Author: ইকবাল মাহমুদ অনিক

শুভ্র গোফের সরল মানুষ

২০০১ সাল আমি তখন ৫ম শ্রেণীর ছাত্র, ঢাকা বইমেলা থেকে মামা মামি একটা বই পাঠালেন নাম “রাজু ও আগুনালির ভুত” শুভ্র গোফের হাস্যোজ্জ্বল সরল মানুষটির সাথে পরিচয় সেই থেকেই।যদিও তার লেখার প্রতি ভালো লাগা শুরু বিখ্যাত শিশু চলচিত্র “দিপু নাম্বার টু” এর মাধ্যমে কিন্তু তখন জানতাম না কে এই কাহিনীর স্রস্টা।যাই হোক তখনও আমার উপন্যাস পরা শুরু হয় নি বুঝতাম শুধু উপন্যাস মানেই বিশাল সব কঠিন কঠিন ঘটনা।যদিও মুক্তিযুদ্ধের ঘটনা বা ইতিহাস বড় হলেও ভালো লাগত আর একেবারেই ঠাকুরমারঝুলি টাইপের ছোট গল্প পরতাম।বইটা পেয়ে রেখেদিলাম,এত বড় বই কিভাবে পরব সেই চিন্তা করতেছিলাম।সম্ভবত কয়েক সপ্তাহ পরে বইটা পড়া শুরু করি, প্রথম...

পটুয়াখালী আক্রমন

২৬ এপ্রিল সোমবার ১৯৭১,এক মাস হানাদার মুক্ত থাকার পর সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে বিমান আক্রমণ শুরু করে পাকিস্তানী বিমান বাহিনী।এক নাগাড়ে কয়েকঘন্টা বিমান হামলা চালিয়ে হেলিকপ্টার যোগে কালিকাপুরে অবতরন করে পাকিস্তানী হানাদাররা।শুরুতেই তারা গনহত্যা শুরু করে কালিকাপুরের মাতবর বাড়িতে।ঐ দিন তারা মাতবর বাড়ির ১৭ জন সদস্যকে হত্যা করে।অগ্রসরমান হানাদার বাহিনী প্রথম বাধার স্বীকার হয় জেলাপ্রশাসকের বাসার সামনে কর্তব্যরত আনসার সদস্যদের মাধ্যমে।বেলা ২ তার দিকে মিনিট পনের ধরে চলা যুদ্ধে শহীদ হন কর্তব্যরত ৬ আনসার সদস্য।পাকিস্তানি বাহিনীর হাতে শহীদ হন তৎকালীন জেলা প্রশাসক আব্দুল আউয়াল।ঐ দিন শহরে ৩০০ এর অধিক মানুষকে হত্যা করে হানাদার বাহিনি।আগুন পুড়িয়ে দেয়া হয় পুরান বাজার... nolvadex and clomid prices

ঘৃণা

ঝুম বৃষ্টির মধ্যে কারাগারে ফাঁসির দন্ডপ্রাপ্ত আসামীদের জন্য রাখা সেলে শুয়ে আছে কাম্রু।ইদানীং রাত হলেই খিল খিল করে হাসা অনেক নারীর কন্ঠ শুনতে পান।কয়েক দিন ধরেই রাতে ঘুম হচ্ছে না।আজ তো বোধহয় হবেই না,আগামিকাল রিভিউ এর রায় আসছে।চোখ বন্ধ করে ঘুমানোর ব্যার্থ চেস্টা।মাঝেমধ্যে মনে পড়ছে সেই দিনগুলির কথা।আর আফসুস হচ্ছে,আরেক বার ক্ষমতায় এলেই মন্ত্রী হওয়া ছিল সময়ের ব্যাপার,তারপর প্রত্যাহ সকালে উঠে গেয়ে উঠতেন পাক সার জমিন সাদ বাদ। গানটা গাওয়ার সাথে সাথে দিলটার মধ্যে কেমন যেন প্রশান্তি বয়ে যায়,শরিরে উত্তেজনা আসে।আর এইসব বাদ দিয়া কি একটা মালাউনের জাতীয় সংগীত গায় পোলাপান। এই পোলাপান গুলাই নস্টের গোড়া ৭১ এই বেয়াদ্দপ গুলার জন্যই...

