু তারপরো কলম চলেছিলো অনেকে,তাদের মাঝে একটি কলম চলে ছিলো সেলিনা পারভীনের হাত ধরে পরাধীনতার বৃত্ত থেকে স্বাধীনতার আলোর আশা বুকে নিয়ে। শহরে তখন কারফিউ ডিসেম্বর সকালবেলা ১১৫ নং নিউ সার্কুলার রোডে তার বাড়ীতে থাকতো তিনজন মানুষ- পুত্র সুমন, মা আর তার ভাই জনাব উজির৷ সেদিন শীতের সকালে তারা সকলেই ছিলেন ছাদে। সেলিনা পারভীন সুমনের গায়ে তেল মাখিয়ে দিচ্ছিলেন। সুমন যখন ছাদে খেলাধুলা করছিল তখন সেলিনা পারভীন ছাদে একটা চেয়ার টেনে একটি লেখা লিখছিলেন। সেই বাসার... synthroid drug interactions calcium

রহস্যময় রাজ্য নিষিদ্ধ তিব্বত

বহির্বিশ্বের কাছে বছরের পর বছর ধরে এক নিষিদ্ধ বিস্ময়ের নাম তিব্বত। হাজার হাজার কিলোমিটার চলে যাওয়া ঊষর,রুক্ষ,পাথুরে ভূমি আর পৃথিবীর উচ্চতম পর্বতশৃঙ্গগুলোকে বুকে ধরা বরফগলা রুপালি নদীর সমন্বয়ে গঠিত এ বিস্ময়ভূমির এই তিব্বত।নিষিদ্ধ দেশ কোনটি প্রশ্ন করলে এক বাক্যে সবাই বলবে তিব্বত।কিন্তু এই নিষিদ্ধের পেছনের রহস্য অনেকেরই অজানা।শত শত বছর ধরে হিমালয়ের উত্তর অংশে দাঁড়িয়ে আছে তিব্বত নামের এই রহস্যময় রাজ্যটি।তিব্বতে যে কী আছে সে ব্যাপারে সবার মনে রয়েছে জিজ্ঞাসা। হিমালয়ের উত্তরে অবস্থিত ছোট একটি দেশ তিব্বত। ১৯১২ খ্রিস্টাব্দে ত্রয়োদশ দালাইলামা কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত গণচীনের একটি সশাসিত অঞ্চল তিব্বত। মধ্য এশিয়ায় অবস্থিত এই অঞ্চলটি তিব্বতীয় জনগোষ্ঠীর আবাসস্থল। এই অঞ্চলটি চীনের অংশ...

মধুমতী তীরের খোকা আমাদের বঙ্গবন্ধু

বাংলাদেশের এক প্রত্যন্ত গ্রাম নাম টুঙ্গিপাড়া গ্রামের পাশে বয়ে চলেছে মধুমতি নদী। এই নদী গোপালগঞ্জ ও বাগেরহাট জেলাকে ভাগ করে রেখেছে। ১৯২০ সালের ১৭ মার্চ এই গ্রামেই জন্মেছিলেন খোকা।বাবা শেখ লুৎফর রহমান মা’র নাম সায়েরা খাতুন।১৯২৭ সালে খোকা গিমাডাঙ্গা প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পড়াশোনা শুরু করেন যখন তার বয়স সাত বছর। নয় বছর বয়সে তথা ১৯২৯ সালে গোপালগঞ্জ পাবলিক স্কুলে ভর্তি হন এবং এখানেই ১৯৩৪ সাল পর্যন্ত পড়াশোনা করেন। ১৯৩৭ সালে গোপালগঞ্জ মাথুরানাথ ইনস্টিটিউট মিশন স্কুলে সপ্তম শ্রেনীতে ভর্তি হন। ১৯৩৪ থেকে চার বছর তিনি বিদ্যালয়ের পাঠ চালিয়ে যেতে পারেন নি। কারণ তার চোখে জটিল রোগের কারণে সার্জারি করাতে হয়েছিল এবং এ...

puedo quedar embarazada despues de un aborto con cytotec
kamagra pastillas
irbesartan hydrochlorothiazide 150 mg