২৫ শে মার্চ ও আরও কিছু প্রতিরোধযুদ্ধ

২৫ শে মার্চের কথা বললেই যে চিত্র আমাদের সামনে ভেসে ওঠে,সেটি হচ্ছে পাক বাহিনী কতৃক সংগঠিত গনহত্যা এবং আধুনিক অস্ত্রে সজ্জিত এই বাহিনীর বিরুদ্ধে খেলনা বন্দুক তুল্য থ্রি নট থ্রি নিয়ে অসীম সাহসিকতা ও বীরত্বের সাথে রাজারবাগ পুলিশ লাইনে প্রতিরোধ করা পুলিশ বাহিনীর সেই সব বিরযোদ্ধাদ্দের কথা।কিন্তু ২৫ থেকে ২৭ মার্চ পর্যন্ত আরও কিছু বিক্ষিপ্ত প্রতিরোধ যুদ্ধ সংগঠিত হয়েছিল ঢাকার বুকে,অসীম সাহসি,দেশপ্রেমিক সেই যোদ্ধাদের দ্বারা সংগঠিত সেই প্রতিরোধ যুদ্ধের কথা হয়ত অনেকেরেই অজানা।চলুন জেনে নেই সেই সব বীরত্বের কাহিনী। ঢাকা মিরপুর প্রতিরোধঃ রাজারবাগ পুলিশ লাইনের এস আই আব্দুস সোবাহান ২৫ শে মার্চ রাতে মিরপুর ১০ নম্বরে জরুরী টহলে ছিলেন।রাজারবাগ পুলিশ...

zoloft birth defects 2013
achat viagra cialis france

মহানায়কের জন্মদিন

১৯৫৬ সালের কথা ফেব্রুয়ারি মাসে পাকিস্তানের গণপরিষদে পাশ হয় পুর্ব বঙ্গের সার্থবিরোধি সংবিধান। বাংলাকে অন্যতম রাস্ট্রভাষা হিসাবে ঘোষণা করা হলেও।সংখ্যাসাম্যের অজুহাতে পুর্ববঙ্গের জনগোষ্ঠীর শতকরা ৬ ভাগ সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিশ্চিনহ করা হয়।অর্থাৎ বাঙালি প্রতিনিধিত্ব ৫৬ ভাগের পরিবর্তে ৫০ ভাগ এবং পশ্চিম পাকিস্তানের প্রতিনিধিত্ব ৪৪ ভাগের পরিবর্তে ৫০ ভাগ করা হয়।৮০ জন সদস্য বিশিষ্ট গণপরিষদে আওয়ামীলীগের সদস্য সংখ্যা ছিল মাত্র ১৩ জন। এই সংবিধানে পুর্ববঙ্গের নাম বদলে পুর্ব পাকিস্তান করা হয়। প্রতিবাদে নেতার নেতৃত্বে আওয়ামীলীগের ১৩ জনের কেউ এই সংবিধানে স্বাক্ষর করেন নি। সন্ধ্যায় আরব সাগর তীরে সাংবাদিক ও চরমপত্র বই এর লেখক এম আর আখতার মুকুল কে নেতা বলেছিলেন… “দেখিস যদি বেচে...

উম্মা আফ্রিদি, আফ্রিদি উইল ইউ ম্যারি মি অথবা ইমরান খান সো কুল

প্রিয় গ্রুপ ক্রিকেটখোরে এ যাবত কাল সম্ভবত হাজার খানেক পাদাকে(পাকিস্তানের দালাল) খোয়াড়ে পাঠান হয়েছে।আগেই বলে রাখি ছাগু দেখা মাত্রই খোয়াড়ে পাঠানোর কারনেই এই গ্রুপটাকে বোধহয় বেশি ভালো লাগে।অব্যাহত ট্রিটমেন্টের পরেও দেখা যায় লুকিয়ে থাকা পাদার বলছে,পাকিস্তান তাদের ফেভারিট টিম,খেলার সাথে রাজনীতি মেশাবেন না,গতকাল তো মোহাম্মাদ ইউসুফের ছবির নিচে কমেন্ট দেখলাম “মাই ফেভারেট প্লেয়ার” কয়েকদিন আগে পাকি দলের ছবি দিয়ে রীতিমত ঝাকে ঝাকে পাদা আটকানো হয়।অনলাইনে দেখা যায় নিজেকে বাংলাদেশি পরিচয় দিয়েও পাকিদের কলিজার টুকরা বলে নিজের পশ্চাৎ দেশ ভাড়া দেয়ার কি প্রানন্তকর চেস্টা।সুপার কপ মাশরুফ ভাইয়ার ছবির নিচে দেখলাম এক ছাগি পাকিদের জন্য ব্যাকুল প্রায়।শহিদ মুশতাক কিংবা জুয়েল স্ট্যান্ডে দাড়িয়ে...

শহীদ বুদ্ধিজীবী অধ্যাপক রামকৃষ্ণ অধিকারী

২৯ জানুয়ারি বরিশালের বাবুগঞ্জ ডিগ্রী কলেজ থেকে আমরা ৬ জন যাত্রা শুরু করি।শুরুতেই বলে রাখি আমাদের যাত্রা উদ্দেশ্য ছিল ভিন্ন।বাবুগঞ্জ ডিগ্রী কলেজ প্রাঙ্গনে ৪ দিন ব্যাপি জেলা রোভার মুটের অংশগ্রহন কারী হিসাবি আমরা যোগদান করি।২৯ তারিখ আমরা হাইকিং বা অজানা গন্তব্যে যাত্রার সময়,পথ চলতে চলতে হঠাত চোখ আটকে যায় রাস্তার ডান দিকের একটি বাড়িতে,সাইনবোর্ডে লেখা শহীদ বুদ্ধিজীবী অধ্যাপক রামকৃষ্ণ অধিকারী।বরিশালের মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস যা পড়েছি তাতে কোথাও ওনার নাম খুজে পাই নি,অসংখ্য বীর মুক্তিযোদ্ধাদের কাহিনী জানলেও বুদ্ধিজীবী বলতে জানি শুধু শহীদ আলতাফ মাহমুদের নাম।সময় না থাকার কারনে আমি ঐদিন ওনার বাড়িতে ঢুকতে পারি নাই।পরদিন আবারো বাবুগঞ্জ বন্দর বাজারে কাজের জন্যে গেলে,একটি...

acne doxycycline dosage

গন্তব্য বার্ন ইউনিট

চাঁপাইনবাবগঞ্জের জামালুর ইসলাম পেশা অটো চালক,মুখে পোড়া দাগ।খোজ নিয়ে জানা গেল ট্রাক ড্রাইভার ছিলেন,মালিকের অনুরোধে কাঁচামাল নিয়ে বের হয়েছিলেন গন্তব্য ছিল কারওয়ান বাজার,কিন্তু গণতন্ত্রের আম্মু বাহিনীর ছোড়া পেট্রোল বোমা তার গন্তব্য পরিবর্তন করে নিয়ে যায় বার্ন ইউনিটে আড্ডা,ফেসবুকিং,ঘোরাঘুরি আর পড়াশোনা ইত্যাদি করে ভালোই সময় কাটছিল দুই বান্ধবি সাথী আর যুথি,সামনে পরিক্ষা ফর্ম ফিলাপ করতে কলেজে গিয়েছিল।ফেরার পথে বাসে বসে অন্য বান্ধবিদের সাথে আড্ডা মেরে ভালোই সময় কাটাচ্ছিল।পরিক্ষা শেষে কে কে কি প্ল্যান করবে সেই চিন্তাও করতে থাওক্ল।চোখের সামনে ভেসে উঠতে থাকল ঘুরতে যাওয়া আর হই হুল্লার করার দৃশ্য,হঠাত আর্ত চিতকারে নেমে আসে বাস্তব জগতে।সবাই হুরোহুরি করে বাস থেকে নামছে।বান্ধবিদের কেউ...