মার্চ মানেই জয় বাংলার মাস

আজ মার্চ মাসের ১ তারিখ।বাঙালির মুক্তির সাথে মার্চ মাস জড়িয়ে আছে এক অবিচ্ছেদ্য অংশ হয়ে।মার্চের প্রতিটি দিন মুক্তির সংগ্রামে এগিয়ে যাওয়ার এক একটি ধাপ হয়ে দাঁড়িয়ে আছে ইতিহাসের পাতায়।অগ্নিঝরা মার্চ বাঙালির স্বাধীনতার ডুবে যাওয়া সূর্য পুনরুদ্ধারের সংগ্রামে ঝাপিয়ে পড়ার মাস ।মার্চ মাস বাঙালির জন্য অন্য ১১টি মাস থেকে একটু আলাদা ১৯৭১ সালের এই মার্চের ২ তারিখ প্রথম উড়েছিলো বাঙালির প্রানের হলুদ মানচিত্র খচিত লাল-সবুজের পতাকা তৎকালীন ডাকসু ভিসি আ.স.ম আব্দুর রবের হাত ধরে কলা ভবন প্রাঙ্গণে। ১৯৪৮ সালে ২ মার্চ ফজলুল হক হলে কামরুদ্দীন আহমদের সভাপতিত্বে তমুদ্দিন মজলিস ও মুসলিম ছাত্রলীগের এক যৌথসভা অনুষ্ঠিত হয়। ঐদিনই রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদ সম্প্রসারণ...

৭১ এর রওশন আরা

বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের এম.এ শেষ বর্ষের ছাত্রী রওশন আরা।সব সময় পড়তো পছন্দের সাদা রঙের শাড়ি,কিন্তু মেয়েটি ছিলো অসীম সাহসী।রাজনীতিক মিছিল,মিটিং আর অধিকার আদায়ের আন্দোলনে সব সময় ছিলেন ছেলেদের সমান-সমান মেয়ে বলে তাকে টেক্কা দেয়ার সাহস ও কোনদিন করতে পারেনি কোন ছেলে। ৭১ এ যুদ্ধ শুরুর কিছু দিন পরে গেরিলা অপারেশন এর অভিযোগে মেজর খানের নির্দেশে পাকি আর্মি অভিযান চালায় রওশন আরাদের হলে। পুরো হলকে ঘিরে ফেলা হল। মাইক হাতে মেজর সকল মেয়েদের সারেন্ডার করে ট্রাকে উঠার নির্দেশ দিতেই ছাদ থেকে ভেসে আসলো এক দৃপ্ত নারীকণ্ঠ – “মেজর, অপেক্ষা করো -আসছি”। উপর থেকে নেমে বীরদর্পে মেজরের সামনে এগিয়ে গেলো সে। পরনে...

৭ই মার্চের সম্পূর্ণ ভাষণ

ভায়েরা আমার, আজ দুঃখ ভারাক্রান্ত মন নিয়ে আপনাদের সামনে হাজির হয়েছি। আপনারা সবই জানেন এবং বোঝেন। আমরা আমাদের জীবন দিয়ে চেষ্টা করেছি। কিন্তু দুঃখের বিষয়,আজ ঢাকা, চট্টগ্রাম, খুলনা, রাজশাহী, রংপুরে আমার ভাইয়ের রক্তে রাজপথ রঞ্জিত হয়েছে। আজ বাংলার মানুষ মুক্তি চায়, বাংলার মানুষ বাঁচতে চায়, বাংলার মানুষ তার অধিকার চায়। কী অন্যায় করেছিলাম? নির্বাচনের পরে বাংলাদেশের মানুষ সম্পূর্ণভাবে আমাকে, আওয়ামী লীগকে ভোট দেন। আমাদের ন্যাশনাল এসেম্বলি বসবে,আমরা সেখানে শাসনতন্ত্র তৈরি করবো এবং এদেশকে আমরা গড়ে তুলবো। এদেশের মানুষ অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক, সাংস্কৃতিক মুক্তি পাবে। কিন্তু দুঃখের বিষয়, আজ দুঃখের সঙ্গে বলতে হয় ২৩ বৎসরের করুণ ইতিহাস, বাংলার অত্যাচারের, বাংলার মানুষের রক্তের...

viagra in india medical stores
walgreens pharmacy technician application online
half a viagra didnt work