will i gain or lose weight on zoloft
side effects of quitting prednisone cold turkey

হারিয়ে যাওয়া গনযোদ্ধারা

  নভেম্বরের প্রথম দিকে,ত্রিপুরার মেলাঘর থেকে ২ দিন পরে,কুমিল্লার উদ্দেশ্যে যাত্রা করবেন কামরুল হাসান ভুইয়া (১৯৭১ সালে ঝিনাইদহ ক্যাডেট কলেজের উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী ছিলেন,যুদ্ধের পরে সেনাবাহিনীতে যোগদান করেন এবং মেজর হিসাবে অবসর গ্রহন করেন)।তদানিন্তন ইপিআরের হাবিলদার রমিজ উদ্দিন ২১ বছরের চাকরির দোহাই দিয়ে বার বার অনুরোধ করতে লাগলেন তাকে নেয়ার জন্য।কারন এই দলটি যে এলাকায় যুদ্ধে যাবে সেখানেই রমিজউদ্দিনের বাড়ি।রমিজ উদ্দিন কে পেয়ে খুশি হলেন কমান্ডার কামরুল হাসান ভুইয়া,তাই অনুমতি নিতে গেলেন মেজর এ টি এম হায়দারের কাছে।মেজর হায়দারের এক জবাব “না” শুনে চলে এলেন তিনি।বুঝালেন রমিজউদ্দিনকে।কিন্তু রমিজউদ্দিনের ক্রমেই বিনিত ভাষার অনুরোধ তার বাবা মা নেই,নেই কোন ছেলে শুধু দুইটা...

zithromax azithromycin 250 mg

হারিয়ে যাওয়া এক বীর যোদ্ধা

৬ ডিসেম্বর ২০১৪ পটুয়াখালীর একটি ফেসবুক গ্রুপে প্রথম জানতে পারি ওনার সম্পর্কে।৮ ডিসেম্বর হানাদার মুক্ত হয় পটুয়াখালি,সেই ৮ ডিসেম্বর ১৯৭১ সালে ডিসি কোর্টে উনি উড়িয়েছিলেন স্বাধীন বাংলাদেশের পতাকা।আলতাফ হায়দার সেই হারিয়ে যাওয়া নায়ক উনি উরিয়েছিলেন পটুয়াখালীতে স্বাধীন বাংলাদেশের পতাকা।৩ বার স্ট্রোক করে বর্তমানে পক্ষাঘাতে ভুগছেন।সাথে সাথে বিষয়টা অবগত করি আমার বাবাকে,তিনি খবরের সত্যতা স্বীকার করেন এবং জানান আলতাফ হায়দার সম্পর্কে বর্তমানে তারা কেউ অবগত নন।আলতাফ হায়দারের ব্যাপারটি জানান হয় প্রশাসন ও পৌর মেয়রকে তারাও ব্যাবস্থা গ্রহণে আশ্বাস দেন।তাদের সেই সাহায্য নিয়ে ২১ ডিসেম্বর আমি সহ ৪ জন রওনা দেই পটুয়াখালী থেকে মির্জাগঞ্জের উদ্দেশ্য।মির্জাগঞ্জের দেউলিতে থাকেন এই বীর যোদ্ধা। অত্যন্ত দুঃখজনক...

puedo quedar embarazada despues de un aborto con cytotec